আন্ডার আর্মের কালচে ভাব দূর করতে এই ঘরোয়া টোটকাগুলোর কথা জানেন?

আন্ডার আর্মের কালচে ভাব দূর করতে এই ঘরোয়া টোটকাগুলোর কথা জানেন?

আপনার বিউটি সেন্স কেমন, তার অনেকটাই কিন্তু নির্ভর করে আপনি কতটা সচেতন তার উপর। অর্থাৎ দিনভর একগাদা প্রোডাক্ট ত্বক বা চুলে লাগিয়ে নিলেই কি বিউটি রুটিন কমপ্লিট? তা বোধহয় একেবারেই নয়। আপনার ত্বকের ঠিক কোন অংশের উজ্জ্বলতা হারিয়ে গিয়েছে, কোন অংশের আলাদা করে যত্নের প্রয়োজন, সে সম্পর্কে সচেতনতাটাই তো আসল। তবেই তো আপনি যত্ন নিতে পারবেন। 

যাঁরা নিজেকে নিয়ে সচেতন, তাঁরা জানেন, আন্ডার আর্মের (underarms) কালো হয়ে যাওয়ার সমস্যা। শরীরের এই অংশে কালচে ভাব থাকলে স্লিভলেস পোশাক পরতে সমস্যা হয়। হয়তো আপনি ওয়াক্স করান। কিন্তু আন্ডার আর্মের কালচে ((dark)) ভাব শুধু ওয়াক্স করালেই দূর হয়ে যায়, এমন নয়। এর জন্য আলাদা যত্নের প্রয়োজন। লকডাউনের কারণে যেহেতু পার্লারে গিয়ে প্রফেশনালের কাছে ক্নিন করানো সম্ভব হচ্ছে না, তাই ঘরোয়া পদ্ধতির উপরই ভরসা রাখতে হবে। সামান্য উপকরণের সাহায্যে বাড়িতে বসেই কীভাবে আন্ডার আর্মের কালচে ভাব দূর করবেন, তার হদিশ দেওয়ার চেষ্টা করলাম আমরা।

প্রতিদিন আন্ডারআর্মসের যত্ন প্রয়োজন। ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

১) আমাদের প্রত্যেকের বাড়িতেই আলু মজুত থাকে। শরীরের যে কোনও অংশের দাগ দূর করার ক্ষেত্রে আলুর রস খুবই কার্যকরী। আলু প্রাকৃতিক ব্লিচের কাজ করে। শুধু দাগ পরিষ্কারই নয়, দাগের সঙ্গে ত্বকের ওই অংশের চুলকানিও সরিয়ে তোলে আলুর রস।প্রথমে আলু ছোট টুকরো করে কেটে নিন। এরপর মিক্সিতে দিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। ওই পেস্টের সঙ্গে দুই চামচ ভিনিগার মিশিয়ে পেস্টটিকে সামান্য তরল করে নিন। এবার এই মিশ্রণ আন্ডারআর্মে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ওয়াক্সিংয়ের পর অবশ্যই এই পেস্ট লাগান। এ ছাড়া সপ্তাহে অন্তত তিন দিন ব্যবহার করলে দ্রুত মিলিয়ে যাবে আন্ডার আর্মের কালচে ভাব।

২) আলুর মতোই পাতিলেবুর রসও প্রাকৃতিক ব্লিচের কাজ করে। লেবুর অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট কালচে দাগ দূর করতে সাহায্য করে। শেভিংয়ের পর আন্ডার আর্মে লেবুর রস লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে সাধরণ জলে ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিন স্নানের সময়ও লেবু লাগাতে পারেন। অথবা লেবুর রসের সঙ্গে কয়েক জানা চিনি মিশিয়ে নিন। চিনি লেবুর রসে গলে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। ওই মিশ্রণও আন্ডার আর্মের কালচে ভাব দূর করে সহজে। সপ্তাহে অন্তত তিনদিন ব্যবহার করলে ভাল ফল পাবেন।

৩) অ্যাপেল সিডার ভিনিগারও এখন অনেকের বাড়িতেই মজুত থাকে। বিশেষত যাঁরা রূপচর্চা করেন নিয়মিত, তাঁরা এর কদর বোঝেন। আন্ডার আর্মে তুলোয় করে এই ভিনিগার লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নিন। যাঁদের আন্ডার আর্মের কালচে ভাব অনেক বেশি শেভিংয়ের পর তাঁদের এটা লাগাতেই হবে। এছাড়া সপ্তাহে তিন-চারদিন ব্যবহার করলেই ভাল ফল পাবেন। 

মূল ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!