ইউরিনারি ট্র্যাক ইনফেকশন দূর করতে ট্রাই করতে পারেন এই ঘরোয়া উপায়গুলিও

ইউরিনারি ট্র্যাক ইনফেকশন দূর করতে ট্রাই করতে পারেন এই ঘরোয়া উপায়গুলিও

Urinary Tract Infection নিরাময় করার ক্ষেত্রে ওষুধের পাশাপাশি নানা ঘরোয়া টোটকাও কিন্তু দারুণ কাজে আসে। হাতের কাছেই রয়েছে নানা প্রাকৃতিক ওষুধ (Home Remedies), শুধুমাত্র আপনাকে তা যথাযথভাবে ব্যবহার করতে হবে

ঘরোয়া উপায়ে ইউরিনারি ট্র্যাক ইনফেকশন দূর করতে কী কী করবেন

১। ইউরিনারি ট্র্যাক ইনফেকশন (UTI) থেকে মুক্তি পাওয়ার খুব সহজ একটি ঘরোয়া উপায় (Home Remedies) হল প্রচুর পরিমাণে জল পান করা। যত বেশি জল আপনার শরীরে যাবে, তত বেশি আপনার শরীর থেকে টক্সিন ফ্লাস আউট হবে, তা ঘামের মাধ্যমেই হোক বা প্রস্রাবের মাধ্যমেই হোক। সারাদিনে অন্তত আট গ্লাস অর্থাৎ দুই লিটার জল পান করুন। অনেকেই আছেন যারা আবার প্রয়োজনের তুলনায় বেশিই জল পান করে ফেলেন, সেটিও কিন্তু ঠিক নয়।

২। ধরুন আপনি অনেক জল পান করলেন কিন্তু এমন খাবার খেলেন যা জীবাণু সংক্রমণ আরও বাড়িয়ে দিল! তাহলে তো কোনও লাভই হল না তাই না? সুষম আহার অর্থাৎ শরীরে সঠিক নিউট্রিশন পৌঁছয় এমন খাবার খাওয়া জরুরি। এমন খাবার খান যাতে প্রচুর ভিটামিন সি রয়েছে, যেমন লেবু জাতীয় ফল, ক্র্যানবেরি জুস খেতে পারেন, আবার আপেলও খেতে পারেন। এছাড়া প্রচুর পরিমাণে শাক-সব্জি খাবেন। দেশি মুর্গিও খেতে পারেন আর মাছ খাবেন। তবে এমন কোনও খাবার খাবেন না যাতে UTI আরও বেড়ে যায়, যেমন – কফি, কোল্ড ড্রিঙ্ক, অতিরিক্ত তেল ও মশলাযুক্ত খাবার, অ্যালকোহল ইত্যাদি। আপনি চাইলে জলীয় ফলও খেতে পারেন। তরমুজ, শশা ইত্যাদিতে প্রচুর পরিমাণে জল রয়েছে যা টক্সিন ফ্লাস আউট করে জীবাণু সংক্রমণ রোধ করতে সক্ষম এবং ইউরিনারি ট্র্যাক ইনফেকশন থেকেও মুক্তি (Home Remedies) দিতে সক্ষম।

বেশি করে ফলমূল খেতে হবে

৩। অনেক মহিলার খুব খারাপ একটি অভ্যাস রয়েছে আর তা হল প্রস্রাব চেপে রাখা। অনেকেই রাস্তায় বেরিয়ে প্রস্রাব পেলে তা চেপে রাখেন, আবার অনেকেই আলসেমি করেও অনেকক্ষণ পর্যন্ত প্রস্রাব চেপে রাখেন। এতে আমাদের ব্লাডারে চাপ তো পড়েই, সঙ্গে ব্যাক্টেরিয়াও বেড়ে যেতে থাকে শরীরের মধ্যে। ফলে জীবাণু সংক্রমণ অনেকটাই বেশি হয়ে যায়।

৪। শরীর থেকে টক্সিন ফ্লাস আউট করার আরও একটি দারুণ উপায় হল ব্যায়াম করা। টক্সিন ফ্লাস আউট হলে তবেই শরীরে জীবাণু থাকবে না। আগেই জানানো হয়েছে যে আমাদের ডাইজেস্টিভ সিস্টেমে এক ধরনের ব্যাক্টেরিয়া থাকতে পারে যা থেকে ইউ টি আই (UTI) হওয়ার আশঙ্কা থাকে, কাজেই ব্যায়াম করলে কিন্তু মেদ ঝরার সঙ্গে ব্যাক্টেরিয়াও বেরিয়ে যায়। এছাড়া যদি গরম শেক নেন তাহলেও আরাম পাবেন।

৫। সঠিক পোশাক বলতে কিন্তু ফ্যাব্রিকের কথা বলা হচ্ছে। সুতি বা লিনেনের পোশাক পরুন। এতে ঘষা লাগে না এবং জীবাণু সংক্রমণও কম হয়। ঢিলে পোশাক পরুন এতে কখনও ঘাম হলেও ব্যাক্টেরিয়া আক্রমণ করতে পারবে না আপনার স্পর্শকাতর অঙ্গে।

মূল ছবি সৌজন্য - পেক্সেলস ডট কম 

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!