একার সিদ্ধান্তে কোনও সম্পর্ক গড়ে উঠতে পারে না, আপনারও অধিকার আছে 'না' বলার!

একার সিদ্ধান্তে কোনও সম্পর্ক গড়ে উঠতে পারে না, আপনারও অধিকার আছে 'না' বলার!

দু'টি মানুষের মধ্যে যখন ভালবাসার সেতু গড়ে ওঠে, তখন তৈরি হয় একটা সম্পর্ক। আমরা সবাই চাই সেই সম্পর্ক স্বপ্নের মতো সুন্দর হোক। সেই সম্পর্কে কোনও বাধা না আসুক। কিন্তু এগুলো তখনই সম্ভব হবে, যখন সেতুর দুই প্রান্তের দু'টি মানুষ একসঙ্গে এই সম্পর্কে সম্মতি জানাবেন। আপনার যাঁকে ভাল লাগে বা আপনাকে যে ভালবেসে ফেলেছে, তাঁকে 'না' বলার পূর্ণ অধিকার আপনারা আছে। ছেলে খুব ভাল, ভাল চাকরি করে, দেখতেও সুন্দর…একটা সম্পর্কে 'হ্যাঁ' বলার এটা কোনও যুক্তিযুক্ত কারণ হতে পারে না। বিষয়টা যতটা সহজ বলে আমরা ভাবছি ততটা কিন্তু নয়। ভালবাসা (relationship) প্রত্যাখ্যান করার জন্য অনেকেই নানা দুর্ঘটনার মুখোমুখি হয়েছেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা গেছে বিষয়টিকে হাল্কা করে দেখার ফলেই এটা সম্ভব হয়েছে। আজ আমাদের এই প্রতিবেদন একটু মন দিয়ে পড়বেন। কারণ, 'হ্যাঁ' বলার ইচ্ছেটা যেমন আপনার, তেমনই যে-কোনও সম্পর্কে 'না' (no) বলার অধিকারও (right) আপনার আছে, একশো শতাংশ আছে। 

না, মানে না!

Pixabay

“আমি তোমাকে ভালবাসি না” এটা বলতে পিছপা হবেন না। জোর করে কাউকে ভালবাসা যায় না। হতে পারে আপনি অন্য কাউকে ভালবাসেন বা যে-কোনও কারণেই হোক, আপনি অন্তত এখন এই সম্পর্কের জন্য প্রস্তুত নন। তাই কেউ প্রেম নিবেদন করলেই তাঁকে 'হ্যাঁ' বলতে হবে তার কোনও মানে নেই। যদি না বলার দরকার হয় নিঃসঙ্কোচে তাই বলুন। 

ঠান্ডা মাথায় পরিস্থিতি সামলান

ছেলেদের ইগো বড় সাঙ্ঘাতিক জিনিস। সেটা এতটাই ঠুনকো যে একটু টোকা লাগলেই সেটা তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে। তাই কাউকে না বললেও রুঢ় ব্যবহার করবেন না। বরং আপনার 'না' বলার কারণ তাঁকে বুঝিয়ে বলুন। হতে পারে যে আপনার উপর আপনার পরিবারের কোনও চাপ বা দায়িত্ব আছে, তাই আপনি এখন 'হ্যাঁ' বলতে পারছেন না। তিনি যদি একজন সংবেদনশীল মানুষ হন, তা হলে আপনার সমস্যা তিনি বুঝবেন। একজন দায়িত্ববান ও রুচিশীল মানুষ হলে এই না শোনার পরে আপনার অনুমতি ছাড়া তিনি আপনাকে বিরক্ত করবেন না। 

সাহায্যের হাত

Pixabay

সবাই যে আপনার এই 'না' বলা মেনে নেবেন, তা কিন্তু নয়। অনেকেই আছেন, যাঁরা পরিস্থিতি আরও জটিল করে তুলবেন। এঁরা না বলার পরেও বারংবার আপনাকে একই কথা বলে যাবেন। এঁরা আপনাকে ফোন করবেন, এসএমএস করবেন এবং অবশ্যই নিয়মমাফিক ফেসবুকে অনুসরণ করবেন। এঁরা আপনাকে অফিস বা অন্যান্য জায়গায় আপনাকে ফলোও করতে পারেন। আর এই বিষয়টিকে হাল্কা ভাবে নেবেন না। আমি একাই সব সামলে নেব গোছের ভাব করে ওভার স্মার্টনেস দেখাবেন না। বরং বাড়ির লোকজন, ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং সহকর্মীদের বিষয়টি জানিয়ে রাখুন। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জল মাথার উপরে উঠে গেলে স্থানীয় থানা ও কাউন্সিলরকেও বিষয়টি জানিয়ে রাখুন। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...