ওবেসিটি থাকলে দ্রুত ওজন কমাবেন কীভাবে?

ওবেসিটি থাকলে দ্রুত ওজন কমাবেন কীভাবে?

যদি আপনি সুস্থ থাকেন, তাহলে মোটা অর্থাৎ চেহারা ভারী হলেও চিন্তা নেই। কিন্তু মোটা হলে ওবেসিটির ধাত থাকলে, সুস্থ থাকাটাই বড় চ্যালেঞ্জের হয়ে যায়। কী করে রোগা হব, বা কী করে ভুঁড়ি কমাব, এই প্রশ্ন অনেকেই করেন। কিন্তু আপনি ভিতর থেকে কীভাবে সুস্থ থাকবেন, সে দিকেই নজর দেওয়া উচিত।

ওবেসিটি (obesity) থাকলেই হার্টের সমস্যা এবং ডায়াবেটিস যেত হাত ধরাধরি করে আসে। যে কোনও বয়সেই এটা হতে পারে। তাই সময় থাকতে থাকতে নিজেদের সাবধান হতে হবে। কী করলে আর মোটা হবেন না, সে বিষয়ে অনেক কিছু জানেন হয়তো। কিন্তু যাঁদের ওবিসিটি রয়েছে, তাঁরা কীভাবে ওজন কমাবেন, সেটা নিয়েই আজ আলোচনার চেষ্টা করব আমরা। 

প্রোটিন কন্ট্রোল- ওজন (weight) কমাতে গেলে শরীরে প্রোটিনের ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে। দিনে নির্দিষ্ট পরিমাণে ক্যালোরি খাবেন। প্রয়োজন হলে আপনার পেশা, বয়স, উচ্চতা অনুযায়ী দিনে কতটা ক্যালোরি প্রয়োজন, তা চিকিৎসকের কাছ থেকে জেনে নিন। আপনার যদি ওবেসিটি থাকে, সেক্ষেত্রে এক্সট্রা ক্যালোরি বডি ফ্যাট হিসেবে শরীরে জমা হয়। যা খাচ্ছেন, তা ভাল করে চিবিয়ে খান। সময় নিয়ে খান। তাড়াহুড়ো করে খাবার গিলে ফেলবেন না।

 

সুস্থ থাকার সহজ উপায়। ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্য়ে।

প্রসেসড ফুড বাদ- প্রসেসড ফুড ডায়েট চার্ট থেকে বাদ দিতে হবে। যদি সম্ভব হয় নুন খাওয়া বন্ধ করে দিন। রিফাইন্ড অয়েল, হোয়াইট সুগার একেবারেই খাওয়া চলবে না। অলিভ অয়েলে রান্না করুন। চিনির বদলে মধু বা গুড় খেতে পারেন। ময়দার বডদলে আটার রুটি খান।

ভিটামিন এবং মিনারেল- ডায়েটে প্রোটিন কন্ট্রোল হয়তো অনেকেই করে ফেলেন। কিন্তু মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট খাবার নজর এড়িয়ে যায়। অর্থাৎ পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন এবং মিনারেল। এই দুটি উপাদান শরীরে ফ্যাট বার্ন করার ক্ষমতাকে বাড়িয়ে দেয়। এছাড়াও ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ডি এবং ভিটামিন বি১২ সমৃদ্ধ খাবারও খেতে হবে প্রচুর। 

ক্যাফিনের পরিমাণ কমাতে হবে- আপনি কি কফি খেতে ভালবাসেন, আবার ওজনও কমাতে চান? দুটো ইচ্ছে একসঙ্গে পূরণ করা প্রায় অসম্ভব। দিনে বড়জোর দুই কাপ কফি খেতে পারেন। তার থেকে বেশি খেলে ডিহাইড্রেট হয়ে যাবে শরীর। এর থেকে অ্যাসিডিটি বা মাইগ্রেনের সমস্যা হওয়াও বিচিত্র নয়। দেখুন, শরীর যদি ভিতর থেকে মজবুত না হয়, তাহলে কোনও ভাবেই ওজন কমানো সম্ভব নয়।  

বডি মুভমেন্ট- প্রতিদিন শরীরচর্চা করতেই হবে। হাঁটা, যোগাসন, সাঁতার, ফ্রি-হ্যান্ড এক্সসারসাইজ- যেটা সম্ভব। যদি কোনওভাবেই এগুলোর কোনওটা সম্ভব না হয়, সেক্ষেত্রে কাজের ফাঁকে আধঘণ্টা অন্ত্র হালকা পায়ে পায়চারি করে নিতে হবে। আপনি যতই প্রোটিন কন্ট্রোল করুন বা ভিটামিন খান, বডি মুভমেন্ট না থাকলে কোনও ভাবেই ওজন কমানো সম্ভব নয়। 

মূল ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!