সম্পর্কের বাঁধন শক্ত হবে নাকি আলগা, তা কি নির্ভর করে উপহারের উপর?

সম্পর্কের বাঁধন শক্ত হবে নাকি আলগা, তা কি নির্ভর করে উপহারের উপর?

উপহার (gifts) পেতে ভালবাসেন? এই প্রশ্নটা করলে বেশিরভাগ মানুষ একটাই উত্তর দেবেন, “হ্যাঁ”। আর ঠিকই তো, উপহার পেতে আমরা কে না ভালবাসি? কোনও বিশেষ অনুষ্ঠান হলে তো কথাই নেই, কোনও বিশেষ কারণ ছাড়াও উপহার পেতে বেশ ভালই লাগে। আর সেই উপহার যদি ভালবাসার মানুষটির কাছ থেকে পাওয়া যায়, তাহলে তো তার মূল্যই (importance) আলাদা। তবে এরকম কিছু মানুষও আছেন, যাদের কাছে কোনও সম্পর্কে থাকা মানেই ভালবাসার (relationships) মানুষটির কাছ থেকে দামি উপহার পাওয়া। মানে ব্যাপারটা অনেকটা এরকম যে উপহারের সংখ্যা বা দাম যত বেশি, ভালবাসার পরিমাণও তত বেশি। যেন উপহারের উপরেই নির্ভর করছে যে সম্পর্ক কতটা মজবুত হবে। আমরা কয়েকজনকে জিজ্ঞেস করেছিলাম যে সম্পর্কের ভিত কি উপহারের উপরে নির্ভর করে, দেখে নিন তাঁরা কী উত্তর দিলেন।

প্রত্যেকটা উপহারে ভালবাসার ছোঁয়া থাকে

আমার কাছে উপহারের (gifts) মূল্য অনেকটাই। তা সে যেই দিক না কেন। অনেকেই হয়তো আছেন যারা উপহারের গায়ে লাগানো প্রাইস ট্যাগটি দেখে সম্পর্কের মান বিচার করেন, তবে আমার কাছে উপহারের মানে কিন্তু অন্য। আমার মনে হয়, যে আপনাকে উপহার দিচ্ছেন, তাতে আপনার প্রতি তাঁর ভালবাসার একটা ছোঁয়া লেগে থাকে। সে উপহার দামী হোক অথবা কমদামী, সেটা খুব একটা ম্যাটার করে না। আবার আমিও যখন কাউকে (relationships) উপহার (gifts) দিই, তাঁর পছন্দ অপছন্দের কথা মাথায় রেখে তবে কিনি।

নীহারিকা সেনগুপ্ত, মার্কেটিং এক্সেকিউটিভ, কলকাতা

আমি কোনও দিন উপহার চাইনি

আমি বিবাহিতা এবং ঘোরতর সংসারী। আজ থেকে যখন ২২ বছর আগে আমার বিয়ে হয়েছিল, তখন উপহার (gifts) পেয়েছিলাম অনেক। তারপর থেকে জন্মদিন হোক বা বিবাহবার্ষিকী, সেভাবে কখনও উপহার পাইনি। হ্যাঁ, পুজোর সময়ে শাড়ি উপহার পাই প্রতি বছর। তবে তা বলে আমার তরফ থেকে কোনওদিন কোনও সম্পর্কেই (relationships) মরচে ধরেনি। তা সে আমার বরের সঙ্গে আমার সম্পর্কেই হোক অথবা ছেলে-মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কেই হোক। আসলে প্রত্যেককে আমার সামর্থ্য অনুযায়ী উপহার (gifts) দিলেও, কোনওদিন কারও থেকে নিজের জন্য উপহার চাইতে পারিনি।

সুচরিতা বন্দ্যোপাধ্যায়, গৃহবধূ, কলকাতা

লং ডিসট্যান্স সম্পর্কে উপহার ছাড়া আর কীই বা থাকে?

আমি আর আমার প্রেমিক প্রায় চার বছর ধরে সম্পর্কে (relationships) রয়েছি। কিন্তু কাজের সূত্রে দু’জন দুটি আলাদা শহরে থাকি। আর আমি তো আমার বাড়ির লোকজনের থেকেও দূরে থাকি। যখন সবার সঙ্গে থাকতাম তখন উপহারের গুরুত্বটা অতটা বুঝতাম না। কিন্তু এখন যেহেতু কাউকেই প্রতিদিন কাছে পাই না, কাজেই আমার প্রেমিকের, মা-বাবার বা বন্ধুদের দেওয়া উপহারগুলোই (gifts) আমার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ (importance)। প্রতিটি উপহারেই ওঁদের ছোঁয়া পাই।

নিবেদিতা চৌধুরী, কেবিন ক্রু, নিউ দিল্লি

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

২০২০ শুরু করুন আমাদের দারুণ দারুণ প্ল্যানার আর স্টেটমেন্ট সোয়েটশার্ট দিয়ে। এগুলো সবকটাই আপনারই মতো একশ শতাংশ মজার এবং অসাধারণ! ওহ হ্যাঁ, শুধুমাত্র আপনার জন্য রয়েছে ২০ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থাও। দেরি কিসের আর, এখনই POPxo.com/shop থেকে কেনাকাটা সেরে ফেলুন আর নিজেকে আরেকটু পপ আপ করে ফেলুন!