রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে কীভাবে ভিটামিন সি সাহায্য করে

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে কীভাবে ভিটামিন সি সাহায্য করে

এই মুহূর্তে যা পরিস্থিতি তাতে মানুষ আগের থেকে অনেক বেশি স্বাস্থ্য সচেতন হয়েছেন। একে তো করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক, তার উপরে গ্রীষ্ম-বর্ষা মিলিয়ে এক অদ্ভুত আবহাওয়া এবং নানা জীবাণুর প্রকোপ – ফলে নিজের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা (immunity system) না বাড়াতে পারলে সমস্যা, এই ব্যাপারটা এখন আমরা মোটামুটি বুঝে গিয়েছি। ছোট-খাটো জ্বর, সর্দি-কাশি, গলা ব্যথা থেকে শুরু করে ত্বকের ও চুলের নানা সমস্যা এই সময়ে লেগেই থাকে। বেশিরভাগ সময়েই যদিও অনেকেই এই আপাত ছোট-খাটো শারীরিক সমস্যাকে পাত্তা দেন না, কিন্তু গোড়াতেই এঁদের প্রতিরোধ (immunity system) না করলে পরে গিয়ে বড় আকার ধারণ করতে পারে। না, খুব বেশি কিছু করতে হবে না, খাদ্যাভাসে সামান্য পরিবর্তন আনলেই শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো সহজ। শরীরে ভিটামিন সি-এর (vitamin c) অভাব থেকে নানা রোগ ব্যধি হতে পারে। কাজেই প্রতিদিনের খাবারে ভিটামিন সি জোগ করুন আজ থেকেই।

ভিটামিন সি-এর সাহায্যে কিভাবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবেন

বর্ষায় হাঁচি-কাশি রুখতে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ভিটামিন সি অপরিহার্য (ছবি - শাটারস্টক)

উপরোক্ত শারীরিক সমস্যাগুলি যেহেতু বর্ষাকালে বেশি বেড়ে যায়, কাজেই এই সময়ে আপনার শরীরের ইমিউনিটি সিস্টেম (immunity system) বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করা বেশি প্রয়োজন। আর তা সম্ভব খাদ্যাভাসে এমন কিছু খাবার যোগ করে যার মধ্যে ভিটামিন সি (vitamin c) রয়েছে।  বিশেষজ্ঞদের মতে, একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের শরীরে প্রতিদিন প্রায় ৫০০ মিলি লিটার ভিটামিন সি প্রয়োজন। এতে শুধু সর্দি-কাশি থেকেই না, নানারকমের জীবাণুও প্রতিরোধ করা সম্ভব।

প্রাকৃতিক ভাবে কীভাবে শরীরে ভিটামিন সি বৃদ্ধি করব

ঝাল খেতে পারলে প্রতিদিন সামান্য হলেও কাঁচা লঙ্কা খান, এতে প্রচুর ভিটামিন সি রয়েছে (ছবি - ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে)

রোজকার খাদ্যাভাসে কিছু পরিবর্তন নিয়ে আসলেই দেখবেন শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা (immunity system) অনেকটা বেড়ে গিয়েছে। যে সব খাবারে ভিটামিন সি (vitamin c) রয়েছে –

  • কাঁচা লঙ্কা – প্রতি ১০০ গ্রামে ২৪২ মিলিগ্রাম
  • পেয়ারা - প্রতি ১০০ গ্রামে ২২৮ মিলিগ্রাম
  • ব্রোকলি - প্রতি ১০০ গ্রামে ৯০ মিলিগ্রাম
  • স্প্রাউট - প্রতি ১০০ গ্রামে ৮৫ মিলিগ্রাম
  • লবঙ্গ - প্রতি ১০০ গ্রামে ৮১ মিলিগ্রাম
  • পেঁপে - প্রতি ১০০ গ্রামে ৬২ মিলিগ্রাম
  • কমলা লেবু - প্রতি ১০০ গ্রামে ৫৩ মিলিগ্রাম
  • পাতিলেবু - প্রতি ১০০ গ্রামে ৫২ মিলিগ্রাম
  • আনারস - প্রতি ১০০ গ্রামে ৪৮ মিলিগ্রাম

কোন বয়সের জন্য কতটা ভিটামিন সি প্রয়োজন

ইনস্টিটিউট অফ মেডিসিন অফ দ্য ন্যাশনাল অ্যাকাডেমির ফুড অ্যান্ড নিউট্রিশন বোর্ডের বিশেষজ্ঞদের মতে - 

১। ছয় মাস বয়সের ছেলে শিশুদের প্রতিদিন ৪০ মিলিগ্রাম এবং মেয়ে শিশুদের ৫০ মিলিগ্রাম করে ভিটামিন সি প্রয়োজন।

২। সাত থেকে বারো মাসের ছেলে শিশুদেরও প্রতিদিন ৪০ মিলিগ্রাম এবং মেয়ে শিশুদের ৫০ মিলিগ্রাম করে ভিটামিন সি প্রয়োজন।

৩। এক থেকে তিন বছর বয়সী শিশুদের (ছেলে ও মেয়ে) প্রতিদিন ১৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি প্রয়োজন।

৪। চার থেকে সাত বছর বয়সী শিশুদের (ছেলে ও মেয়ে) প্রতিদিন ২৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি প্রয়োজন।

৫। নয় থেকে তের বছর বয়সী শিশুদের (ছেলে ও মেয়ে) প্রতিদিন ৪৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি প্রয়োজন।

৬। চোদ্দ থেকে আঠের বছর বয়সী ছেলেদের প্রতিদিন ৭৫ মিলিগ্রাম ও মেয়েদের ৬৫ মিলিগ্রাম করে ভিটামিন সি প্রয়োজন।

৭। ১৯ বছর ও তার বেশি বয়সী পুরুষের প্রতিদিন ৯০ মিলিগ্রাম ও মহিলাদের ৭৫ মিলিগ্রাম করে ভিটামিন সি প্রয়োজন। যে সব মহিলারা গর্ভবতী, তাঁদের প্রতিদিন ৮৫ মিলিগ্রাম করে ভিটামিন সি (vitamin c) প্রয়োজন।

৮। যারা ধূমপান করেন, তাঁদের নির্দিষ্ট মাপের থেকে ৩৫ মিলিগ্রাম বেশি ভিটামিন সি প্রয়োজন প্রতিদিন।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!