মন খারাপ ? ব্রেকআপের পর কীভাবে সামলাবেন নিজেকে ?

মন খারাপ ? ব্রেকআপের পর কীভাবে সামলাবেন নিজেকে ?

কুইন সিনেমার কথা মনে পড়ে? বিয়ে হবে, সব ঠিক। বাড়িতে উৎসবের আনন্দ। ঠিক তার আগের মুহূর্তেই বিয়ে ভেঙে গেল। জীবনটা থমকে গিয়েছিল সে মুহূর্তে। অনেকগুলো বছর একসঙ্গে থাকার পর হঠাৎই সব ভেঙে পড়ল। কিন্তু আমাদের কুইন কিন্তু ভেঙে পড়েননি। আমাদের রানি নিজের আনন্দে নিজেকে খুঁজে পেয়েছিলেন। নিজের জীবনকে আরও একবার সুযোগ দিয়েছিলেন। তাঁর উল্লাসে আমরা খুঁজে পেয়েছিলাম নিজেদের। হঠাৎ কুইন ছবির কথা কেন লিখছি? সেই প্রশ্ন নিজেকে করুন একবার। কী লুকাচ্ছেন নিজের থেকে?  সম্পর্ক ভাঙার কষ্ট?  আসলে সম্পর্ক এরকম অনিশ্চিতই হয়। আর যে সম্পর্কে আপনি ভাল নেই, বা যে সম্পর্কে আপনার বিশ্বাস ভেঙেছে। সেই সম্পর্কে থেকে নিজেকে কষ্ট দেওয়ার কী কারণ? বরং নিজেকে ভাল রাখার চেষ্টা করুন। ব্রেকআপের কষ্ট আমরা কাটিয়ে উঠতে পারি, কিন্তু সারাজীবন কষ্ট ও অসম্মানের সঙ্গে থাকা যায় না( get over a breakup)। তাহলে ব্রেকআপের পর  কীভাবে সামলাবেন নিজেকে (get over a breakup)?

নিজেকে সময় দিন

আগে ঝটপট লিখে ফেলুন তো, আপনি কীসে ভাল থাকেন?  কী খেলে আপনার মুখে হাসি ফুটে ওঠে? একবার ভাবুন। আপনার ভাল থাকায় গুরুত্ব দিন। এতদিন হয়তো সম্পর্ক ভাল রাখার কথা ভাবতে গিয়ে নিজের ভাল থাকার কথা ভুলেই গিয়েছেন। ভাল বই পড়ুন। ভাল সিনেমা দেখুন। পারলে আর্টে মন দিন। কারণ, আর্ট আমাদের অনেক মন খারাপ থেকে বেরিয়ে আসতে সাহায্য করে। ভাল খাবার খান। ছোটখাটো ট্রিপ করুন। আপনি ভাল থাকবেন। কোনও স্বপ্নের কাজ বাকি থাকলে, তা নতুন করে শুরু করুন। প্রথমে হয়তো একটু কষ্ট হবে, কিন্তু তারপর নিজেকে খুঁজে পাবেন আবার। আর যদি খুব সমস্যা হয়ে থাকে, থেরাপিস্টের সাহায্য নিন। কিন্তু নিজেকে কষ্ট পেতে দেবেন না। ব্রেকআপের পর কীভাবে সামলাবেন তা স্পষ্ট হচ্ছে আশা করি (get over a breakup)।

ছবি সৌজন্য - ডিয়ার জ়িন্দেগি

কষ্টের বহিঃপ্রকাশ করুন

যদি ব্রেকআপের পর আপনার খুব বেশি কষ্ট হয় (get over a breakup)। আপনার প্রায়ই কান্না পায়। আপনি কাঁদুন। নিজের অনুভূতিকে চাপা দিয়ে রাখবেন না। পারলে শব্দ করে কাঁদুন। চিৎকার করে কাঁদুন। মনের ভিতর যাবতীয় দুঃখ বের করে দিন। দুঃখ পুষে রাখতে নেই। তাকে মুক্ত করে দিন। আপনি নিজেকে মুক্ত করে দিন। ব্রেকআপে কষ্ট হবে, সেটাই স্বাভাবিক। অন্যরা কী বললেন, তাতে গুরুত্ব দেবেন না।

বন্ধুদের সঙ্গে আবার দেখা করুন, পরিবারের সঙ্গে থাকুন

আরও একবার বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটান... ছবি সৌজন্য - কুইন

