কেমন ত্বকে কীরকম ক্লে মাস্ক ব্যবহার করা উচিত in bengali | POPxo

নানা ত্বকের নানা সমস্যার সমাধানে রইল দারুণ কিছু ক্লে মাস্কের হদিশ

নানা ত্বকের নানা সমস্যার সমাধানে রইল দারুণ কিছু ক্লে মাস্কের হদিশ

কথায় বলে মুখই মনের আয়না, আর আয়নার তো অবশ্যই চাকচিক্য প্রয়োজন। তাই বোধ হয় আমরা রূপচর্চা (skin care) করার সময়ে সবচেয়ে বেশি পরিচর্যা করি মুখের। আর সত্যি বলতে কী, যত রাজ্যের ত্বকজনিত সমস্যা কিন্তু মুখেই হয়। ব্রণ থেকে শুরু করে অ্যাকনে (acne), দাগ-ছোপ থেকে শুরু করে র‍্যাশ – সবই যেন মুখেই বেরোয়! মুখের লাবণ্য ধরে রাখতে আমরা নানা ঘরোয়া ফেসপ্যাক, মাস্ক, বাবল মাস্ক, শিট মাস্ক আর বাজারচলতি নানা ক্লে-মাস্কও (clay mask) ব্যবহার করি। কিন্তু যে ভুলটা বেশিরভাগ সময়েই আমরা মোটামুটি সবাই করে ফেলি, তা হল নিজের ত্বকের ধরন অনুযায়ী ক্লে মাস্ক না লাগিয়ে যে-কোনও একটা মাস্ক লাগিয়ে নিই। আর সমস্যাটা এখানেই শুরু হয়। ত্বকের পরিচর্যায় উপকার তো কিছু পাওয়া যায় না, উল্টে সমস্যাগুলো মুখে আরও বেশি করে প্রকট হয়ে ওঠে। আজ জেনে নেওয়া যাক যে, কোন ধরনের ত্বকের জন্য কোন ক্লে মাস্ক ব্যবহার করা উচিত। সঙ্গে রইল আমাদের পছন্দের কিছু প্রোডাক্টও।

স্বাভাবিক ত্বকের জন্য

সাধারণ ত্বকের জন্য ক্লে মাস্ক
শাটারস্টক

আপনি যদি নিয়মিত ত্বকের পরিচর্যা (skin care) করতে চান, সেক্ষেত্রেও কিন্তু মাঝে-মাঝে ক্লে মাস্ক (clay mask) দিয়ে ত্বক গভীর থেকে পরিষ্কার করা প্রয়োজন।

আমাদের পছন্দ: হানি-ওটমিল ক্লে ফেস প্যাক

অ্যাকনেযুক্ত ত্বকের জন্য

অ্যাকনেযুক্ত ত্বকের জন্য ক্লে মাস্ক
শাটারস্টক

যাঁদের ত্বকে খুব বেশি ব্রণ-ফুসকুড়ি হয় এবং অ্যাকনের (acne) সমস্যা রয়েছে, তাঁরা ফ্রেঞ্চ গ্রিন ক্লে মাস্ক (clay mask) ব্যবহার করতে পারেন।

আমাদের পছন্দ: ডট অ্যান্ড কি পলিউশন প্লাস অ্যাকনে ডিফেন্স গ্রিন ক্লে মাস্ক

সংবেদনশীল ত্বকের জন্য

সংবেদনশীল ত্বকের জন্য ক্লে মাস্ক
শাটারস্টক

অনেকেরই ত্বক খুব সংবেদনশীল হয়, তাঁরা ইচ্ছে করলেই যে-কোনও বিউটি প্রোডাক্ট ব্যবহার করতে পারেন না। গোলাপের নির্যাসযুক্ত কোনও ক্লে মাস্ক দিয়ে তাঁরা ত্বকের পরিচর্যা করতে পারেন।

আমাদের পছন্দ: জেনেরিক ফ্রেঞ রোজ ক্লে মাস্ক ফর সেনসিটিভ অ্যান্ড মাচিওর স্কিন

ত্বকের কোন সমস্যা কী রঙের ক্লে মাস্কে দূর করা সম্ভব

নানা রঙের ক্লে মাস্ক ত্বকের নানাবিধ সমস্যার সমাধান করে
শাটারস্টক

অবাক হবেন না, কী রঙের ক্লে মাস্ক (clay mask) ব্যবহার করছেন আর কেনই বা করছেন তা তো অবশ্যই জানা উচিত; তা না হলে মুখের ত্বকের সমস্যা বাড়বে বই কমবে না।

  • লাল বা গোলাপি: যাঁদের ত্বকে প্রচুর বড় এবং খোলা লোমকূপ রয়েছে এবং পিগমেনটেশন বা দাগ-ছোপের সমস্যা রয়েছে, তাঁরা ব্যবহার করতে পারেন এই রঙের ক্লে মাস্ক। সাধারণত লাল চন্দন আর মুলতানি মাটি মিশিয়ে তৈরি করা হয় বিউটি প্রোডাক্টটি।
  • বাদামি: যদি আপনার ত্বক খুব ম্যাড়ম্যাড়ে হয়, সেক্ষেত্রে আপনি বাদামি রঙের ক্লে মাস্ক লাগাতে পারেন। চটজলদি কোথাও বেরনোর আগে লাগিয়ে নিন এবং সময়মতো তুলে ফেলুন। ঝটপট ত্বকের জেল্লা ফিরিয়ে আনতে বাদামি রঙের ক্লে মাস্কের তুলনা হয় না।
  • কালো: যাঁদের নাকে বা মুখের ত্বকে ব্ল্যাকহেডস রয়েছে, তাঁরা ব্যবহার করতে পারেন কালো রঙের ক্লে মাস্ক। এগুলো সাধারণত চারকোল দিয়ে তৈরি হয়।
  • সাদা: আমাদের শরীরের মতো কিন্তু আমাদের ত্বকেরও ডিটক্স ট্রিটমেন্ট প্রয়োজন। ত্বক ডিটক্স করতে এবং গভীর থেকে পরিষ্কার করার জন্য সাদা রঙের ক্লে মাস্ক উপযুক্ত।
  • সবুজ: তৈলাক্ত ত্বকের পক্ষে খুবই উপযোগী। এছাড়াও সবুজ ক্লে মাস্কটি যদি পিপারমিন্টযুক্ত হয়, তা হলে তা সংবেদনশীল ত্বকেও ব্যবহার করা যায়, এটি ত্বকের প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে।

ছবি সৌজন্য: শাটারস্টক

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!