অ্যান্ড্রয়েড ফোনের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় বড়সড় ফাঁক! হ্যাকিং এড়াতে মেনে চলুন এই টিপসগুলি

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় বড়সড় ফাঁক! হ্যাকিং এড়াতে মেনে চলুন এই টিপসগুলি

আমাদের দেশে ক'জনই বা আই ফোন ব্যবহার করেন বলুন? বেশিরভাগের হাতেই তো দেখি অ্যান্ড্রয়েড ফোন। এদেশের মোট ২৯৯.২৪ মিলিয়ন মোবাইল ফোন উপভোক্তাদের সিংহভাগই যে অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করেন, তাতে কোনও সন্দেহ নেই। আর তাতেই কপালে ভাঁজ পড়েছে তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের। গুগলের security bulletin-এ অ্যান্ড্রয়েড ফোনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে যে তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে, তাতে আমার-আপনার মাথায় বাজ পড়তে বাধ্য! কেন? এই সিকিউরিটি বুলেটিন অনুযায়ী, অ্যান্ড্রয়েড ফোনের নিরাপত্তা বলয়ে এমন তিনটি ফাঁক রয়েছে, যে কারণে যে-কোনও সময় যে-কারও ফোন হ্যাক হতে পারে। এমন পরিস্থিতি এড়িয়ে চলতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া একান্ত প্রয়োজন। কিন্তু এমন বিপদ কি আদৌ এড়ানো সম্ভব? আলবাত সম্ভব! তবে তার জন্য কতগুলি বিষয় মাথায় রাখা একান্ত প্রয়োজন, সঙ্গে মেনে চলতে হবে এই টিপসগুলি, তা হলেই আর কোনও চিন্তা থাকবে না।

তিনটের মধ্যে একটা 'most severe’

pixabay

Google-এর Android Security Bulletin-এ অ্যান্ড্রয়েড ফোনের নিরাপত্তা প্রসঙ্গে যে তিনটি বড় রকমের গাফিলতির উল্লেখ রয়েছে, তার মধ্যে দুটো ফাঁক বড়সড় রকমের না হলেও একটা গাফিলতিকে 'most severe' আখ্যা দেওয়া হয়েছে। তাই বুঝতেই পারছেন, সময় থাকতে থাকতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিলে যে কোনও সময় ফোনে থাকা যে কোনও তথ্য ফাঁস হয়ে যেতে পারে। এমনকী, ফোনের মারাত্মক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে।

এই কারণে ফোনের কেমন ধরনের ক্ষতি হতে পারে?

NIST National Vulnerability Database অনুযায়ী কোনও হ্যাকার আপনার ফোনে বিশেষ এক ধরনের মেসেজ পাঠানো মাত্র ফোন কাজ করা বন্ধ করে দেবে। হ্যাংও হয়ে যেতে পারে। কোনও কোনও পরিস্থিতিতে ফোনের এমন ক্ষতি হতে পারে যে ফোনটা পুরোপুরি কাজ করা বন্ধ করে দিতে পারে। তাহলে কী করণীয়? এমন হ্যাকিং আটকানোর উপায় একটা আছে বই কী! তবে তার জন্য প্রাথমিক একটা নিয়ম মেনে চলা একান্ত প্রয়োজন। কী নিয়ম? ফোনে কোনও মেসেজ এলো, আর অমনি আপনি পটাং করে সেটা খুলে ফললেন, তা করলে চলবে না। বর্তমানে যা পরিস্থিতি, তাতে কোন মেসেজে কী বিষ লুকিয়ে রয়েছে, তা খালি চোখে বোঝা সম্ভব নয়। তাই অচেনা কোনও নম্বর থেকে আসা মেসেজ খোলার আগে ভাল করে যাচাই করে নিন। প্রয়োজন সেই সব মেসেজ ডিলিট করতে দেরি করবেন না।

ফোনকে সুরক্ষিত রাখার উপায়

pixabay

হ্যাকারদের হাত থেকে রক্ষা পেতে হলে আরেকটা কাজ করতেই হবে। ডিসেম্বর মাসে অ্যান্ড্রয়েডের security update আসা মাত্র ইনস্টল করতে দেরি করবেন না যেন! তবে এক্ষেত্রে একটা বিষয় জেনে রাখা উচিত। কী বিষয়? সব অ্যান্ড্রোয়েড স্মার্ট ফোনে ঠিক সময়ে সিকিউরিটি আপডেট আসে না। কোনও কোনও পুরনো অ্যান্ড্রয়েড ফোনে (smartphone) এমন আপডেট আসতে অনেক সময় নিয়ে নেয়। তবে যবেই আসুক না কেন তা আসা মাত্র ইনস্টল করা জরুরি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই কোম্পানির তরফ থেকে নতুন আপডেট এসে গিয়েছে। তাই যে কোনও সময় আপনি সেই নোটিফিকেশন পেয়ে যাবেন।

কোন কোন ফোন বিপদসীমার মধ্যে রয়েছে?

Android Security Bulletin অনুযায়ী অ্যান্ড্রয়েড ৮.০, ৯ এবং অ্যান্ড্রয়েড ১০ যে যে ফোনে রয়েছে, তাঁরা সাবধান। কারণ, এই ফোনগুলির ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বেশি। এখন প্রশ্ন হল, জানবেন কীভাবে যে আপনার ফোনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আদৌ দুর্বল কিনা? এই তথ্য জানতে ফোনের সেটিং-এ গিয়ে 'অ্যাবাউট ফোন' বাটনটা ক্লিক করতে হবে। তারপর অ্যান্ড্রয়েড সিকিউরিটি প্যাচ লেভেল-এ ক্লক করলেই এই বিষয়ে জেনে ফেলতে পারবেন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoBeauty – POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়