করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে জিম বন্ধ, বাড়িতে কীভাবে করবেন শরীরচর্চা? in bengali | POPxo

করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে জিম বন্ধ, বাড়িতেই কীভাবে শরীরচর্চা করে ওজন কমাবেন?

করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে জিম বন্ধ, বাড়িতেই কীভাবে শরীরচর্চা করে ওজন কমাবেন?

করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। আগামী বেশ কয়েকটা দিন বাড়িতে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। জনবহুল এলাকা এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে স্কুল, কলেজ, সিনেমা হল, শপিং মলের মতো জায়গা। দেশে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতি চলছে। এই পরিস্থিতিতে সকলেই স্বাস্থ্য সচেতন হয়ে উঠেছেন। কিন্তু যাঁরা বছরভর স্বাস্থ্য সচেতন, অর্থাৎ জিমে গিয়ে শরীরচর্চায় (exercise) অভ্যস্ত, তাঁদের এই কয়েকটা দিন বাড়িতেই শরীরচর্চা করে নেওয়া ভাল। জিম এড়িয়ে চলুন। চিকিৎসক বলুন বা সেলেব সকলেই তেমন পরামর্শ দিচ্ছেন। এক্সসারসাইজ, মেডিটেশন করতে পারেন। এতে বাড়বে ইমিউনিটি। আর ইমিউনিটি বেশি থাকলে, কোনও রোগই সহজে কাছে ঘেঁষতে পারবে না। কিন্তু বাড়িতে (home) কীভাবে শরীরচর্চা করবেন? তারই কিছু পরামর্শ দেওয়ার চেষ্টা করলাম আমরা।  

১) দুই হাত কাঁধের দুই পাশে প্রসারিত করুন। আবার নিয়ে আসুন স্বাভাবিক অবস্থায়। এভাবে কিছু সময় ব্যায়ামটি করুন।

২) দুই হাত সম্পূর্ণভাবে উপরে ওঠান। আবার নিয়ে আসুন স্বাভাবিক অবস্থায়। 

৩) তলপেটের মেদ কমানোর জন্য সোজা হয়ে শুয়ে পা উঠিয়ে,নামিয়ে ব্যায়াম করতে পারেন। আবার শুয়ে সাইক্লিং করলেও পেটের মেদ কমবে।

৪) ব্যায়াম শুরু করার সময় পাঁচ মিনিট জগিং করে নিয়ে হালকা গতিতে ব্যায়াম শুরু করুন। গা গরমের পর্ব সেরে কিছুক্ষণ ফ্রি হ্যান্ড ব্যায়াম করুন, দাঁড়িয়ে স্ট্রেচিং করুন। স্ট্রেচিং করার মানেই হলো শরীরটাকে একটু টান টান করা।  

৫) বাড়িতে ট্রেডমিল থাকলে এরপর ট্রেডমিলে হাঁটা শুরু করুন। ট্রেডমিলে প্রথম পাঁচ থেকে আট মিনিট ধীরগতিতেই হাঁটুন। এরপর ধীরে ধীরে গতি বাড়ান। সর্বোচ্চ যে গতিতে আপনি চলছেন, সেই গতিটিকে ব্যায়ামের শেষ অংশে একটু একটু করে কমিয়ে এনে একেবারে শূন্যতে নামিয়ে আনতে হবে। অর্থাৎ শেষ দু-এক মিনিটে গতি কমিয়ে আনতে হবে অনেকটাই।

৬) সকালে উঠে প্রাণায়াম করতে পারেন। এতেও উপকার পাবেন।

৭) রান্নাবান্না কিংবা জামাকাপড় ইস্ত্রি করা, শুকোতে দেওয়া, ডাস্টিং করা, এগুলো আসলে খুবই ভাল স্ট্রেচিং এক্সারসাইজ। এগুলো নিয়মিত করলেই আর আলাদা করে স্ট্রেচিং করার দরকার পড়বে না।

৮) গান চালিয়ে ঘরে নাচতে পারেন। আলাদা করে স্টেপের কথা ভাবতে হবে না। এতেও ওজন কমবে। বাড়বে ইমিউনিটি।

৯) বাড়ি বা ফ্ল্যাটে যদি সিঁড়ি থাকে, কয়েকবার সিঁড়ি দিয়ে ওঠা নামা করুন। এর থেকে ভাল এক্সারসাইজ আর হয় না।

১০) ফিটনেস মানে কিন্তু শুধু ওজন কমানো নয়, শরীরকে তরতাজা রাখা। যোগার মাধ্যমেও সেই চাহিদা পূরণ হতে পারে।

সব মিলিয়ে সুস্থ থাকুন। সচেতন হোন। কোনও রকম ভাবে ভুল তথ্য ছড়াবেন না।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

২০২০ শুরু করুন আমাদের দারুণ দারুণ প্ল্যানার আর স্টেটমেন্ট সোয়েটশার্ট দিয়ে। এগুলো সবকটাই আপনারই মতো একশ শতাংশ মজার এবং অসাধারণ! ওহ হ্যাঁ, শুধুমাত্র আপনার জন্য রয়েছে ২০ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থাও। দেরি কিসের আর, এখনই POPxo.com/shop থেকে কেনাকাটা সেরে ফেলুন আর নিজেকে আরেকটু পপ আপ করে ফেলুন!