বিউটি স্কুল : ভেগান ও ন্যাচারাল প্রসাধনীর মধ্যে তফাৎটা কী!

বিউটি স্কুল : ভেগান ও ন্যাচারাল প্রসাধনীর মধ্যে তফাৎটা কী!

যখন মেকআপ (makeup) বা অন্যান্য প্রসাধনী (cosmetics) কিনি, প্যাকেট বা বক্সের গায়ে কিছু ফ্যান্সি শব্দ লেখা থাকে – ‘ন্যাচারাল’ বা ‘ভেগান’। কিন্তু এই শব্দগুলোর মানে কী, বা প্রসাধনী ও মেকআপের ক্ষেত্রে এই শব্দ দুটি ঠিক কিভাবে তাৎপর্যপূর্ণ তা (what is the difference between natural and vegan skin care products) আমাদের মধ্যে অনেকেই বোঝেন না বা জানেন না। তাতে লজ্জার কিছুই নেই। আমরা তো আছি, আপনাদের জানানোর জন্য।

‘ন্যাচারল’ ও ‘ভেগান’ প্রসাধনীর মধ্যে তফাৎ কী

অনেক প্রসাধনীর বক্সেই আপনি উপকরণের তালিকার আশেপাশে দেখতে পাবেন ‘১০০% ন্যাচারাল’ কথাটি লেখা আছে। অনেক ব্র্যান্ড আছে, যারা দিব্যি এই কথাগুলো লিখে দেয় প্যাকেজিং বক্সে এবং পরে দেখা যায় সেই প্রসাধনী (cosmetics) বা মেকআপটি (makeup) আদৌ ‘ন্যাচারাল’ নয়ই! হয়ত প্রোডাক্টের মধ্যে ১% প্রাকৃতিক উপকরণ ব্যবহার করা হয়েছে, কিন্তু তার পরেও অনেকেই নিজেদের প্রোডাক্টকে, বিশেষ করে প্রসাধনীতে ‘ন্যাচারাল’-এর তকমা এঁটে দেন! সে’জন্যই বার বার বলছি, যে-কোনও প্রসাধনী বা মেকআপ কেনার আগে, খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে উপকরণের তালিকাটি পড়ে নেবেন। আপনি নিশ্চয়ই চান না, একগাদা দাম দিয়ে কোনও প্রোডাক্ট কিনে আপনি ঠকে যান। আর ‘ন্যাচারাল’ প্রসাধনী বা মেকআপ কিনে লাগিয়ে যদি ত্বকে সমস্যা হয়, তখনও একটি অবাঞ্ছিত পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে। (what is the difference between natural and vegan skin care products)

ন্যাচারাল ও ভেগান প্রসাধনীতে ব্যবহৃত উপকরণগুলি বাইরে থেকেও দেখা যায় (ছবি - ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে)

যে-কোনও প্রাকৃতিক বা ন্যাচারাল প্রসাধনী ও মেকাপের ক্ষেত্রে একটা বিষয় দেখবেন, উপকরণের তালিকেয় উপরের দিকে প্রাকৃতিক উপাদানের নাম লেখা থাকে এবং তার পরিমাণও অনেক বেশি হয়। Aloe Barbadensis Miller, Acetic Acid aka Apple Cider Vinegar, Argania Spinos aka Argon Oil, Theobroma Cacao aka Cocoa, Cocos Nucifera, Persea Gratissima aka Avocado Oil, Ethyl Macadamiate (derived from macadamia seed oil), Camellia Sinensis aka Green Tea, Cannabis Sativa aka Hemp Seed Oil – ইত্যাদি হল প্রাকৃতিক উপকরণ। ন্যাচারাল মেকআপ ও প্রসাধনী কেনার সময়ে এখন থেকে খেয়াল রাখবেন যে আপনি এই উপকরণগুলির একটাও দেখতে পাচ্ছেন কিনা। তবে একটি বিষয় মনে রাখবেন যে-কোনও ন্যাচারাল মেকআপ বা প্রসাধনীতেই সামান্য হলেও সিনথেটিক উপকরণ দেওয়া থাকে।

‘ভেগান’ প্রোডাক্টের ক্ষেত্রেও ঠিক এই কাজটাই করে থাকে অনেক ব্র্যান্ড। সবুজ রঙের ফন্টে দু-চারটে পাতার ছবি দিয়ে লোগোর নাম লিখে তা প্রসাধনী ও মেকআপের বক্সে লাগিয়ে নিজেদের প্রোডাক্টে ‘ভেগান’ তকমা দিয়ে দেয় অনেকেই।  আপনি যদি কখনও ভেগান প্রোডাক্ট কেনেন। সেক্ষেত্রে কেনার আগে অবশ্যই যাচাই করে নেবেন যে প্রোডাক্টের বক্সে বা প্যাকেটে কোথাও ভেগান সোসাইটির লোগো আছে কি না।  (what is the difference between natural and vegan skin care products)

ভেগান সোসাইটির লোগো এবং লিপিং বানি লোগো দেখে তবেই যে-কোনোও প্রোডাক্ট কিনুন (ছবি - শাটারস্টক)

যখন আপনি কোনও ভেগান স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট, প্রসাধনী (cosmetics) বা মেকআপ (makeup) কিনবেন, অবশ্যই আরও একটি জিনিস খেয়াল রাখবেন, তাতে Leaping Bunny লোগো রয়েছে কি না। যেহেতু প্রতিটি ভেগান প্রোডাক্টই ‘ক্রুয়েলটি ফ্রি’ হয় অর্থাৎ পশু-পাখির উপরে এই প্রোডাক্টগুলো পরীক্ষা করা হয় না, কাজেই এই লিপিং বানি লোগোটি দেওয়া থাকে। এছাড়াও ভেগান মেকআপ বা প্রসাধনীতে কোনও প্রাণীজ উপকরণ ব্যবহার করা হয় না। উদাহরনস্বরূপ: বিওয়াক্সের বদলে করনৌবা ওয়াক্স বা পাম ওয়াক্স ব্যবহার করা হয়; কারমাইনের বদলে বিটের রস ব্যবহার করা হয়, গরু বা ছাগলের দুধের বদলে আমন্ড বা সোয়া মিল্ক ব্যবহার করা হয় ইত্যাদি।

‘ন্যাচারাল’ বা প্রাকৃতিক প্রসাধনী ও মেকআপে কখনও কখনও প্রাণীজ উপকরণ ব্যবহার করা হলেও ‘ভেগান’ প্রোডাক্টে সব সময়েই উদ্ভিজ্জ উপকরণ ব্যবহৃত হয়। (what is the difference between natural and vegan skin care products)

পরিশেষে একটাই কথা বলার, আপনি ন্যাচারাল বা ভেগান – যে প্রোডাক্টই কিনুন না কেন, খুব ভাল করে প্রতিটি লোগো, উপকরণ এবং কোনও প্রেজারভেটিভ রয়েছে কি না তা দেখে তবেই কিনবেন। কারণ, একবার ত্বক বা চুলের ক্ষতি হয়ে গেলে কিন্তু আপনাকেই ভুগতে হবে।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!