রোগ প্রতিরোধ করতে ও সুস্থ থাকতে ফলের বীজ ফেলে না দিয়ে খেয়ে ফেলুন

রোগ প্রতিরোধ করতে ও সুস্থ থাকতে ফলের বীজ ফেলে না দিয়ে খেয়ে ফেলুন

আমাদের এই ব্যস্ত জীবনে দৌড়ঝাঁপ তো লেগেই আছে, আর দৌড়তে গেলে শরীর সুস্থ (health benefits) রাখাটা কিন্তু খুব জরুরি। আপনি সুস্থ থাকার জন্য যতই ব্যায়াম করুন না কেন, খাওয়াদাওয়া ঠিক করে করাটাও কিন্তু প্রয়োজন। ইদানিং হাতে যেহেতু সময় কম, তাই বেশিরভাগ সময়েই আমরা জাঙ্ক ফুড ও ফাস্ট ফুডের উপরে ভরসা করি। তাতে যে শরীরের বিশেষ উপকার হয় তা তো নয়, উল্টে চরম ক্ষতি হয়। আমাদের শরীরে নানা ভিটামিন এবং খনিজের প্রয়োজন কিন্তু জাঙ্ক ফুড থেকে পাওয়া যায় না। বরং এমন কিছু খাওয়া উচিত যাতে আমাদের শরীরে পুষ্টির ঘাটতি পূরণ হয় (health benefits)। তাড়াহুড়ো থাকলে আপনি কিন্তু নানা ‘সুপার সিড’ (super seeds) খেতে পারেন যা থেকে আপনি শরীরে পুষ্টি পাবেন এবং সুস্থ থাকতে পারবেন। কী কী এই সুপার সিড চলুন দেখে নেওয়া যাক

কুমড়োর বীজ

কুমড়োর বীজকে অনেকেই সুপার সিড (super seeds) বলেন। আসলে কুমড়োর বীজ আমাদের শরীরে নানা উপকারে (health benefits) লাগে। এই সুপার সিডে ফলিক অ্যাসিড রয়েছে এবং প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি রয়েছে। অনেকেই কুমড়োর বীজ রোস্ট করে খান। আপনি বাড়িতে রোস্ট না করলেও অনলাইনে কিনে খেতে পারেন এই সুপার সিড। ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে, ওজন কমাতে এবং মুড সুইং নিয়ন্ত্রণ করতে এই বীজটি খুবই ভাল কাজ দেয়।

কাঁঠালের বীজ

কাঁঠালের বীজ হজমশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে (ছবি - শাটারস্টকের সৌজন্যে)

বাঙালি বাড়িতে নানাভাবে কাঁঠালের বীজ খাওয়ার চল আছে। কেই সেদ্ধ করে খান, কেউ ডালে দিয়ে আবার অনেকে পাঁচ-মেশালি তরকারিতে কাঁঠালের বীজ দিয়ে খান। কাঁঠালের বীজ কিন্তু খেতেও দারুণ লাগে। তবে আপনি কি জানেন যে কাঁঠালের বীজ (super seeds) হজমশক্তি বাড়াতে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে খুব উপকারী (health benefits)?

আঙুরের বীজ

আঙুর তো আমরা সবাই-ই খাই, তবে আঙুরের বীজও যে আমাদের সুস্থ রাখতে কতখানি সাহায্য করে, এ বিষয়ে অনেকেই জানেন না। ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণ করা থেকে শুরু করে অনিদ্রারোগ দূর করা – নানা উপকার পাওয়া যায় এই সুপার সিডে।

তরমুজের বীজ

তরমুজের বীজে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। সকালে উঠে খালিপেটে যদি কয়েকটি রোস্ট করা তরমুজের বীজ খেতে পারেন তাহলে কিছুদিনের মধ্যেই দেখবেন মুখের সমস্ত বলিরেখা দূর হয়েছে।

বেদানার বীজ

বেদানার মতো এই ফলের বীজও কিন্তু স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী (ছবি - শাটারস্টকের সৌজন্যে)

এই ফলটির নাম বেদানা হলেও প্রচুর বীজ (super seeds) রয়েছে এর মধ্যে, আর সত্যি বলতে কী, বেদানার বীজকে সুপার সিড বলাই যায়। অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর এই বীজ শরীর সুস্থ রাখতে তো বটেই, ত্বক ও চুলের যত্নেও খুব কার্যকরী (health benefits)। বেদানার বীজ রোস্ট করে গুঁড়ো করে স্যালাডে ছড়িয়ে খেতে পারেন, আবার জলে গুলেও খেতে পারেন।

তেঁতুলের বীজ

যারা টক খেতে ভালবাসেন, তাঁরা অনেকেই তেঁতুল খুব পছন্দ করেন। তেঁতুল খেতে যেমন সুস্বাদু, তেঁতুলের বীজও কিন্তু খুব উপকারী। নানারকম আয়ুর্বেদিক ওষুধ তইরিতে তেঁতুলের বীজ ব্যবহার করা হয়। ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে, দাঁত মজবুত করতে, হজমশক্তি বাড়াতে, বাতের ব্যাথা নিরাময় করতে তেঁতুলের বীজ খুবই কার্যকরী।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!