পারফেক্ট পাউট করতে চান? এই টিপসগুলো মেনে চলুন তাহলে

পারফেক্ট পাউট করতে চান? এই টিপসগুলো মেনে চলুন তাহলে

এখন তো সেলফির যুগ। আর সেলফি মানেই পাউট করে ছবি তোলা। আসলে সিনেমার নায়িকাদের দেখাদেখি আমরাও পাউট করতে শিখে গিয়েছি। আপনিও হয়ত সুন্দর একটা লিপস্টিক লাগিয়ে পাউট করে ছবি তুলতে গেলেন, কিন্তু দেখলেন ঠোঁট (lips) ফেটে চৌচির! কী বিশ্রী ব্যাপার হবে বলুন তো! আবার অনেকে আছেন, যাঁদের কিছুতেই ‘পারফেক্ট পাউট’ (perfect pout) হয় না। ঠিক কী কী টিপস মেনে চললে আপনিও দারুণভাবে পাউট করতে পারবেন, সে কথাই বলব।

পারফেক্ট পাউটের জন্য চাই সুন্দর ঠোঁট

অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কইফ ও বোন ইসাবেলা পাউট করছেন (ছবি - ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে)

সাধারনত ভরাট ঠোঁটে (lips) পাউট (perfect pout) দেখতে খুব ভাল লাগে। তবে অনেকের ঠোঁটই পাতলা হয়, তা বলে কি তাঁরা পাউট করবেন না! ঠোঁট সুন্দর করে তোলার জন্য বিশেষ কিছু যত্নের প্রয়োজন –

ক) ঠোঁট নিয়মিত এক্সফোলিয়েট করতে হবে। অর্থাৎ ঠোঁটের উপরে যে মরা চামড়া থাকে তা দূর করতে হবে। আপনি চাইলে চিনি ও কফি দিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে সপ্তাহে দু’বার করে ঠোঁট এযফোলিয়েট করতে পারেন।

খ) আমাদের শরীরের অন্যান্য অংশের তুলনায় ঠোঁট অনেক বেশি নরম হয়। ফলে ঠোঁটে আর্দ্রতা ধরে রাখার জন্য নিয়মিত তাকে ময়শ্চারাইজ করুন। বার বার লিপ বাম লাগান। এতে ঠোঁট আর্দ্র থাকবে এবং মরা চামড়াও থাকবে না।

গ) পারফেক্ট পাউট একদিনে হবে না। এর জন্য আপনাকে নিয়মিত প্র্যাকটিস করে যেতে হবে। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে পাউট করুন।

ঘ) যদি আপনার ঠোঁট পাতলা হয় তাহলে পাউট (perfect pout) করার আগে লিপ প্লাম্পার লাগাতে পারেন। এতে ঠোঁট বেশ ফোলা দেখায়। বাজারচলতি কোনও প্রোডাক্ট ব্যবহার করতে না চাইলে ঘরোয়া লিপ স্ক্রাবারের সঙ্গে সামান্য দারচিনি গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এতে ঠোঁটে একটা ফোলা ভাব আসে।

মেকআপ করবেন কিভাবে

আপনি কেমন লিপস্টিক লাগাচ্ছেন তার উপরেও নির্ভর করে আপনার পাউট (ছবি - ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে)

আমাদের ঠোঁটের (lips) পাউট কতটা সুন্দর দেখাবে তা কিন্তু অনেক সময়েই মেকআপের উপরেও নির্ভর করে। ঠোঁটের মেকআপ যদি ঠিকঠাক না হয়, তাহলে আপনি যতই ভাল পাউট করুন না কেন, একটুও ভাল লাগবে না। ঠোঁটে মেকআপ করার আগে কয়েকটি ছোট্ট ছোট্ট বিষয় মাথায় রাখুন –

ক) ঠোঁটে মেকআপ করার আগে ময়শ্চারাইজার লাগান। এর পর নিজের স্কিনটোনের সঙ্গে ম্যাচ করে পাউডার ফাউন্ডেশন লাগান। এতে একটা বেস তৈরি হবে এবং লিপস্টিক সুন্দরভাবে বসবে।

খ) লিপস্টিক লাগানোর আগে লিপ লাইনার দিয়ে আউটলাইন করে নিন। যে শেডের লিপস্টিক লাগাবেন, একই শেডের লিপ লাইনার ব্যবহার করুন।

গ) পাউট করার জন্য সব সময়ে উজ্জ্বল রঙের লিপস্টিক বেছে নিন। লিপস্টিক যেন ম্যাট হয়। গ্লসি লিপস্টিকে পাউট করলে দেখতে ভাল লাগে না।

ঘ) শেষে সামান্য লিপ প্লাম্পার লাগিয়ে নিন। এতে ঠোঁট বেশ ভরাট দেখতে লাগে। লিপ প্লাম্পার না থাকলে লিপ গ্লস লাগাতে পারেন, কিন্তু খুব সামান্য লাগাবেন।

পাউট এক্সারসাইজ

পারফেক্ট পাউটের জন্য প্র্যাক্টিস তো করতেই হবে (ছবি - ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে)

ক) ঠোঁট (lips) বন্ধ করে রাখুন। এবারে মুখ না খুলে যতটা সম্ভব হাসি হাসি মুখ করুন। এভাবে ১৫ গুণে আবার আগের পজিশনে আসুন। দশ বার রিপিট করুন।

খ) দুটো ঠোঁট বন্ধ করুন। এবারে বন্ধ অবস্থাতেই মুখ সূচালো করে নাকের কাছে ঠোঁট নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। পাঁচ পর্যন্ত গুণে আবার আগের পজিশনে ফেরত আসুন। এভাবে দশবার করুন।

গ) ঠোঁটদুটো এমনভাবে রাখুন যেন মনে হয় কাউকে চুমু খেতে চান। এভাবে দশ গুণে আবার আগের অবস্থায় ফেরত আসুন। পাঁচ বার রিপিট করুন।

ঘ) বড় করে নিঃশ্বাস নিয়ে মুখের ভিতরে হাওয়া ভরে নিন। এবার ধীরে ধীরে যেন ফুঁ দিচ্ছেন এমনভাবে মুখের ভিতর থেকে হাওয়া ছাড়ুন। পাঁচ বার রিপিট করুন।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!