ত্বকের বয়স কমান এই আয়ুর্বেদিক ভেষজগুলির সাহায্যে

ত্বকের বয়স কমান এই আয়ুর্বেদিক ভেষজগুলির সাহায্যে

আচ্ছা, যদি স্কিন ক্লক ঘুরিয়ে ফেলতে পারতেন তাহলে কেমন হত? মানে ধরুন  শৈশবে বা কৈশোরে আপনার ত্বক যেমন পেলব ও মসৃণ ছিল তেমনই যদি আবার ফিরে পেতেন, বেশ ভাল হত তাই না! আসলে আমাদের ত্বক একবার বুড়িয়ে যেতে শুরু করলে তা ক্রমশ খারাপের দিকেই যায়। ফলে আমরা নানা এক্সপেরিমেন্ট করি ত্বকের তারুণ্য  (anti ageing) ধরে রাখতে। কিন্তু বেশিরভাগ সময়েই আমরা কোনও বিশেষজ্ঞের পরামর্শ না নিয়ে নিজেরাই পাকামি করে ফেলি, এবং ফলস্বরূপ আমাদের ত্বকের আরও বেশি ক্ষতি হয়।

তবে আজ এমন কয়েকটি আয়ুর্বেদিক ভেষজের (ayurvedic herbs) সম্পর্কে কথা বলব যেগুলি আপনার ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখবে এবং তাও কোনওরকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই!  

১। আদা

ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে আদা খুব উপকারী

আদা যে কেবল রান্নায় ব্যবহার করা হয় তা না, রূপচর্চায়ও আদার ব্যবহার হয়ে আসছে বহুকাল ধরে। এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েলের সঙ্গে দুই টেবিল চামচ চিনি ও এক চা চামচ আদা বাটা মিশিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে নিন। মুখ পরিস্কার করে এই মিশ্রণটি দিয়ে মিনিট পাচেক স্ক্রাব করে ১৫ মিনিট রেখে দিন। উষ্ণ জলে মুখ ধুয়ে নিন।

২। দারচিনি

দারচিনি হল এমন একটি আয়ুর্বেদিক ভেষজ যা রান্নায় তো ব্যবহার করা হয়ই, আবার রোগ বালাই সারাতেও দারুন কাজে দেয়। তবে দারচিনি কিন্তু ত্বকের বয়স কমাতেও সাহায্য করে। আসলে দারচিনির মধ্যে কোলাজেন প্রতিরোধকারী নানা উপাদান রয়েছে, ফলে ত্বকের তারুণ্য বজায় থাকে।

৩। অশ্বগন্ধা

সম পরিমানে অশ্বগন্ধা গুঁড়ো, আদা গুঁড়ো এবং লেবুর রস মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করে নিন। যদি খুব ঘন হয়ে যায় সেক্ষেত্রে সামান্য জল মেশাতে পারেন। এবারে এই পেস্ট মুখে, গলায় ও ঘাড়ে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জলে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে একবার করে এই প্যাক লাগাতে পারেন।

৪। লবঙ্গ

ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে লবঙ্গ ও লবঙ্গতেল খুব উপকারী

লবঙ্গ এমন একটি আয়ুর্বেদিক ভেষজ যা নানা কাজে লাগে। দাঁতের ব্যথা কমাতে, গলা পরিস্কার রাখতে, রান্নায় সুগন্ধ বাড়িয়ে তুলতে আবার চন্দন পরাতেও লবঙ্গ ব্যবহার করা হয়। তবে লবঙ্গের মধ্যে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ফ্রি র‍্যাডিক্যাল স্ক্যাভেঙ্গিং রয়েছে যা আমাদের ত্বকের বয়স বাড়তে দেয় না। এক টেবিল চামচ নারকেল তেলের সঙ্গে দু-ফোঁটা লবঙ্গ তেল মিশিয়ে সপ্তাহে একবার করে মুখে মাসাজ করুন। কিছুদিনের মধ্যেই তফাৎটা চোখে পড়বে।

৫। তুলসি

আমাদের ত্বকের গভীরে কোলাজেন নামক একটি বস্তু রয়েছে যা আমাদের ত্বকের ইলাস্টিসিটি নষ্ট করে দেয়; ফলে আমাদের ত্বক ঝুলে যায় বা চামড়া কুঁচকে বলিরেখা দেখা দেয়। তবে তুলসি পাতা কিন্তু আপনার এই সমস্যা সমাধান করতে পারে। উষ্ণ জলে কিছুক্ষন কয়েকটি কচি তুলসি পাতা ভিজিয়ে রেখে দিন। এবারে সামান্য মধুর সঙ্গে পই পাতাগুলি বেটে নিয়ে পেস্ট তৈরি করে মুখে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ভেজা তোয়ালে দিয়ে পরিস্কার করে নিন।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!