অক্ষয় তৃতীয়ায় পাঠানোর মতো সেরার সেরা শুভেচ্ছা বার্তার সঙ্কলন (Subho Akshaya Tritiya)

অক্ষয় তৃতীয়ায় পাঠানোর মতো সেরার সেরা শুভেচ্ছা বার্তার সঙ্কলন (Subho Akshaya Tritiya)

বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ। কথাটা যে কতখানি সত্যি, তা তো আমরা সবাইই জানি। আমরা যে শুধুমাত্র নিজেদের সংস্কৃতির পুজো-পার্বণে মেতে রয়েছি তা তো নয়, অন্যান্য প্রদেশের সংস্কৃতি এবং উৎসবকেও আপন করে নিয়েছি। আর বঙ্গসন্তান পুজো করবে না তা কী করে হয়! এককালে বাঙালিদের মধ্যেও বড় বড় ব্যবসায়ী ছিলেন। শোনা যায়, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের পারিবারিক ব্যবসা ছিল নুনের, আবার অন্যদিকে রানী রাসমনির পারিবারিক পেশা শুধুমাত্র জমিদারি নয়, ছিল নানা ব্যবসা। ভাবছেন এত কথা কেন বলছি। আসলে একটা কথা আছে না, ‘বাণিজ্যে বসতে লক্ষ্মী’, অর্থাৎ ব্যবসা-বাণিজ্য যেখানে, মা লক্ষ্মীর বাসও সেখানেই। শুধুমাত্র মা লক্ষ্মী নয়, সিদ্ধিদাতা গনেশের আশীর্বাদ সঙ্গে না থাকলেও নাকি ব্যবসায় উন্নতি হয় না।

Table of Contents

    এত কথা একটাই কারণে বলা, সামনেই অক্ষয় তৃতীয়া! পৌরাণিক তথ্য অনুসারে আজই নাকি বিষ্ণুর ষষ্ঠ অবতার অর্থাৎ পরশুরামের জন্ম হয়েছিল। অনেক জায়গায় পরশুরামের পুজো হয় সেজন্য অক্ষয় তৃতীয়াতে। আবার অনেকের মতে অক্ষয় তৃতীয়ার (Subho Akshaya Tritiya) দিন লক্ষ্মী-গনেশের পুজো করা উচিত যাতে সারা বছর ব্যবসা-বাণিজ্য ভাল হয়, ঘরে সুখসমৃদ্ধি এবং অর্থের আমদানি হয়। আবার শাস্ত্র মতে একসঙ্গে মা লক্ষ্মী, সিদ্ধিদাতা গণেশ এবং সৃষ্টিকর্তা বিষ্ণুর পুজো করলে নাকি জীবনের সব বাধা-বিপত্তি কেটে গিয়ে সাফল্য আসে। এবছর অক্ষয় তৃতীয়া এপ্রিলের ২৬ তারিখে। আপনি পুজো করুন বা না করুন, হালখাতা করতে কিন্তু দোকানে অবশ্যই যাবেন; আর কাছের মানুষকে পাঠানোর জন্য রইল অক্ষয় তৃতীয়ার সেরার সেরা শুভেচ্ছা বার্তা (Akshaya Tritiya Wishes In Bengali)।  

    সেরা ১০টি অক্ষয় তৃতীয়ার শুভেচ্ছা বার্তা (Top 10 Akshaya Tritiya Wishes In Bengali)

    ১। দিনদিন  যেন আপনার ব্যাবসায় উন্নতি হয়, পরিবারে যেন সুখ-সমৃদ্ধির অভাব না হয়, সর্বদা যেন আপনার উপরে অর্থের বর্ষা হয়, অক্ষয় তৃতীয়ার পুণ্য লগ্নে এই কামনাই করি। শুভ অক্ষয় তৃতীয়া।

    ২। মা লক্ষ্মী স্বয়ং সোনার রথ এবং রূপোর পালকিতে চেপে আপনাকে ও আপনার পরিবারের সকলকে অক্ষয় তৃতীয়ার আশীর্বাদ দিতে এলেন।

    ৩। আপনার বাড়িতে যেন কোনওদিন অর্থাভাব না হয়, মা লক্ষ্মীর বাস থাকে, সমস্ত বিঘ্ন যেন বিঘ্নহর্তা গণেশ দূর করেন, পরিবারে যেন শান্তি থাকে। এই কামনাই করি। শুভ অক্ষয় তৃতীয়া (Subho Akshaya Tritiya)।

