অ্যাকনের সমস্যা দূর করুন গোলাপ জলের সাহায্যে

অ্যাকনের সমস্যা দূর করুন গোলাপ জলের সাহায্যে

রূপচর্চার ক্ষেত্রে আমরা অনেকেই ঘরয়া উপাদানের উপরে বেশ ভরসা করি। দুধের সর, মধু, বেসন, টকদই ইত্যাদি ব্যবভার করার চল বহুকাল ধরেই চলে আসছে। তবে আজ এগুলো নিয়ে না, কথা বলব এমন একটি উপাদান সম্পর্কে যা আমাদের সবার ফ্রিজেই থাকে, কিন্তু ব্যবহার খুব কম হয়। হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন। আমি গোলাপ জলের কথাই বলছি। আসুন জেনে নিই রূপচর্চায়, বিশেষ করে অ্যাকনে (acne) থাকলে তা দূর করতে কিভাবে গোলাপ জল (rose water) সাহায্য করে।

অ্যাকনের সমস্যা মোকাবিলায় গোলাপ জল কিভাবে সাহায্য করে

বাড়িতে তৈরি বিশুদ্ধ গোলাপ জল (ছবি - ইনস্টাগ্রাম)

গোলাপ জল ত্বকের পি এইচ ব্যালান্স সঠিক রাখতে সাহায্য করে। বিশুদ্ধ গোলাপ জলে যেহেতু কোনও রকম রাসায়নিক থাকে না, কাজেই তা ত্বকের দেখভালের পক্ষে খুবই ভাল। অ্যাকনে হওয়ার মূল কারন হল জীবানু। লোমকূপের মধ্য দিয়ে ত্বকের গভীরে ময়লা প্রবেশ করলে তা জমে জমে অ্যাকনের সমস্যা দেখা দেয়। কিন্তু গোলাপ জলে জীবাণুনাশক উপাদান রয়েছে এবং এটি অ্যান্টিসেপটিকও। ফলে অ্যাকনের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।

গোলাপ জলের সাহায্যে নিমেষে দূর করুন অ্যাকনে

১। গরমকালে আমরা অনেকেই ফেসিয়াল মিস্ট ব্যবহার করি। তবে বাজারচলতি ফেসিয়াল মিস্ট অনেক সময়ে ত্বকের সমস্যা আর গভীর করে তুলতে পারে। সেক্ষেত্রে শুদ্ধ গোলাপ জল ব্যবহার করতে পারেন ফেসিয়াল মিস্ট হিসেবে। খুব ভালভাবে মাইল্ড ক্লেনজার দিয়ে মুখ ধুয়ে পরিস্কার এবং নরম তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নিন। এরপরে ফ্রিজে রাখা ঠান্ডা গোলাপ জল সামান্য স্প্রে করে ১৫-২০ সেকেন্ড পর টিসু পেপার দিয়ে আলতো করে চেপে অতিরিক্ত জল মুছে নিন। দিনে তিন থেকে চার বার এই ফেসিয়াল মিস্ট ব্যবহার করতে পারেন। খুব তাড়াতাড়ি অ্যাকনের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে এই ঘরোয়া টোটকাটি কিন্তু দারুন কাজের।

২। গ্লিসারিন এবং গোলাপ জলের মিশ্রণও কিন্তু ঝটপট অ্যাকনের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। দেড় কাপ শুদ্ধ গোলাপ জলের সঙ্গে এক চতুর্থাংশ গ্লিসারিন মিশিয়ে পরিস্কার একটি কাচের জারে রেখে দিন। তুলোর সাহায্যে অ্যাকনের উপরে এই মিশ্রণ লাগিয়ে নিতে পারেন। এই মিশ্রণটি লাগানোর আগে কিন্তু ভাল করে মুখ পরিস্কার করে নেবেন। প্রতিদিন এই মিশ্রণটি ব্যবহার করলে নিজেই কিছুদিনের মধ্যে তফাৎটা বুঝতে পারবেন।

গোলাপ জল ও অন্যান্য উপাদানের ফেস প্যাক

৩। যাদের মাঝেমাঝেই অ্যাকনের সমস্যা দেখা দেয় তারা মুলতানি মাটির সঙ্গে গোলাপ জল মিশিয়ে ফেস প্যাক হিসেবে লাগাতে পারেন। সপ্তাহে দুই থেকে তিন বার এই ফেস প্যাক নিয়মিত লাগালে ত্বকও মসৃণ হবে আবার অ্যাকনেও থাকবে না।

৪। ঠিক একইরকমভাবে বেসন, টকদই ও গোলাপ জল মিশিয়ে স্মুদ একটি পেস্ট তৈরি করে নিন। এবারে পরিস্কার মুখে ফেস প্যাকটি লাগিয়ে নিন। বেসন ত্বকের গভীরে গিয়ে ময়লা টেনে বার করে, ফলে অ্যাকনের সমস্যা ফিরে ফিরে আসে না; আর অন্যদিকে গোলাপ জল ত্বক মসৃণ করে তোলে ও ত্বকের পি এইচ ব্যলান্স বজায় রাখে। খুব বেশি অ্যাকনের সমস্যা না থাকলে সপ্তাহে একবার এই ফেস প্যাক লাগাতে পারেন; আর যদি অ্যাকনে বেশি থাকে সেক্ষেত্রে দুই-তিন দিন লাগান।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!