Rooftop Restaurants In Kolkata - কলকাতার সেরা রুফটপ রেস্তোরাঁর সন্ধান | POPxo

কলকাতার ১৫টি সেরা রুফটপ রেস্তোরাঁর সন্ধান রইল, বন্ধু বা পরিবারের সঙ্গে ট্রাই করতে পারেন

কলকাতার ১৫টি সেরা রুফটপ রেস্তোরাঁর সন্ধান রইল, বন্ধু বা পরিবারের সঙ্গে ট্রাই করতে পারেন

পরিবার বা বন্ধুদের সঙ্গে রেস্তোরাঁয় খেতে গিয়েছেন। কিন্তু বদ্ধ পরিবেশ নয়। বরং খোলা হাওয়ায় আকাশের নীচে রয়েছে আনন্দ করার সুযোগ। ঠিকই ধরেছেন। রুফটপ রেস্তোরাঁর কথাই বলছি আমরা। কলকাতাতেও (Kolkata) কয়েক বছর হল এই কনসেপ্ট অত্যন্ত জনপ্রিয়। অনেকেই রুফটপ রেস্তোরাঁয় (Rooftop Restaurant) সময় কাটাতে পছন্দ করছেন। কিন্তু কোথায় কেমন খাবার পাওয়া যায়, বা তার পরিবেশ কেমন, এ সম্পর্কে অনেকেরই স্পষ্ট ধারণা নেই। এই প্রতিবেদনে কলকাতার কিছু জনপ্রিয় রুফটপ রেস্তোরাঁর সন্ধান রইল (Rooftop Restaurants In Kolkata)। ছুটির দিনে সময় কাটাতে পারেন। আপনার নতুন ডেস্টিনেশনের হদিশ দেওয়ার চেষ্টা করলাম আমরা। 

Table of Contents

    রুফটপ রেস্তোরাঁর সৌন্দর্য (Beauty of Rooftop Restaurants)

    রুফটপ রেস্তোরাঁ মানেই তা ছাদের উপর। খোলা আকাশের নীচে। ফলে আড্ডা, গল্প, খাওয়ার মাঝখানে খোলা হাওয়ার মুক্তি। বদ্ধ ঘরের পরিবেশ থেকে বেরিয়ে কখনও গরমের বিকেলে হাইরাইজের ফাঁকে সূর্য ডুবতে দেখবেন। আবার কখনও বা শীতের মিঠে রোদ পিঠে নিয়ে গল্পের বিনুনি বুনতে বুনতে চোখে পড়বে সবুজ গাছের সারি। রুফটপ রেস্তোরাঁর (Rooftop Restaurant) আসল সৌন্দর্য এখানেই। খোলা হাওয়ায় আলাদা করে শ্বাস নেওয়ার সুযোগ। একমাত্র বর্ষাকাল ছাড়া বছরের অন্যান্য সময় আপনি চুটিয়ে এনজয় করতে পারেন। 

    কলকাতার বিশেষ কয়েকটি রুফটপ রেস্তোরাঁ (Top Rooftop Restaurants In Kolkata)

    বিদেশে তো বটেই, সারা ভারতেই রুফটপ রেস্তোরাঁ এই মুহূর্তে অত্যন্ত জনপ্রিয় কনসেপ্ট। কলকাতাও পিছিয়ে নেই। বহু রুফটপ রেস্তোরাঁ (Best Rooftop Restaurants In Kolkata) এখন কলকাতার স্কাই লাইন দেখার আদর্শ ঠিকানা। আমরা তেমনই কয়েকটি সন্ধান দেওয়ার চেষ্টা করলাম। 

    ১| হোয়াটস্ আপ (What's Up Cafe)

    এই রুফ টপ রেস্তোরাঁ এখন কলকাতার ফুড লাভারদের হট লিস্টের প্রথম দিকেই রয়েছে
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    দক্ষিণ কলকাতার এই রুফ টপ রেস্তোরাঁ এখন কলকাতার ফুড লাভারদের হট লিস্টের প্রথম দিকেই রয়েছে। নজরুল মঞ্চকে ল্যান্ডমার্ক করে পৌঁছে যেতে পারেন। বাইরে বসলে কলকাতার অনেকটা অংশ চোখে পড়বে আপনার। আবার এসির আরাম পেতে বসতে পারেন ভেতরেও। চাইনিজ, কনটিনেনটাল ডিশ ট্রাই করতে পারেন। রয়েছে মকটেল সহ হার্ড ডিঙ্কের ব্যবস্থাও। আবার হুক্কার স্বাদও মিলবে এই রুফটপ রেস্তোরাঁয় (Rooftop Cafe Kolkata)।

