খুশকি দূর করা, চুলে জেল্লা বাড়ানো, নতুন চুল গজানো - চুলের যত্নে মেথি বীজের উপকারিতা অনেক!

খুশকি দূর করা, চুলে জেল্লা বাড়ানো, নতুন চুল গজানো - চুলের যত্নে মেথি বীজের উপকারিতা অনেক!

ছোটবেলায় চুলের যত্নে মা-কে অনেক টোটকা ব্যবহার করতে দেখেছি। তার মধ্যে মেথি বাটা (how methi seeds help in hair care) অন্যতম। সপ্তাহে অন্তত এক দিন চুলে মেথি বাটা লাগানোটা ছিল রুটিন। তার নড়চড় হতো না। আমার একটুও ভাল লাগত না ব্যাপারটা। পছন্দ হতো না বলে রেগে মা-কে কিছু বলতে গেলেই মা বলতো, মেথি বাটা লাগালো চুল স্বাস্থ্যোজ্জ্বল হবে। ঘন আর মজবুতও হবে। তখন অতটা না বুঝলেও এখন বুঝতে পারি মেথির উপকারিতা।

১। চুল পড়া রোধ করতে

মেথি বীজ চুলে পুষ্টি যোগায়, ফলে চুল পড়া বন্ধ হয় (ছবি - ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে)

চুলকে একেবারে গোড়া থেকে মজবুত করতে পারে মেথি। এক কাজ করুন, ১ টেবিল চামচ মেথি আর ১ কাপ নারকেল তেল নিন। এ বার একটি জারে নারকেল তেলের মধ্যে মেথি দিয়ে ঢাকনাটা টাইট করে আটকে এমন শুকনো আর ঠান্ডা জায়গায় রাখুন যেখানে সূর্যের আলো পৌঁছয় না। এ ভাবে তিন সপ্তাহ রাখতে হবে। তার পর তেলটা ছেঁকে নিয়ে মাথায় মাসাজ করুন। কারণ মেথি (how methi seeds help in hair care) চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। আর এটা প্রোটিন ও নিকোটিনিক অ্যাসিডের ভাল উৎস, যা চুলকে গোড়া থেকে মজবুত করে এবং চুল ভেঙে যাওয়াও রোধ করে।

২। খুশকির বংশ নাশ করতে

কম-বেশি প্রায় সকলেই খুশকির সমস্যায় ভোগেন। শীত কালে এটা বেশি হলেও অন্যান্য মরসুমেও খুশকির সমস্যা দেখা যায়। এই সমস্যা থেকেও আপনাকে মুক্তি দেবে মেথিই, কারণ মেথি স্ক্যাল্পের মৃত-শুষ্ক চামড়া দূর করে। ১ কাপ জলে ২ টেবিল চামচ মেথি বীজ দিয়ে সারা রাত ভিজিয়ে রাখুন। সকালে এই মেথি বীজ পেস্ট করে নিন। মেথির পেস্ট চুলের গোড়ায় ও মাথার তালুতে ভালো করে মাসাজ করুন। ৩০ মিনিট মতো রেখে কোনও মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৩। চুল ঝলমলে করে তুলতে

কয়েকদিনের মধ্যেই চুল হয়ে উঠবে ঝলমলে

রোজকার ধোঁয়া-ধুলো-দূষণে চুল স্বাভাবিক জেল্লা হারিয়ে ফেলছে? তা হলে সেই জেল্লা ফিরিয়ে আনতে ব্যবহার করতে হবে মেথির মাস্ক। এটা বানাতে লাগবে- ২ টেবিল চামচ মেথি বীজ আর ১ কাপ জল। জল গরম করে তাতে মেথি বীজ দিয়ে ফুটিয়ে নিন। তার পর সারা রাত সেটাকে রেখে দিন। এর পর ওই মেথি বীজটা (how methi seeds help in hair care) পেস্ট করে নিতে হবে। ওই পেস্টটা স্ক্যাল্প আর চুলের গোড়ায় লাগিয়ে নিন। সেই সঙ্গে চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত ওই পেস্ট মাসাজ করতে হবে। অন্তত ৩০ মিনিট রেখে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৪। চুলের অকালপক্কতা রোধ করতে

এ এক এমন সমস্যা যার কথা প্রায়ই শোনা যায়। আপনার মনে হতেই পারে সোজাসাপটা রঙ করে নিলেই তো এই সমস্যা মিটে যায়। কিন্তু মনে রাখবেন হেয়ারকালার কিন্তু চুল একদম নষ্ট করে দেয়। এতে চুল অনেক বেশি ড্রাই হয়ে পড়ে। চুলের ডগা ফেটে যায়। তার চেয়ে এই পদ্ধতি অবলম্বন করে দেখুন। আগের দিন রাতে মেথি ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন পেস্ট তৈরি করুন। এর সঙ্গে কারিপাতার পেস্ট মেশান। এবার এই দুটির প্রলেপ মাথায় লাগিয়ে আধঘণ্টা রাখার পর অল্প গরম জলে ধুয়ে ফেলুন।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!