খুশকি দূর করা হোক বা চুলের জেল্লা ফেরানো - টক দইয়ের ভুমিকা অনেক!

খুশকি দূর করা হোক বা চুলের জেল্লা ফেরানো - টক দইয়ের ভুমিকা অনেক!

এখন প্রায় প্রতিদিনই বৃষ্টি হচ্ছে। যদিও বর্ষাকাল অনেকেই খুব পছন্দ করেন, কিন্তু এই সময়ে খুব চুলও ওঠে। সারাক্ষন স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়ার জন্য চুলের (hair) আরও নানা সমস্যাও (problems) দেখা যায়।  যতই আপনি বাজারচলতি প্রোডাক্ট লাগান না কেন, চুলের সমস্যা খুব সহজে দূর হয় না। এক কাজ করতে পারেন, নানা রকমের চুলের সমস্যা দূর করতে, টক দই (curd) ব্যবহার করতে পারেন। অনেকেই মুখে টক দই লাগান, কিন্তু টক দই চুলের স্বাস্থ্য ফেরাতে এবং তা সুন্দর করে তুলতেও দারুণ কাজ দেয়!

চুলের যত্নে টক দইয়ের ভুমিকা

১। খুসকি দূর করতে টক দই

খুসকির সমস্যা দূর করতে টক দই দারুণ কাজ দেয় (ছবি - শাটারস্টক)

বর্ষাকালে স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়ার জন্য অনেকেরই মাথার তালুতে ফাঙ্গাল ইনফেকশন হয়। আর তা থেকে সৃষ্টি হয় খুশকি। খুশকি একবার হলে সহজে যেতে চায় না। তিন টেবিল চামচ টক দই ও অর্ধেক পাতিলেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে হেয়ার মাস্ক তৈরি করে লাগান। সপ্তাহে দু’বার করে লাগাতে পারেন। আপনার চুলে যে কখনও খুশকি ছিল, বোঝাই যাবে না।

২। চুল পড়া রোধ করতে টক দই

চুলে খুশকি বা অন্যান্য ফাঙ্গাল ইনফেকশনের ফলে চুলের গোড়া আলগা হয়ে যায় এবং চুল দুর্বল ও ভঙ্গুর হয়ে পড়ে। দুর্বল ও ভঙ্গুর চুল সহজেই ঝরে যায় এবং আমাদের মাথা ফাঁকা হতে শুরু করে। মাথার তালু খুব ভাল করে পরিষ্কার না করলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া প্রায় অসম্ভব। টক দইয়ে রয়েছে ল্যাকটিক অ্যাসিড যা খুব ভাল ক্লেনজার হিসেবেও পরিচিত। দুই-তিন টেবিল চামচ টক দই ফেটিয়ে মাথার তালুতে ভাল করে মাসাজ করুন। এতে অকালে চুল পড়বেও না আবার নতুন চুল গজাবেও।

৩। চুলের হারানো জেল্লা ফেরাতে টক দই

চুলের হারানো জেল্লা ফেরান টক দইয়ের সাহায্যে (ছবি -শাটারস্টক)

নানা রকমভাবে স্টাইলিং করে এবং অনেক রাসায়নিক ব্যবহার করে আমাদের চুল কিছুদিন পরেই নিষ্প্রাণ হয়ে যায় এবং দেখতে খুব খারাপ লাগে।  চুলের হারানো জেল্লাও ফিরিয়ে আনা সম্ভব টক দইয়ের সাহায্যে। দুই টেবিল চামচ টক দইয়ের সঙ্গে দুই টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল, একটি মাঝারি পাকা কলা এবং এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এবারে এই হেয়ার মাস্কটি মাথার তালু এবং চুলের গোড়া থেকে শুরু করে ডগা পর্যন্ত লাগিয়ে নিন। ৪৫ মিনিট বা এক ঘন্টা রেখে মাইল্ড কোনও শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। সপ্তাহে একবার করে এই হেয়ার মাস্ক লাগান আর দেখুন কিছুদিনের মধ্যেই চুলের সেই হারিয়ে যাওয়া জেল্লা ফিরে এসেছে!

৪। টক দই প্রাকৃতিক কন্ডিশনারের কাজ করে

শ্যাম্পু করার পর অনেকেরই চুল রুক্ষ হয়ে যায়। এর কারণ হল চুলে সঠিকভাবে কন্ডিশন করা হয়নি ফলে চুল তার স্বাভাবিক আর্দ্রতা হারিয়ে ফেলে এবং রুক্ষ ও ফ্রিজি হয়ে যায়। দুই টেবিল চামচ অলিভ অয়েল, এক টেবিল চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার এবং পাঁচ থেকে ছয় টেবিল চামচ জল ঝরানো টক দই মিশিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন হেয়ার মাস্কটি যেন খুব পাতলা না হয় এবং সব উপকরণ ভালভাবে মিশিয়ে যায়। শ্যাম্পু করার পর চুলে এই হেয়ার মাস্কটি লাগিয়ে নিন। চুলের গোড়ায় কিন্তু লাগাবেন না। আধ ঘন্টা পর উষ্ণ জলে চুল ধুয়ে নিন। দেখবেন চুল কী সুন্দর মোলায়েম ও জেল্লাদার হয়ে উঠবে।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!