    ২| ওজারা (Ozora)

    অ্যাক্রোপলিস মলের একেবারে ওপরে রয়েছে এই লাউঞ্জ রেস্তোরাঁ
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    রাজডাঙা মেন রোডের অ্যাক্রোপলিস মল এখন কলকাতাবাসীর চেনা ঠিকানা। সেখানেই রয়েছে কলকাতার অন্যতম রুফটপ রেস্তোরাঁ ওজারা। অ্যাক্রোপলিস মলের একেবারে ওপরে রয়েছে এই লাউঞ্জ রেস্তোরাঁ। এখানে পৌঁছে গেলে আকাশ দেখতে দেখতে খাবার এনজয় (Open Air Restaurants In Kolkata) করতে পারবেন আপনি। খুব অসুবিধে না হলে এয়ার কন্ডিশন এড়িয়ে চলুন। দুজনের খাওয়ার খরচ কমপক্ষে ২৭০০ টাকা। আপনার পছন্দ অনুযায়ী এর বেশিও হতে পারে।

    ৩| দ্য ব্রিজ অ্যাট দ্য ফ্লোটেল (The Bridge - The Floatel Hotel)

    বিকেলের দিকে গেলে নদী দেখতে দেখতে স্ন্যাক্স খেতে পারবেন
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁর (Rooftop Restaurants Kolkata) খোঁজে যদি থাকেন, তাহলে বিবাদী বাগ অর্থাৎ স্ট্র্যান্ড রোডের ফ্লোটেল আপনার ডেস্টিনেশন হতেই পারে। যদি জল ভালবাসেন, তাহলে এটাই আপনার সেরা ঠিকানা। বিশেষত বিকেলের দিকে গেলে নদী দেখতে দেখতে স্ন্যাক্স খেতে পারবেন। দুজনের খাওয়ার খরচ কমপক্ষে ১৬০০ টাকা। তবে কোন মেনু অর্ডার করছেন তার ওপর দাম নির্ভর করবে।

    ৪| জুকা লাউঞ্জ (Zucca Lounge)

    এর শ্বেতশুভ্র অন্দরসজ্জা আপনার মন ভাল করে দেবে
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    হিন্দুস্তান পার্কের জুকা লাউঞ্জের একটা ক্লাসি এবং সফিস্টিকেটেড লুক রয়েছে। বিশেষত এর শ্বেতশুভ্র অন্দরসজ্জা আপনার মন ভাল করে দেবে। এই ক্যাফেতে বসলে আকাশ দেখাটা নিশ্চিত। সঙ্গে কলকাতার অনেকটা সবুজ আপনার মন ভাল করে দেবে। দুজনের খাবার খরচ কমপক্ষে ১০০০ টাকা। তবে কোন মেনু আপনি পছন্দ করছেন, তার ওপর দামের রকমফের হবে।

    ৫| ব্লু অ্যান্ড বিয়ন্ড (Blue And Beyond)

    লিন্ডসে স্ট্রিটের এই রেস্তোরাঁ থেকে সোজা চোখে পড়ে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    কলকাতায় রুফটপ রেস্তোরাঁর খোঁজ করলে নিউ মার্কেট চত্বরের ব্লু অ্যান্ড বিয়ন্ডে একবার ঘুরে আসতে পারেন। লিন্ডসে স্ট্রিটের এই রেস্তোরাঁ থেকে সোজা চোখে পড়ে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল। সূর্যাস্তের সময় তার রূপ আরও সুন্দর হয় (Open Air Restaurants In Kolkata)। তাই কোনও একটা বিকেল কাটাতেই পারেন এই রেস্তোরাঁয়। অথবা ক্যান্ডেল লাইট ডিনারের প্ল্যান করে ফেলুন। সাধারণ ভাবে দুজনের খাওয়ার খরচ দুই হাজার টাকার মতো। তবে মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    ৬| স্মোক শেক (Smoke Shack)

    পুল সাইড বারে বসে হালকা ড্রিঙ্ক নিয়ে প্রিয়জন বা বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটাতে পারেন
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    বালিগঞ্জের এই রেস্তোরাঁয় শুধু খোলা আকাশই পাবেন না। সঙ্গে পাবেন পুলও। পুল সাইড বারে বসে হালকা ড্রিঙ্ক নিয়ে প্রিয়জন বা বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটাতে পারেন। কলকাতার হাইরাইজ নজরে পড়বে আপনার। সূর্যাস্তের সময় পৌঁছলে আকাশে রঙের খেলা আপনাকে মুগ্ধ করবে। সাধারণ ভাবে দুজনের খাওয়ার খরচ তিন হাজার টাকার মতো। তবে মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    ৭| মাঙ্কি বার (Monkey Bar)

