পুজোর আগেই ফ্রিজি হেয়ারের সমস্যা কাটিয়ে উঠুন, ঘরোয়া মাস্কের সাহায্যে

পুজোর আগেই ফ্রিজি হেয়ারের সমস্যা কাটিয়ে উঠুন, ঘরোয়া মাস্কের সাহায্যে

শ্যাম্পু করার পরেই কি আপনার চুলটা বেলুনের মতো ফুলে যায়? অথবা চুল সুন্দর করে আঁচড়ানোর পরেই কি জট পড়ে বা চুলের জট ছাড়াতে গিয়ে চোখের জলে নাকের জলে একাকার হয়ে যান? তাহলে তো বুঝতেই পারছেন যে আপনার চুলের যা ধরন তাকে ফ্রিজি হেয়ার বলে! এই ফ্রিজি চুল সামলানো যে কতখানি ঝক্কির ব্যাপার, তা যে এই সমস্যার মুখোমুখি হয়েছে একমাত্র সেই জানে। চুলের এই ফ্রিজি ভাব দূর করতে কখনও স্মুদনিং, কখনও বা আরও দামী ট্রিটমেন্ট, কিন্তু সুরাহা হয়নি কি? কিছু সহজ নিয়ম মেনে (home made hair masks for frizzy hair) চললে কিন্তু চুলের ফ্রিজি ভাব কাটিয়ে নরম ও স্বাস্থ্যজ্জ্বল চুল ফিরে পাওয়া খুব একটা কঠিন ব্যাপার হবে না।

১। নারকেল তেলের হেয়ার মাস্ক

ফ্রিজি চুলের জন্য নারকেল তেল খুব ভাল

নারকেল তেল খুব ভাল কন্ডিশনারের কাজ করে যার ফলে চুল নরম ও সিল্কি হয়ে ওঠে এবং ভিটামিন ই অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর ফলে চুলের পুষ্টিতে কোনও অভাব হয় না। ফ্রিজি হেয়ারের জন্য এই মাস্কটি (home made hair masks for frizzy hair) খুবই উপকারী।

কী কী উপকরণ প্রয়োজন – চার চা চামচ অরগানিক নারকেল তেল এবং একটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল

কীভাবে ব্যবহার করবেন – দুটি উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিন, খেয়াল রাখবেন যেন ভালভাবে মিশে যায়। এবারে যে ভাবে নারকেল মাথায় মাখতে হয় ঠিক সেভাবে মাসাজ করুন। অন্তত ১৫ মিনিট মাসাজ করবেন স্ক্যাল্পে, চুলের গোড়ায় এবং বাকি অংশেও। মিনিট ৪০ রেখে শ্যাম্পু করে নিন।

কতদিন ব্যবহার করবেন – সপ্তাহে একবার ব্যবহার করতে পারেন

২। অ্যালোভেরা জেল

চুলের ময়শ্চার ধরে রাখতে অ্যালোভেরা জেলের কোনও তুলনা হয় না

চুলের ময়শ্চার ধরে রাখতে অ্যালোভেরা জেলের কোনও তুলনা হয় না, আর এর সঙ্গে নারকেল তেল বা আমন্ড অয়েল মিশলে যে চুলের রুক্ষতা দূর হয়ে স্মুদ হবে, সে কথা আর নতুন করে বলে দিতে হবে না নিশ্চয়ই!

কী কী উপকরণ প্রয়োজন – এক টেবিল চামচ প্রাকৃতিক অ্যালোভেরা জেল এবং সমান পরিমাণে যে-কোনও ক্যারিয়ার অয়েল (নারকেল তেল বা আমন্ড অয়েল অথবা অলিভ অয়েল)

কীভাবে ব্যবহার করবেন – আপনার পছন্দের যে-কোনও ক্যারিয়ার অয়েলের সঙ্গে অ্যালোভেরা জেল (অ্যালোভেরা পাতা থেকে সরাসরি জেল বার করে লাগাবেন না, এতে জ্বলুনি হবে এবং চুল উঠে যাওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে, ভাল কোনও ব্র্যান্ডের অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করুন) মিশিয়ে নিয়ে স্ক্যাল্পে, চুলের গোড়ায় এবং ডগায় মাসাজ করুন। ২০ থেকে ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে নিন।

কতদিন ব্যবহার করবেন – ফ্রিজি হেয়ারের সমস্যা দূর করতে সপ্তাহে একদিন এই মাস্ক (home made hair masks for frizzy hair) ব্যবহার করলেই যথেষ্ট।

৩। পাকা কলার হেয়ার মাস্ক

পাকা কলাও খুব ভাল প্রাকৃতিক কন্ডিশনারের কাজ করে

পাকা কলাও খুব ভাল প্রাকৃতিক কন্ডিশনারের কাজ করে এবং যদি আপনার চুল রুক্ষ ও শুষ্ক হয় তাহলে সে সমস্যা তাড়াতাড়ি সমাধান করতে সাহায্য করে।

কী কী উপকরণ প্রয়োজন – একটি মাঝারি আকারের পাকা কলা, দুই চা চামচ মধু এবং তিন টেবিল চামচ নারকেল তেল বা আমন্ড অয়েল

কীভাবে ব্যবহার করবেন – পাকা কলার খোসা ছাড়িয়ে নিয়ে চটকে নিন, দেখবেন যেন কোনও দানা না থাকে। এবারে তাতে মধু আর নারকেল তেল বা আমন্ড অয়েল মিশিয়ে নিন ভাল করে। ওই মিশ্রণ (home made hair masks for frizzy hair) এবার চুলে লাগিয়ে রেখে দিন আধ ঘন্টা। ঠান্ডা জলে শ্যাম্পু করে নিন। চাইলে কন্ডিশনার লাগাতেও পারেন বা না লাগালেও সমস্যা নেই।

কতদিন ব্যবহার করবেন – আপনার চুলে যদি ফ্রিজি ভাব খুব বেশি থাকে তাহলে সপ্তাহে দু’বার এই মাস্ক ব্যবহার করুন তা না হলে সপ্তাহে একবার করে কিছুদিন ব্যবহার করলেই দেখবেন চুলের স্বাস্থ্য ফিরে গেছে।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!