২০১৯ এর সালতামামি: টলিউডের বাছাই খবর দেখে নিন একনজরে in bengali | POPxo

২০১৯ সালতামামি: নতুন সেলেব সাংসদ, ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের নতুন চেয়ারম্যান...টলিউডের বাছাই খবর

২০১৯ সালতামামি: নতুন সেলেব সাংসদ, ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের নতুন চেয়ারম্যান...টলিউডের বাছাই খবর

২০১৯ শেষ ল্যাপে দৌড়চ্ছে। বছরভর নানা ঘটনা ঘটেছে টলিউড (Tollywood) ইন্ডাস্ট্রিতে। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক বাছাই করা কিছু ঘটনা। যা ইন্ডাস্ট্রির অন্দরে এবং বাইরে ভালই প্রভাব ফেলেছিল। 

১) গ্রেফতার শ্রীকান্ত মোহতা

Instagram
Instagram

বছরের শুরুতেই গ্রেফতার হন শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের (এসভিএফ) অন্যতম কর্ণধার শ্রীকান্ত মোহতা। রোজভ্যালি চিটফান্ড মামলায় তাঁকে গ্রেফতার করে সিবিআই। প্রথমে টলিউডের প্রভাবশালী হিসেবে পরিচিত ওই প্রযোজককে তাঁর কসবার অফিস থেকে আটক করেন সিবিআই আধিকারিকরা। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে নিয়ে গিয়ে সেখানেই গ্রেফতার করা হয় তাঁকে। শ্রীকান্তের গ্রেফতারিতে এসভিএফ-এর কাজে কোনও প্রভাব পড়বে কিনা, তা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছিল নানা মহলে। দৃশ্যতই প্রভাব পড়েছে বলে মনে করেন টলি মহলের একটা বড় অংশ। ওই প্রযোজনা সংস্থা তাদের বেশ কিছু প্রজেক্ট পিছিয়ে দেয়। কিছু বাতিল করে। এই মুহূর্তে সিনেমা হোক বা ওয়েব সিরিজ, বাছাই করা প্রজেক্টে কাজ হয় বলে ইন্ডাস্ট্রির খবর।

২) কৃষ্ণনগরে হেনস্থার শিকার ইমন

Instagram
Instagram

ফ্রেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে কৃষ্ণনগর পুরসভা আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে গান গাইতে গিয়েছিলেন ইমন চক্রবর্তী। সঙ্গে ছিলেন তাঁর মিউজিশিয়ান বন্ধুরা। অনুষ্ঠান শেষ হয়ে যাওয়ার পর গাড়ি ঘিরে তাঁকে হুমকি দিতে থাকেন আয়োজকরা, এমন অভিযোগ করেছিলেন ইমন।ওই এলাকা থেকে বেরতে দেওয়া হচ্ছিল না বলে ফেসবুক লাইভে সরাসরি অভিযোগ করেন ইমন। এই ঘটনার পর আদৌ শিল্পীর নিরাপত্তা কতটা, সে প্রশ্ন ওঠে বিভিন্ন মহলে।

৩) আচমকা বন্ধ 'ভবিষ্যতের ভূত'-এর প্রদর্শন

Instagram
Instagram

মুক্তি পাওয়ার একদিনের মধ্যে আচমকা বন্ধ করে দেওয়া হয় অনীক দত্ত পরিচালিত 'ভবিষ্যতের ভূত'-এর প্রদর্শন। যদিও বন্ধ করে দেওয়ার কোনও কারণ স্পষ্ট করে বলতে পারেননি হল মালিকরা। শোনা যায়, গোটা ঘটনার পিছনে নাকি রাজ্য সরকারের প্রচ্ছন্ন ভূমিকা ছিল। ঘটনা গড়ায় আদালতের দরজা পর্যন্ত। অনেক টানাপড়েনের পর ফের হলে দেখানো হয় ছবিটি। 