    এই রেস্তোরাঁয় আপনি সব সময়ই নতুন কিছু পাবেন
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    ক্যামাক স্ট্রিট চত্বরের মাঙ্কি বার এক কথায় কলকাতার অন্যান্য রুফটপ রেস্তোরাঁর থেকে একেবারে আলাদা। কারণ সব সময়ই এখানে গেলে আপনি নতুন কিছু পাবেন। ধরুন, কখনও উইন্টার মেনু, কখনও আইপিএল মেনু, কখনও বা সামার ককটেল। এই রেস্তোরাঁর বাটার চিকেন খিচড়ি বা টাইগার বিফের স্বাদ মুখে লেগে থাকবে। রকমারি ককটেলও পাবেন। তাই বন্ধুদের সঙ্গে একটা প্ল্যান করেই ফেলুন।

    ৮| দ্য ওয়াইজ আউল স্টেক হাউজ (The Wise Owl Steakhouse)

    চেনা পাড়ার মধ্যে রয়েছে এই রুফটপ রেস্তোরাঁ
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    কলকাতার হিন্দুস্তান পার্ক নিশ্চয়ই আপনি চেনেন। চেনা পাড়ার মধ্যে রয়েছে এই রেস্তোরাঁ (Open Air Restaurants In Kolkata)। এক তলায় একটি ক্যাফেও পাবেন। আর একেবারে উপরে অর্থাৎ ছাদে রয়েছে রেস্তোরাঁর আয়োজন। শীতের পড়ন্ত রোদে গরম কফি নিয়ে বসলে জাস্ট জমে যাবে। আর গরম কালে ট্রাই করতে পারেন অন্যান্য ড্রিঙ্কস। স্টেক খেতে ভালবাসলে এটি আপনার উইশ লিস্টে রাখতেই হবে। বিভিন্ন রকম কুইজিন ট্রাই করতে পারবেন। কিন্তু কন্টিনেনটাল এবং আমেরিকান ডিশের ঢালাও সম্ভার রয়েছে। চিকেন, পর্ক, বিফ সব রকমই পাবেন। তবে অ্যালকোহল এখানে সার্ভ করা হয় না। চিকেন স্টেক, পর্ক চপস, চিকেন বারবিকিউ উইঙ্গস, বিফ স্টেক, চিকেন সিজলারের মতো পদ চেখে দেখুন। দুজনের খরচ ১০০০ টাকা। তবে মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    ৯| আফরা রেস্টুরেন্ট অ্যান্ড লাউঞ্জ (Afraa Restaurant And Lounge)

    সল্টলেক সিটি সেন্টার মলের একেবারের উপরে রয়েছে এই রেস্তোরাঁ
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    সল্টলেকের আফরা কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁর লিস্টে অন্যতম। সল্টলেক সিটি সেন্টারে পৌঁছে গেলেই পাবেন অসাধারণ পরিবেশ। এই মলের একেবারের উপরে রয়েছে এই রেস্তোরাঁ (Best Rooftop Restaurants In Kolkata)। তবে জায়গা খুব একটা বড় নয়। তাই যাওয়ার আগে বুকিং করে যান অথবা বাইরে বসতে হলে আগে পৌঁছন। তবে ভিতরের অংশের পরিবেশও সুন্দর। কাচের দেওয়াল থাকার জন্য বাইরের আকাশ আপনি দেখতে পাবেন। আপনার ডিজে পছন্দ হলে সেই অপশনও রয়েছে। ককটেল, সালাড, পিৎজা, স্যান্ডউইচ, ব্রাউনির মতো বিভিন্ন ডিশ ট্রাই করতে পারেন। দুজনের খরচ কমপক্ষে ১৮০০ টাকা। মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    ১০| দ্য ওরিয়েন্ট (The Orient, Kolkata)

