কোন উপায়ে স্তনের সৌন্দর্য ধরে রাখা সম্ভব?

কোন উপায়ে স্তনের সৌন্দর্য ধরে রাখা সম্ভব?

স্তন (breasts) নিয়ে অনেক মহিলাই খুব স্পর্শকাতর। কেউ বা আলাদা করে স্তনের গঠন নিয়ে ভাবেন না। কিন্তু চেহারার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ বক্ষযুগল। তার সৌন্দর্য ধরে রাখার দায়িত্বও তো আপনার। কীভাবে তা সম্ভব? বিভিন্ন রূপ বিশেষজ্ঞদের মতামতের উপর ভিত্তি করে এই প্রতিবেদনে একটা ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করলাম আমরা। হয়তো আপনার কাজে লাগবে। 

১) ধূমপান বন্ধ

ধূমপান শরীরে অক্সিজেন এবং রক্ত চলাচলের মাত্রা কমিয়ে দেয়। যা ত্বকে ভীষণ ভাবে প্রভাব ফেলে। এর ফলে অনেক কম বয়সেই ত্বকে বলিরেখা পড়ে যায়। বাদ পড়ে না স্তনও। ফলে বয়সের তুলনায় স্তন ঝুলে যাবে। ধূমপানের খারাপ প্রভাব শরীরের অন্যান্য অংশের মতো পড়বে স্তনেও। এই অভ্যেস থাকলে আজই বন্ধ করুন।

আরও পড়ুন, ভারী স্তন নিয়ে সমস্যায় ভুগছেন? জানুন, প্রাকৃতিক-কৃত্রিম নানা উপায়ে কীভাবে স্তন ছোট করবেন

২) নিজের ইচ্ছেমতো ডায়েট নয়

নিজের ইচ্ছে মতো ডায়েট করবেন না। আপনার শরীরের প্রয়োজন ও চাহিদা অনুযায়ী চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে ডায়েট করতে পারেন। অনেক বেশি ওজন অথবা দ্রুত ওজন অনেকটা কমে গেলে তার প্রভাব পড়বে দৈহিক সৌন্দর্যেও। ফলে ওজন কমাতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ ছাড়া ডায়েট করলে স্তনের সৌন্দর্য নষ্ট হবেই।

৩) সানস্ক্রিন মাস্ট

সূর্যের অতি বেগুণি রশ্মি ত্বকের ক্ষতি করে, এ তো আপনারা জানেন। আপনি যদি এমন পোশাক পরে বাইরে যান, যেখানে ক্লিভেজ উন্মুক্ত, সেক্ষেত্রে অবশ্যই সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। অথবা ঢাকা পোশাক ব্যবহার করুন। সানবাথ নিলেও কিন্তু ত্বকের অন্যান্য অংশের সঙ্গে স্তনের ক্ষতি হয়। তাই সেটাও এড়িয়ে চলাই ভাল।

৪) অ্যালকোহল কমাতে হবে

অ্যালকোহল ত্বক এবং চুলকে শুষ্ক করে তোলে। অ্যালকোহল নেওয়ার মাত্রা বেশি হলে স্তনও ভারী হয়ে যায় বলে মত দিয়েছেন গবেষকরা। ফলে স্তনের সৌন্দর্য ধরে রাখতে গেলে দৈনন্দিন রুটিনে অ্যালকোহলে মাত্রা কমাতে হবে।

৫) এক্সারসাইজ জরুরি

প্রতিদিন এক্সারসাইজ করা শরীরের পক্ষে ভাল। স্তনের সৌন্দর্য ধরে রাখতে গেলে হাত, কাঁধ, পিঠের ব্যায়াম করুন নিয়মিত। বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে। এতে স্তনের মাসল টাইট থাকবে। সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য আলাদা করে স্তনেরও মাসাজ করাতে পারেন 

৬) সঠিক অন্তর্বাস বেছে নিন

আপনার চেহারা অনুযায়ী কোন অন্তর্বাসটি উপযুক্ত সেটা বুঝতে হবে। স্তনের মাপ অনুযায়ী অন্তর্বাস বেছে নিন। খুব টাইট বা খুব আলগা অন্তর্বাস পড়বেন না। স্তনকে পুরোপুরি গার্ড করতে পারে এমন অন্তর্বাস সংগ্রহে রাখুন। অবশ্যই তা আপনার ক্ষেত্রে আরামদায়ক কিনা, সেটা দেখে নেবেন। অন্তর্বাসের ফ্যাব্রিক যাতে ত্বকে কোনও রকম সমস্যা তৈরি না করে, সেটা মাথায় রাখা জরুরি। কোন পোশাকের জন্য কোন অন্তর্বাস সেটাও বুঝে কিনুন। আপনি ব্লাউজের সঙ্গে যে অন্তর্বাস পড়বেন, তা কখনও গাউনের সঙ্গে পরতে পারবেন না। আবার টি-শার্টের উপযুক্ত যে অন্তর্বাস তা কামিজের সঙ্গে ফিট করবে না। বাড়িতেও অন্তর্বাস পড়ে থাকাটা জরুরি। সেখানেও কমর্ফটনেস কতটা সেটা দেখে নেবেন। 

৭) বর্তমানে বাঁচুন

আপনার স্তনের গঠন যেমন প্রাথমিক ভাবে সেটা নিয়ে খুশি থাকুন। সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য বেশ কিছু রুটিন ফলো করতে পারেন। কিন্তু যা বয়স সেই অনুযায়ী স্তনের গঠন ঠিক নয়। অথবা অন্য কারও মতো কেন আপনার স্তনও সুন্দর নয়, এই সব ভেবে মন খারাপ করবেন না। বর্তমানে বাঁচুন। সুস্থ থাকুন, খুশি থাকুন। তারও প্রভাব পড়বে আপনার চেহারায়।  

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

২০২০ শুরু করুন আমাদের দারুণ দারুণ প্ল্যানার আর স্টেটমেন্ট সোয়েটশার্ট দিয়ে। এগুলো সবকটাই আপনারই মতো একশ শতাংশ মজার এবং অসাধারণ! ওহ হ্যাঁ, শুধুমাত্র আপনার জন্য রয়েছে ২০ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থাও। দেরি কিসের আর, এখনই POPxo.com/shop থেকে কেনাকাটা সেরে ফেলুন আর নিজেকে আরেকটু পপ আপ করে ফেলুন!