৪) টলিউডের পারিশ্রমিক জট

টলিউডে পারিশ্রমিক নিয়ে টালবাহানার ঘটনা নতুন নয়। তবে ২০১৯-এ তা চরম পর্যায়ে পৌঁছয়। সিরিয়ালের কাজ বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন টেকনিশিয়ানরা। কয়েকজন প্রযোজকের বিরুদ্ধে টাকা না দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। ফেডারেশন, আর্টিস্ট ফোরাম গোটা বিষয়ের মধ্যস্থতা করতে এগিয়ে আসে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। 

৫) মধুরার কানে স্বীকৃতি

Facebook
Facebook

২০১৯ কান চলচ্চিত্র উত্সবে 'পিয়ের অঁজেনিউ এক্সেলেন্স ইন সিনোমাটোগ্রাফি স্পেশ্যাল এনকারেজমেন্ট অ্যাওয়ার্ড' জিতে নিয়েছেন মধুরা পালিত। ভারত থেকে এই পুরস্কার প্রথম জিতলেন তিনি। গত বছর থেকে এই অ্যাওয়ার্ড চালু হয়েছে। প্রথম বছর চিন থেকে একজন পেয়েছিলেন। সেন্ট জেভিয়ার্সে মাস কম ভিডিয়ো প্রোডাকশন নিয়ে পড়াশোনা করার সময়ই মধুরার মনে হয় ক্যামেরা নিয়েই ভবিষ্যতে কাজ করতে চান তিনি। ২০১২-এ কলেজের পড়া শেষ করে এসআরএফটিআই-তে পড়াশোনা করেন। ২০১৭ থেকে পেশাদার হিসেবে কাজ শুরু করেন টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে।

৬) মিমি-নুসরত সাংসদ

Instagram
Instagram

ভোটের ময়দানে পা রাখলেন মিমি চক্রবর্তী এবং নুসরত জাহান। তৃণমূলের টিকিটে যথাক্রমে যাদবপুর এবং বসিরহাট কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিপুল ভোটে জয়ী হন দুই নায়িকা। দুজনেরই সাংসদ হিসেবে শুরু হয় নতুন জীবন।

৭) কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের চেয়ারম্যান রাজ চক্রবর্তী

Instagram
Instagram

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের (KIFF 2019) ২৫তম বর্ষে চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন রাজ (Raj) চক্রবর্তী। এ বছরের নতুন সংযোজন অ্যাডভাইসরি কমিটি। সেই কমিটির সদস্য তালিকায় নাম ছিল প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের।প্রসেনজিৎ নিজে দাবি করেছিলেন, তাঁকে চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণের খবর তাঁকে অফিসিয়ালি জানানো পর্যন্ত হয়নি। প্রথমে তাঁর উৎসবে উপস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে উপস্থিত হয়েছিলেন।

৮) খোলা হাওয়া

Instagram
Instagram

কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করে টলিউডের শিল্পী ও কলাকুশলীদের নতুন সংগঠন 'খোলা হাওয়া'র সূচনা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। টলিউডে শিল্পী ও কলাকুশলীদের শ্বাসরোধদ হয়ে যাওয়ার কারণেই নাকি নতুন সংগঠন তৈরি করতে হয়েছে বলে জানিয়েছিলেন বাবুল। নাম না করলেও তিনি বেশ স্পষ্ট ভাবেই আঙুল তুলেছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস এবং তাঁর ভাই স্বরূপ বিশ্বাসের দিকে। অর্থাৎ তৃণমূল শিবিরের পাশাপাশি টলিউডে খাতা খুলেছে বিজেপিও। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এই দশকটি আমরা শেষ করতে চলেছি #POPxoLucky2020-র মাধ্যমে। যেখানে আপনারা প্রতিদিন পাবেন নতুন-নতুন সারপ্রাইজ। আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার আগামী বছরটা POPup করে ফেলুন!