শীতকালে বিয়ে হলে অনেক সুবিধে আছে ঠিকই, তবে কিছু অসুবিধেও আছে! in bengali | POPxo

শীতকালে বিয়ে হলে অনেক সুবিধে আছে ঠিকই, তবে কিছু অসুবিধেও আছে! জেনে নিন, দু' দিক সম্বন্ধেই

শীতকালে বিয়ে হলে অনেক সুবিধে আছে ঠিকই, তবে কিছু অসুবিধেও আছে! জেনে নিন, দু' দিক সম্বন্ধেই

সব জিনিসেরই একটা ভাল দিক (pros) আছে, আবার একটা খারাপ (cons) দিক আছে। ভাল-মন্দ মিলেই যেমন মানুষ, ঠিক অন্যান্য বিষয়ের ক্ষেত্রেও ভালও রয়েছে, আবার খারাপও! এই যেমন দেখুন না, শীতকালের (winter) বিয়েবাড়ি মানেই কিন্তু দেদার মজা, তবে তা শুধুমাত্রই নিমন্ত্রিত অতিথিদের জন্য। যাঁদের বাড়িতে বিয়ের (wedding) অনুষ্ঠানটি হচ্ছে, তাঁদের কিন্তু কিছু-কিছু অসুবিধের মধ্যেও পড়তে হতে পারে যদি বিয়ে শীতকালে হয়। তবে কয়েকটা বিষয় যদি খেয়াল রাখা যায়, তা হলে সেই অসুবিধেগুলো বেশ সহজেই এড়ানো যায়। এখানে আমরা শীতকালে বিয়ের ভাল-মন্দ, দু'দিক নিয়েই আলোচনা করলাম।

শীতকালে বিয়ে হলে কী কী সুবিধে রয়েছে

১) বিয়ে ব্যাপারটা আমাদের জীবনে খুব একটা এক্সাইটিং বিষয়। যাদের বিয়ে (wedding) হচ্ছে তাঁদের জন্য তো বটেই, নিমন্ত্রিতদের জন্যও। কী পোশাক পরবেন, কীভাবে সাজবেন, কেমন পোজে ছবি তুলবেন, কী কী খাবেন – সবকিছু নিয়েই নানা জল্পনা চলতে থাকে। গরমকালে বিয়ে হলে বর-কনের তো বটেই, নিমন্ত্রিতদেরও নানা সমস্যা হয়। ঘামে মেকআপ নষ্ট হওয়া থেকে শুরু করে গরমে হাঁসফাঁস করতে করতে ঠিকভাবে বিয়েবাড়ির সুস্বাদু পদগুলি চেখে না দেখতে পারা – সব কিছুতেই অসুবিধে (cons)। তবে শীতকালে (winter) কিন্তু এই সমস্যাটা হয় না।

২) শীতকালে যেহেতু আবহাওয়া বেশ ঠান্ডা থাকে, কাজেই বেশ আরাম লাগে বিয়ের সময়ে। বিশেষ করে যজ্ঞ করার সময়ে ঘাম হওয়ার কোনও সমস্যাই থাকে না। দ্বিতীয়ত, শীতকালে (winter) বিয়ে হলে ডেকরেশন বেশ সুন্দর করে করা যায়। শুধুমাত্র এসি ব্যাঙ্কোয়েট হলের মধ্যে আটকে না থেকে লন বা বাগানে অর্থাৎ ঘরের বাইরেও সুন্দর বসার বা খাওয়ার এমনকি বিয়ের (wedding) ব্যবস্থাও করা যায়।

৩) বিয়েবাড়িতে সাজগোজ মানেই তা জমকালো। ভেলভেট বা সিল্কের পোশাক পরলে বিয়েবাড়িতে তা বেশ মানানসই হয়। কিন্তু গরমকালে এই ধরনের ফ্যাব্রিক পরা যায় না, গরমে কষ্ট হয়। তবে শীতকালে কিন্তু আপনি আপনার গরজিয়াস ভেলভেটের শাড়ি বা গাউন আরামসে (pros) পরতে পারেন।

শীতকালে বিয়ে হলে কী কী অসুবিধে রয়েছে

এ তো না হয় গেল শীতকালে (winter) বিয়ে হলে বা বিয়েবাড়িতে নিমন্ত্রণ পড়লে কী-কী সুবিধে (pros), তবে ওই যে বলেছিলাম, সব বিষয়েরই একটা উল্টোদিকও থাকে! দেখে নিন, শীতকালে বিয়ে (wedding) হলে কী কী অসুবিধে হতে পারে। আগে থেকে জানা থাকলে সেগুলো এড়ানো সুবিধে হবে।

১) শীতকালে বিয়েবাড়িতে গেলে জমকালো পোশাক আপনি পরতে পারবেন তা ঠিক, তবে ফুলহাতা পোশাক না পরলে কিন্তু ঠান্ডা লাগবে। আপনি হয়তো ভেবেছিলেন যে বিয়েবাড়িতে ব্যাকলেস চোলি বা ব্লাউজ পরে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেবেন, সেটি কিন্তু হবে না!

২) শীতকালে বিয়েবাড়ির ভেনু বুকিং অন্য সময়ের তুলনায় বেশ বেশি হয়। যেহেতু শীতকালে বিয়ের সংখ্যা অনেক বেশি থাকে, কাজেই ব্যাঙ্কোয়েট হল বা গার্ডেন – সবকিছুরই বুকিং অ্যামাউন্ট বেশি হয়।

৩) বিয়ে উপলক্ষে আপনার বাড়িতে যে অতিথি-অভ্যাগতরা আসবেন, তাঁদের মধ্যে যাঁরা রাতে থাকবেন, তাঁদের জন্য লেপ-কম্বলের ব্যবস্থা করতে হবে। একই কথা প্রযোজ্য বরের বাড়ি থেকে বিয়ের রাতে যাঁরা থেকে যাবেন, তাঁদের জন্যও।

 

মূল ছবি সৌজন্যে - ইনস্টাগ্রাম

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়