    নজরে পড়বে এই রেস্তোরাঁর ইন্টারেস্টিং ডেকোরেশন
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    সিটি সেন্টারে আরও একটি রুফটপ রেস্তোরাঁর খোঁজ দেওয়া যেতে পারে। আফরার উল্টো দিকেই রয়েছে দ্য ওরিয়েন্ট। প্রথমেই নজরে পড়বে ইন্টারেস্টিং ডেকরেশন। আরও মেনু চেখে দেখলে বেশিরভাগ খাদ্য রসিকেরই পছন্দ হবে। এই রেস্তোরাঁর চাইনিজ মেনু খুবই জনপ্রিয়। ওরিয়েন্টাল এবং প্যান এশিয়ান খাবারও আপনি পেতে পারেন। খোলা হাওয়ায় বসার ব্যবস্থা রয়েছে। সেখান থেকে সল্টলেকের সবুজ আপনার চোখে পড়বে। লাইভ মিউজিক, লাইভ স্পোর্টস এখানকার অন্যতম আকর্ষণ। খোলা আকাশের নীচে রাতের কলকাতা দেখতে চাইলে এখানে একবার ঘুরে আসুন। নুডলস, সুসি, ফিশ, মকটেল, চিকেন মোমো, সালাডের ঢালাও আয়োজন রয়েছে। বেছে নিন পছন্দ মতো। দুজনের খাওয়ার খরচ কমপক্ষে ১৭০০ টাকা। মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    ১১| অ্য়াট দ্য রেট ৪৯ (@49 Kolkata)

    উত্তর কলকাতার একটি পুরনো বাড়িতেই তৈরি হয়েছে এই রেস্তোরাঁ
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    আপনার কি উত্তর কলকাতায় বাড়ি? অথবা যাতায়াত রয়েছে নিয়মিত? কলকাতায় রুফটপ রেস্তোরাঁর সন্ধানে রয়েছেন? তাহলে আপনার ডেস্টিনেশন হতেই পারে অ্য়াট দ্য রেট ৪৯। এটি একটি ইন্দো-চাইনিজ রেস্তোরাঁ। মেনু নয়। এখানকার মূল আকর্ষণ পরিবেশ। খুব ভাল খাবার চেখে দেখার টার্গেট নিয়ে এই রেস্তোরাঁয় যাবেন না। বরং পরিবেশটা উপভোগ করতে পারেন। উত্তর কলকাতার একটি পুরনো বাড়িতেই তৈরি হয়েছে এই রেস্তোরাঁ। ফলে পুরনোকে ছুঁয়ে দেখতে চাইলে এই রেস্তোরাঁয় যেতে পারেন। ড্রাগন চিকেন, নুডলস, মানচাও স্যুপ, সুইট কর্ন স্যুপ, তন্দুরি চিকেন, চাউমিন, রুটি এখানকার মেনুতে রয়েছে। বেছে নিন নিজের পছন্দ মতো। দুজনের খাওয়ার খরচ কমপক্ষে ৬০০ টাকা। তবে মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    ১২| কাপেলা, অলটেয়ার বুটিক হোটেল (Capella - Altair Boutique Hotel)

    নানা সুস্বাদু খাওয়ার আপনি পেয়ে যাবেন এই রেস্তোরাঁতে
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    ভাবুন তো, মিনিয়েচার প্লাম গাছে ঘেরা একটা রুফটপ রেস্তোরাঁ। তাও আবার কলকাতায়! দুবাই বা আবুধাবিতে বেড়াতে গেলে এমনটা আপনি হামেশাই পাবেন। কিন্তু কলকাতায়? হ্যাঁ, তাও রয়েছে। শুধু আপনার খুঁজে নেওয়ার অপেক্ষা। এই রকম অ্যাম্বিয়েন্স চাইলে আপনার ঠিকানা সেক্টর ফাইভের অলটেয়ার বুটিক হোটেল। বিভিন্ন সিনেমার পোস্টারে সাজানো ভিতরের দেওয়াল। সেখানে বলিউডের ব্লকবাস্টারও পাবেন, আবার সত্যজিৎ রায়ের ক্লাসিকও। ককটেল, মকটেল, ব্রাউনি, গুলাব জামুন, পিৎজা, হট চকোলেটের মতো নানা সুস্বাদু পদ চেখে দেখতে পারেন। দুজনের খাওয়ার খরচ কমপক্ষে ১৬০০ টাকা। তবে মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    ১৩| আলফ্রেসকো, দ্য ললিত গ্রেট ইস্টার্ন (Alfresco - The Lalit Great Eastern)

    দ্য ললিত গ্রেট ইস্টার্ন কলকাতার বিখ্যাত রেস্তোরাঁ গুলির একটি। এর উপরের তলায় রয়েছে এই রুফটপ রেস্তোরাঁ (Best Rooftop Restaurants In Kolkata)। এটি একটি ফোর স্টার হোটেল। ফলে খাবার বলুন বা অ্যাম্বিয়েন্স সেই মানেরই হবে, আশা করা যায়। ডালাহৌসি, এসপ্ল্যানেড চত্বরের এই রেস্তোরাঁয় রবিবার পৌঁছে গেলে মিলবে ব্রাঞ্চও। বারের আয়োজনও রয়েছে। ককটেল, ওয়াইন, বিয়ার, পাস্তা, ননভেজ কাবাব অবশ্যই চেখে দেখা উচিত। দুজনের খাওয়ার খরচ কমপক্ষে ৩০০০ টাকা। তবে মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    ১৪| লেভেল সেভেন (Level Seven)

