যোগাসন করুন খোলা আকাশের নীচে, প্রকৃতির মাঝে, তাতে আরও বেশি উপকার পাবেন

যোগাসন করুন খোলা আকাশের নীচে, প্রকৃতির মাঝে, তাতে আরও বেশি উপকার পাবেন

যোগাসনের উপকারিতা অনেক। দেহের ক্ষমতা বাড়াতে তো বটেই, শরীরকে রোগমুক্ত রাখতেও যোগ ব্যায়ামের কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। মনঃসংযোগের অভাব ঘটছে। সঙ্গে লেজুড় হয়েছে মারাত্মক স্ট্রেস? নিয়মিত প্রাণায়ম করুন। দেখবেন, সব সমস্যা দূরে পালাবে। এত রকমের উপকার পাওয়া যায় বলেই তো দিনে দিনে যোগাসনের জনপ্রিয়তা এমন বেড়েছে। কিন্তু সমস্যা হয়েছে একটা অন্য জায়গাতে। কী সমস্যা? খেয়াল করে দেখবেন বেশিরভাগ মানুষই হয় যোগা সেন্টার, নয়তো বাড়িতে যোগাসন (Yoga) করেন, তাতে যে উপকার পাওয়া যায় না, এমন নয়। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, খোলা আকাশের নীচে, প্রকৃতির মাঝে যোগাসন করলে নাকি আরও বেশি উপকৃত হওয়া যায়। 

১. ছোট-বড় সব রোগ-ব্যাধি দূরে থাকে

pixabay

যোগাসনের কারণে এমনিতেই নানা উপকার পাওয়া যায়। আর যদি খালি পায়ে মাঠে ব্যায়াম করেন, তা হলে যে বাড়তি অনেক উপকার মিলবে, তাতে কোনও সন্দেহ নেই! কারণ, মাঠে-ময়দানে যোগাসন করার সময় খালি পায়ে ঘাসের উপর দিয়ে হাঁটাচলা করার প্রয়োজন পড়ে। বিশেষজ্ঞদের মতে, খালি পায়ে ঘাসের উপর দিয়ে হাঁটাহাঁটি করার সময় মাটি থেকে electrons, নানা আকুপাঞ্চার পয়েন্ট এবং mucous membrane-এর মাধ্যমে সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে, যে কারণে প্রদাহের মাত্রা কমতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার উন্নতি ঘটে। 

২. মনোযোগ বাড়ে, সঙ্গে দৃষ্টিশক্তিরও উন্নতি ঘটে

প্রকৃতির মাঝে শরীরচর্চা (Outdoor Yoga) করলে নানা শব্দকে উপেক্ষা করে মনকে স্থির রাখতে হয়, যা কম চ্যালেঞ্জের নয়! দিনের পর দিন এমন অভ্যাস করার কারণে স্বাভাবিকভাবেই মনঃসংযোগ বাড়ে। বাড়ে আত্মবিশ্বাসও। তাছাড়া সবুজ গাছগাছালির মাঝে কিছুটা সময় কাটানোর কারণে দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটতেও সময় লাগে না। সারা দিন মোবাইলের নীল আলোর কারণে যেখানে চোখের হাল বেহাল হয়ে পড়ে, সেখানে গাছের পাতার সবুজ রং দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটায়। অন্যদিকে, সকালের পরিবেশ মনকে শান্ত করে। ফলে cortisol হরমোনের ক্ষরণ কমতে থাকে, যে কারণে স্ট্রেস লেভেল নিয়ন্ত্রণে চলে আসতে সময় লাগে না। ফলে হাজার চাপেও দিনব্যাপী মন ফুরফুরে থাকে।

৩. ভিটামিন ডির ঘাটতি মেটে

বাড়িতে বা যোগা সেন্টারে ব্যায়াম করলে যোগাসনের যা উপকারিতা তাই পাবেন, তার চেয়ে বেশি কোনও উপকার পাবেন না। কিন্তু সকাল-সকাল গায়ে রোগ মেখে যোগাসন করলে অতিরিক্ত উপকার পাবেন। গায়ে রোদ লাগলে ভিটামিন ডি-র ঘাটতি মিটবে, যে কারণে অল্প বয়সে হাড়ের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা যেমন কমবে, তেমনই শরীরের ক্ষমতাও বাড়বে। তাছাড়া একাধিক গবেষণায় একথা প্রামণিত হয়ে গেছে যে, শরীরে এই ভিটামিনটির ঘাটতি দূর হলে রোগ-ব্যাধিও দূরে থাকতে বাধ্য হয়। তাই বুঝতেই পারছেন, খোলা আকাশের নীচে যোগাসন করার বাড়তি অনেক উপকারিতা রয়েছে, যা উপেক্ষা করা উচিত নয়।

৪. ফুসফুসের ক্ষমতা বাড়বে

pixabay

গাছগাছালির মাঝে যোগাভ্যাস করলে বিশুদ্ধ অক্সিজেন ফুসফুসে প্রবেশ করার সুযোগ পায়। ফলে দেহের এই গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গে জমে থাকা নানা ক্ষতিকর টক্সিক উপাদানগুলি ধ্বংস হয়ে যায়, যে কারণে ফুসফুসের কোনও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা কমে। তা ছাড়া যোগাসন করার সময় শ্বাস-প্রশ্বাস প্রক্রিয়া সঠিক নিয়ম মেনে হওয়ার কারণে অতিরিক্ত মাত্রায় অক্সিজেন ফুসফুসে প্রবেশ করে, তাতে ফুসফুসের ক্ষমতা তো বাড়েই, সঙ্গে হার্টের ক্ষমতারও উন্নতি ঘটে।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...