    ৪। মা লক্ষ্মী সদাই আপনার সহায় থাকুন। ভগবান আপনাকে এত অর্থ দিন যেন আপনি সবাইকে তাঁদের প্রয়োজনে ঋণ দিতে পারেন। শুভ অক্ষয় তৃতীয়া (Akshaya Tritiya Wishes In Bengali)।

    ৫। যেভাবে মুশল ধারায় বৃষ্টি হলে জল থই থই করে, আপনার সিন্দুকেও যেন সেভাবেই টাকাপয়সা থই থই করে। অক্ষয় তৃতীয়ার পুণ্য লগ্নে আপনার বাড়ির উৎসব হয়ে উঠুক মনোরম। আপনি যেন সবাইকে দারুণ উপহার দিতে পারেন।

    ৬। এবারের অক্ষয় তৃতীয়ায় আপনি যা যা চেয়েছেন, আপনার মনের সমস্ত আশা পূর্ণ হোক। আপনার পরিবার মায়ার বাঁধনে জড়িয়ে থাকুক। মা লক্ষ্মীর কৃপাদৃষ্টি সর্বদা আপনাদের উপরে থাকুক।

    ৭। সাফল্য আপনার পায়ে এসে পড়ুক, আনন্দে আপনি মেতে থাকুন, অর্থ উপচে পড়ুক, আপনজনের ভালবাসা আপনি পান – এমন সুন্দর করেই যেন আপনার এবারের অক্ষয় তৃতীয়া কাটে (Akshaya Tritiya Wishes In Bengali)। অক্ষয় তৃতীয়ার শুভেচ্ছা।

    ৮। অন্তরের দরজা খুলে ফেলুন। যা মনে আছে বলে ফেলুন। আজ অক্ষয় তৃতীয়া, এই আনন্দে প্রেম সাগরে ডুব দিন।

    ৯। মা লক্ষ্মীর কৃপা আপনার ও আপনার পরিবারের প্রতি সর্বদা থাকুক, এই কামনাই করি। শুভ অক্ষয় তৃতীয়া।

    ১০। আজ যে কাজই শুরু করবেন তাতেই যেন সাফল্য পান, সব স্বপ্ন যেন পূর্ণ হয় আজ। অক্ষয় তৃতীয়ার শুভেচ্ছা। 

    সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড করার ১০টি অক্ষয় তৃতীয়ার মেসেজ (Top 10 Akshaya Tritiya Quotes In Bengali)

    ১। অক্ষয় তৃতীয়ার পুণ্য লগ্নে (Subho Akshaya Tritiya) আপনার জীবন আলোকোজ্জ্বল হয়ে উঠুক। মনের সব অন্ধকার দূর করে আলোয় স্নান করুন। শুভ অক্ষয় তৃতীয়া

    ২। অক্ষয় তৃতীয়া এলো আজ, মন আপনার করল সাজ। মা লক্ষ্মী, সিদ্ধিদাতা গণেশ, সৃষ্টিকরতা বিষ্ণু এবং ধনকুবের আপনার প্রতি সদত হোন – এই প্রার্থনাই করি।

    ৩। সংস্কৃত শব্দ ‘অক্ষয়’-এর অর্থ হল যার কোনও বিনাশ নেই, যা একইরকম থাকে। আজ অক্ষয় তৃতীয়ার পুণ্য লগ্নে কামনা করি আপনার জীবনেও সুখ-সমৃদ্ধি, অর্থ, সুখ-শান্তি সব কিছুই অক্ষয় হোক (Akshaya Tritiya Quotes In Bengali)।

    ৪। আমার তরফ থেকে আমার সকল বন্ধুবান্ধব ও তাঁদের পরিবারের সকলকে অক্ষয় তৃতীয়ার শুভেচ্ছা।

    ৫। অক্ষয় তৃতীয়ার শুভেচ্ছা গ্রুন করবেন। আজ যে কাজেই হাত দেবেন তাতেই যেন সাফল্য পান এই কামনাই করি।

    ৬। আপনার মনের সকল আশা পূর্ণ হোক। আপনার ঘরে লক্ষ্মীদেবীর বাস স্থায়ী হোক। শান্তি ও শুখ অক্ষয় হোক (Subho Akshaya Tritiya)।

    ৭। এবছর অক্ষয় তৃতীয়ায় আপনার জীবনে যেন সৌভাগ্যের জোয়ার বয়ে যায়। আপনার জীবনে বৈভব, প্রাচুর্য এবং গরিমা স্থায়ী হোক। শুভ অক্ষয় তৃতীয়া।

