বাঙালি কনের বিয়ের সাজে এই ট্র্যাডিশনাল গয়নাগুলো কি হারিয়ে গেল?

বাঙালি কনের বিয়ের সাজে এই ট্র্যাডিশনাল গয়নাগুলো কি হারিয়ে গেল?

বিয়ে (wedding) করছেন সামনেই? অথবা আপনার পরিচিত কারও বিয়ে বুঝি? অর্থাৎ জমাটি সাজের আয়োজন। বিয়েতে কনে কী গয়না পরবেন, তা নিয়ে আজও বাঙালি বাড়িতে মিটিং বসে। মা, ঠাকুমা, দিদিমার থেকে পাওয়া গয়নাতে (Jewellery) কোনও কনে সেজে ওঠেন। কেউ বা নিজের পছন্দে ট্রেন্ডি ডিজাইনার গয়না তৈরি করেন। আবার কেউ নতুন-পুরনোর মিশেলে বিয়ের লুক সেট করেন। বাঙালি বাড়িতে মেয়ের বিয়ে হোক বা ঘরে ছেলের বউ আসুক, গয়নার ইতিহাস সুপ্রাচীন। কোনও কোনও গয়না রয়েছে যা ট্র্যাডিশনাল। কিন্তু এখন আর কনেদের সেই গয়নার সাজে দেখা যায় না। কিছুটা বাজেটের কারণে। কারণ সোনার দাম যেভাবে বাড়ছে, তাতে হয়তো ইচ্ছে থাকলেও উপায় হয় না। কিছুটা আবার পছন্দের কারণও বটে। দেখে নেওয়া যাক, তেমন কিছু গয়নার সাজ। 

১) মুকুট

ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

বাঙালি কনের শোলার মুকুটের সাজ খুব চেনা। খোঁপা, ওড়না সঙ্গে শোলার মুকুট। তার সঙ্গে সোনার মুকুটও পরেন অনেকে। আগেকার দিনে কনের গয়নার মধ্যে অন্যতম ছিল মুকুট। এখন অনেকে বাজেটের কারণে সোনার তৈরি করতে পারেন না। সেক্ষেত্রে অন্য ধাতুর উপর সোনার জল করা মুকুট তৈরি করেন। কেউ বা শুধুই শোলার মুকুট পরেন। তবে ইদানীং ফের সোনার মুকুটের ফ্যাশন ফিরে আসছে।

২) খোঁপা

ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

এটিও ট্র্যাডিশনাল জুয়েলারি। খোঁপা বা বাগান নামে পরিচিত। খোঁপা জুড়ে থাকা এই গয়না পুরনো দিনের মেয়েদের ভারী পছন্দের ছিল। কখনও মিনেকারি, কখনও বা সূক্ষ্ম তারের কাজে তৈরি এই গয়না পরতেন বিয়ের কনেরা। এখন বাজেটের কারণেই এই ধরনের গয়না নতুন করে তৈরি করাতে পারেন না অনেকে। আবার বহু মেয়ে এ সব পেয়েছেন উত্তরাধিকার সূত্রে।

৩) হাতপদ্ম

ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

আংটি পরুন বা বালা, চূড়। আপনার হাতের পাতা কিন্তু ফাঁকাই থাকবে। আর এখানেই হাতপদ্মের জাদু। আংটি থেকে শুরু হয়ে একটি চেন হাতের পাতাকে কভার করে পৌঁছে যায় কবজিতে। সেখানে হাতের কোনও রিসলেট জাতীয় গয়নার সঙ্গে লাগানো থাকে সেই চেন। ফলে ভরাট লাগে হাত। এই গয়নাটিও ট্র্যাডিশনাল। ইচ্ছে হলে আপনিও বিয়েতে পরতে পারেন।

৪) কোমর বিছে

ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

পুরনো দিনের বিয়েতে কনের জমকালো সাজে অবশ্যই থাকত কোমর বিছে। শাড়ির উপর দিয়ে সোনার গয়নাটি ঘিরে থাকত কোমর। কখনও সরু চেন, কখনও বা ভারী কাজের এই গয়না এখন আর কনেরা তেমন পরেন না। অনেকেই মনে করেন, বিয়ের অনুষ্ঠান ছাড়া ভবিষ্যতে ওই ভারী গয়না পরার আর অনুষ্ঠান থাকবে না। সে কারণেই এই গয়নাতে বেশি ইনভেস্ট করতে চান না অনেকে।  

৫) নথ

ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

ট্র্যাডিশনাল এই গয়নাটি এখনও বাঙালি কনেদের কাছে সমান জনপ্রিয়। আগেকার দিনে শুধু বিয়ের দিন নয়, বাঙালি মেয়েরা বাড়িতেও নথ পরতেন। এখন অবশ্য সে অভ্যেস বেশিরভাগ মেয়েরই নেই। কিন্তু বিয়ের দিন ট্র্যাডিশনাল ভাবে সাজলে নথ পরতে এখনও ভালবাসেন বাঙালি কনেরা। 

মূল ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!