কোয়ারেন্টাইনে সব কাজ নিজেকেই করতে হচ্ছে, জেনে নিন কীভাবে হাতের যত্ন নেবেন

কোয়ারেন্টাইনে সব কাজ নিজেকেই করতে হচ্ছে, জেনে নিন কীভাবে হাতের যত্ন নেবেন

সারা পৃথিবী যেন থমকে গেছে, সবাই বলতে গেলে গৃহবন্দি হয়ে পড়েছেন, সোশ্যাল মিডিয়া এবং খবরের চ্যানেল এখন উত্তাল হয়ে আছে করোনা ভাইরাসের (coronavirus) খবরে! তার উপরে সারা দেশ জুড়ে জারি করা হয়েছে লকডাউন (quarantine), আগামী মাসের ১৪ তারিখ পর্যন্ত। এই অবস্থায় বাইরে না বেরতে হলেও বাড়ির সব কাজি সবাইকে নিজের হাতে করতে হচ্ছে। ঘরবাড়ি পরিষ্কার করা থেকে শুরু করে, কাপড় কাচা, বাসন ধোওয়া এবং আরও অন্যান্য কাজ। আর এই প্রতিটি কাজের জন্যই কিন্তু জল (water) ব্যবহার করতেই হচ্ছে। তার উপরে করোনা ভাইরাস যাতে আপনার বা আপনার পরিবারে থাবা না বসাতে পারে, সেজন্য বার বার করে সাবান দিয়ে হাত (hand care) ধুয়ে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত জীবাণুমুক্তও করতে হচ্ছে। বিশ্বাস করুন, আপনার কাছে আর অন্য কোনও উপায় নেই। কিন্তু এই অবস্থায়, এত জল ঘেটে হাতের অবস্থা খুব খারাপ হয়ে যাচ্ছে আমাদের সকলেরই। কী করলে আবার হাত নরম হবে জেনে নিন।

কোয়ারেন্টাইনে কীভাবে হাতের যত্ন নেবেন

১। দেখুন, করোনা ভাইরাসের প্রকোপ এড়াতে বার বার করে সাবান দিয়ে হাত ধুতেও হবে, আবার হাতে স্যানিটাইজারও লাগাতে হবে যাতে হাত জীবাণুমুক্ত করা যায়। কিন্তু এতবার করে হাত ধোওয়ার ফলে অনেকেরই হাত খসখসে হয়ে যাচ্ছে। খসখসে হাত থেকে মুক্তি পেতে দিনে অন্তত দু’বার নিজের ত্বকের ধরন অনুযায়ী যে কোনও ময়শ্চারাইজার লাগান। স্নানের পরে একবার আর রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে একবার – এই দুবার হাতে ময়শ্চারাইজার লাগালে খসখসে হাতের সমস্যা থেকে অনেকটাই মুক্তি পাবেন।

২। অনেকেরই ত্বক শুষ্ক হয়, আর খুব স্বাভাবিকভাবেই তাঁদের হাত ও হাতের পাতাও খসখসে হয়। তার উপরে এখন সারাদিন ধরে জল দিয়ে কাজ করে হাতের অবস্থা আরও বেশি খারাপ হয়ে গিয়েছে। আমাদের সবার বাড়িতেই নারকেল তেল ও অ্যালোভেরা জেল থাকেই। এক চামচ নারকেল তেলের সঙ্গে আধ চামচ অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে সারা হাতে, বিশেষ করে হাতের পাতায় লাগিয়ে রেখে দিন। মিনিট পনেরো ভাল করে মাসাজ করুন। কিছুদিনের মধ্যেই দেখবেন হাতের খসখসে ভাব চলে গিয়ে হাত অনেকটাই নরম হয়ে গেছে।

৩। কোয়ারেন্টাইনে থাকাকালীন ঘরের সব কাজ নিজে হাতে করতে করতে বারবার করে হাত ধুতে ধুতে অনেকেরই নখের কোনায় কোনায় কালচেভাব দেখা দিতে পারে। সেক্ষেত্রে আপনার নেলপলিশের ভাণ্ডার থেকে যে কোনও একটা নেলপলিশ নিয়ে দু’কোট লাগিয়ে নিন নখে।

৪। আঙুলের ফাঁকে ফাঁকে যদি জল লেগে সাদা হয়ে যায় এবং চুলকোয়, সেক্ষেত্রে নিজের ত্বকের ধরন অনুযায়ী অইয়েন্টমেন্ট লাগিয়ে রাখতে পারেন।

৫। সম্ভব হলে কিচেন গ্লাভস পরে বাড়ির কাজ করুন, এতে হাতে সরাসরি জল লাগার আশঙ্কা অনেকটাই কমে এবং হাতে চুলকানি বা র‍্যাশ বেরোয় না। দ্বিতীয়ত, হাত খসখসে হওয়ায় আশঙ্কাও অনেকটা হ্রাস পায়।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

২০২০ শুরু করুন আমাদের দারুণ দারুণ প্ল্যানার আর স্টেটমেন্ট সোয়েটশার্ট দিয়ে। এগুলো সবকটাই আপনারই মতো একশ শতাংশ মজার এবং অসাধারণ! ওহ হ্যাঁ, শুধুমাত্র আপনার জন্য রয়েছে ২০ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থাও। দেরি কিসের আর, এখনই POPxo.com/shop থেকে কেনাকাটা সেরে ফেলুন আর নিজেকে আরেকটু পপ আপ করে ফেলুন!