পরিবার এমন একটি জায়গা, যেখানে হয়তো আমরা সবচয়ে বেশি নিরাপদ বোধ করি। আবার অনেকের ক্ষেত্রে তা নাও হতে পারে। কিন্তু ব্রেকআপের পর অনেক বাবা-মা’ই তাঁদের সন্তানের পাশে থাকেন। সন্তানের কষ্ট বোঝেন। যদি আপনার ক্ষেত্রেও তাই হয়, তবে বাবা-মা’কে সব বলুন। যদি আপনার বাবা, মা আপনার ব্রেকআপ নিয়ে চিন্তিত না হন, তাহলে সেই নিয়েও মন খারাপ করবেন না। আপনার বন্ধুরা নিশ্চয়ই আছে? বন্ধুদের সঙ্গে দেখা করুন। সময় কাটান। দেখবেন আপনারও মন আস্তে আস্তে ভাল হয়ে যাবে। আসলে আমরাও জানি না, গাছও আমাদের বন্ধু হয়ে ওঠে। তাই আর কাউকে যদি না পান, গাছের সঙ্গে সময় কাটান। নতুন গাছ লাগান। তাদের যত্ন নিন। দেখবেন আপনিও ওদের ভালবাসছেন। ভালবাসা সবার জন্যই। বুঝতে পারছেন তো ব্রেকআপের পর কীভাবে সামলাবেন নিজেকে (get over a breakup)?

নেগেটিভ মানুষের থেকে দূরে থাকুন, ভাল বন্ধু খুঁজুন

ছবি সৌজন্য - ডিয়ার জ়িন্দেগি

আমাদের ব্রেকআপের পর অনেক মানুষ অনেক পরামর্শ দেন। যাঁরা আপনাকে নেগেটিভ পরামর্শ দেন, তাঁদের থেকে দূরে থাকুন। আপনি ভুলে যাবেন না, আপনার কষ্ট একমাত্র আপনি বোঝেন। তাঁরা আপনার দুঃখের ভাগ নেবেন না। তাই সবসময় নেগেটিভ মানুষ ও পরামর্শ এড়িয়ে চলুন। এমনকী আপনার এক্সের সঙ্গে যদি আপনার যোগাযোগ থেকে থাকে। তাঁর সঙ্গেও যোগাযোগ সাময়িকভাবে বন্ধ করুন।

পুরনো সম্পর্ক নিয়ে বারবার কথা বলবেন না

আমরা সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর তা কেমন ছিল, সেই নিয়ে বারবার কথা বলি। আলোচনা করি। এতে সাময়িকভাবে আমাদের মন ভাল লাগে। কিন্তু স্মৃতি এমন একটি জিনিস, আপনি যে বিষয়ে বারবার গুরুত্ব দেবেন। স্মৃতি আপনাকে তা ভুলতে দেবে না। বারবার সে বিষয়ে কথা হলে সেই স্মৃতিই থেকে যাবে। যা আপনাকে কষ্ট দেবে। তাই পুরনো যা ছিল, সবকিছু ছেড়ে দিন। নতুনের কথা ভাবুন। নতুন মুহূর্ত তৈরি করুন, একদম নিজের জন্য।

মন খারাপ, অপছন্দ সব লিখে ফেলুন

আপনার যা খারাপ লেগেছে সেসব একটি কাগজে লিখে ফেলুন। বা আপনার প্রাক্তনকে আপনি যা খারাপ কথা বলতে চান, সেসব একটি ই-মেলে লিখে ফেলুন। এতে আপনার মনের রাগ, দুঃখ সব বাইরে আসবে। কিন্তু মনে রাখবেন, সেই ই-মেল আপনি পাঠাবেন না। কিন্তু আপনার সামনে ব্রেকআপের কারণগুলিও স্পষ্ট থাকবে। তাই বারবার সম্পর্কের কথা মনে পড়বে না।

এই সময়টা নিজের জন্য। কারণ, আপনিও তো একজন কুইন। যাঁর নিজের একটি জগৎ আছে। যাঁর নিজের একটি জীবন আছে, ভবিষ্যৎ আছে। জীবনে অনেক খারাপ সময় আসে, চলেও যায়। জীবন থেকে যায়, আপনি থেকে যান। তাই আনন্দে থাকুন, নিজের জন্য বাঁচুন। আপনার পৃথিবীতে আপনিই রানি ! ভুলে যাবেন না।  

POPxo এখন চারটে ভাষায়!ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!
বাড়িতে
থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন
#POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন
নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!