    ৮। আজ অক্ষয় তৃতীয়ার পুণ্য লগ্নে (Subho Akshaya Tritiya) সোনা পরা এবং কেনা সৌভাগ্য ডেকে আনে। জীবনে আপনি অনেক এগিয়ে যান। সোনায় মোড়া জীবন হোক আপনার। অক্ষয় তৃতীয়ার শুভেচ্ছা গ্রহন করবেন।

    ৯। সারা জীবনের সুখ, সমৃদ্ধি ও সৌভাগ্যের অধিকারী হন, আপনি ও আপনার পরিবারের সবাই ভাল থাকুন। অক্ষয় তৃতীয়ায় এই শুভেচ্ছা বার্তাই রইল। 

    ১০। আপনার ধন-সম্পদ, সুখ-শান্তি অক্ষয় হোক এই অক্ষয় তৃতীয়ায় (Akshaya Tritiya Quotes In Bengali)। 

    অক্ষয় তৃতীয়ার মাহাত্ম (Importance Of Akshaya Tritiya)

    বাংলা নতুন বছর শুরু হওয়ার দিন টিকে যেমন সবাই খুব গুরুত্ব দেন, ঠিক তেমনই অক্ষয় তৃতীয়ার মাহাত্মও কিন্তু অসীম। বৈশাখ মাসের শুক্ল পক্ষের তৃতীয়া তিথি ‘অক্ষয় তৃতীয়া’ নামে পরিচিত। অক্ষয় শব্দটির অর্থ হল যার ক্ষয় নেই, অর্থাৎ যা কোনওদিন শেষ হয় না। আর আমরা সবাই আমাদের জীবনে অর্থ, সুখ, সমৃদ্ধি, সৌভাগ্য, ভালবাসা, শান্তি – ইত্যাদি প্রতিটি পজিটিভ জিনিসই চাই এবং সঙ্গে এও চাই যে এই অপার্থিব বস্তুগুলো যেন আমাদের জীবনে অক্ষয় হয়। কাজেই অনেকেই এই দিনটিতে হালখাতা করেন যাতে তাঁদের ব্যবসা-বাণিজ্য সারা বছর খুব ভাল হয়; আবার অনেকেই যেকোনোও নতুন কাজ এই বিশেষ দিনটিতেই শুরু করেন।

    কীভাবে অক্ষয় তৃতীয়ার পুজো করবেন (Akshaya Tritiya Puja Vidhi)

    অক্ষয় তৃতীয়ার দিন যদি পুজো করতে চান তাহলে সঠিক সময়ে পুজো (Akshaya Tritiya Puja) করলে ভাল ফল পাবেন। সাধারণত লক্ষ্মী-গণেশ, বিষ্ণু এবং কুবেরের পুজো করা হয় এই দিনে। একটি কাঠের জলচৌকিতে লাল বা হলুদ রঙের কাপড় পেতে নিন। এবারে এই আসনে লক্ষ্মী-গণেশ বা লক্ষি-কুবেরের মূর্তি বা ছবি রাখুন। যদি বিষ্ণুর মূর্তি বা চবি রাখেন তাহলে খেয়াল রাখবেন তিনি যেন মা লক্ষ্মীর ডানদিকে থাকেন। এবারে প্রদীপ জ্বালিয়ে কলা, পান, সুপারি, নারকেল, মিষ্টি এবং জল নিবেদন করুন। এরপর আবাহন করে প্রার্থনা করুন মা লক্ষ্মীর কৃপা যেন আপনার পরিবারের প্রতি সর্বদা স্থায়ী হয় (Subho Akshaya Tritiya)।

    যদি আপনি উপোষ করেন তাহলে আঁখের রস পান করে তবেই উপোষ ভাঙবেন। এছাড়াও নিরামিষ খিচুরিও প্রসাদ (Akshaya Tritiya Puja) হিসেবে দিতে পারেন। যদি কিছু দান-ধ্যান করতে চান তাহলে পোশাক, ফল, ভাত বা তেঁতুল দান করুন।

    POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

    ২০২০ শুরু করুন আমাদের দারুণ দারুণ প্ল্যানার আর স্টেটমেন্ট সোয়েটশার্ট দিয়ে। এগুলো সবকটাই আপনারই মতো একশ শতাংশ মজার এবং অসাধারণ! ওহ হ্যাঁ, শুধুমাত্র আপনার জন্য রয়েছে ২০ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থাও। দেরি কিসের আর, এখনই POPxo.com/shop থেকে কেনাকাটা সেরে ফেলুন আর নিজেকে আরেকটু পপ আপ করে ফেলুন!

    Image Source: Shutterstock, Canva 

    এগুলোও আপনি পড়তে পারেন

    শিবরাত্রি স্পেশাল দুটি পুষ্টিকর ও সহজ রেসিপি