    এই রেস্তোরাঁর খাবার এবং পানীয় অবশ্যই তারিফ করার মতো
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    তপসিয়ার লেভেল সেভেন কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁ গুলির মধ্যে অন্যতম। বিখ্যাত সিরিজ গেম অব থ্রোনসে যে ধরনের আসবাব দেখেছেন, সেই ধরনের আসবাব দিয়ে ইন্টিরিয়ার ডেকরেশন করা হয়েছে। রয়েছে ডবল ডেকার গ্যাস্ট্রোপাব। এখানকার খাবার এবং পানীয় অবশ্যই তারিফ করার মতো। সঙ্গে রয়েছে কলকাতার স্কাই লাইন দেখার হাতছানি। কভার করা জায়গাও রয়েছে। আবার খোলা আকাশের নীচেও বসতে পারেন। দুই জায়গা থেকেই আকাশ দেখতে পারবেন আপনি। পরিবার হোক বা বন্ধুদের গ্রুপ, সকলকে নিয়ে যাওয়ার মতো পরিবেশ। তন্দুরি গন্ধরাজ ভেটকি, লেভেল সেভেন সিগনেচার পিৎজা, মুর্গ বিরিয়ানি চেখে দেখতে পারেন। অ্যালকোহল সহ দুজনের খাওয়ার খরচ কমপক্ষে ২১০০ টাকা। তবে মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    ১৫| ক্লাব ফেনিশিয়া (Club Fenicia)

    সেক্টর ফাইভের এই রেস্তেরাঁয় ব্লুটুথ, ওয়াইফাই কানেকশনের মতো সুবিধেও আপনি পাবেন
    ছবি সৌজন্যে: ফেসবুক

    কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁর (Rooftop Restaurants In Kolkata) স্বাদ নিতে চাইলে ক্লাব ফেনিশিয়াতে অন্তত একবার আপনাকে যেতেই হবে। সেক্টর ফাইভের এই রেস্তেরাঁয় ব্লুটুথ, ওয়াইফাই কানেকশনের মতো সুবিধেও আপনি পাবেন। কনটিনেন্টাল, ইন্ডিয়ান, অ্যারাবিক এবং কিছু ফিউশন ডিশ ট্রাই করতে পারেন। কেরালা ফ্রায়েড প্রন, এশিয়ান ওয়াসাবি ব্রাউনি এখানকার বিখ্যাত মেনু। দুজনের খাওয়ার খরচ কমপক্ষে ২০০০ টাকা। তবে মেনু বদলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাবে দামও।

    কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁ নিয়ে কিছু প্রশ্নোত্তর (FAQs)

    কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁ (Rooftop Restaurants In Kolkata) নিয়ে কিছু সাধারণ কিছু প্রশ্নোত্তর দেখে নেওয়া যাক -  

    ১| কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁ গুলির খাবারের মান এবং দাম কেমন?

    কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁ গুলির খাবারের মান সত্যিই ভাল। কিছু কিছু রেস্তোরাঁর কিছু ইউনিক আইটেম আপনি ট্রাই করতে পারবেন। আপনি যদি রেস্তোরাঁতে খেতে অভ্যস্ত হন, তাহলে বুঝতে পারবেন দামও সাধ্যের মধ্যেই। 

    ২| কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁ গুলির বিশেষত্ব কী?

    কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁ গুলি থেকে মূলত দেখতে পাবেন কলকাতার স্কাই লাইন। কখনও খোলা আকাশ, কখনও হাইরাইজ বিল্ডিং, কখনও বা সবুজের সমারোহ আপনার মন ভাল করে দেবে। 

    ৩| কলকাতার রুফটপ রেস্তোরাঁতে আগে থেকে বুক করে যাওয়া প্রয়োজন?

    কলকাতার কয়েকটি রুফটপ রেস্তোরাঁয় সীমিত জায়গার কারণে অবশ্যই আগে থেকে বুক করে যাবেন। এতে আপনার টেবিল পাওয়া নিশ্চিত হয়ে থাকবে। 

    POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

    ২০২০ সালটা শুরু করুন আমাদের দারুণ সব প্ল্যানার এবং স্টেটমেন্ট মেকিং সোয়েটশার্ট দিয়ে, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shop-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন।

    Image Source: Facebook