সুখী দাম্পত্যের টিপস নিন বড়দের থেকে, জেনে নিন তিনটি মূল মন্ত্র

সুখী দাম্পত্যের টিপস নিন বড়দের থেকে, জেনে নিন তিনটি মূল মন্ত্র in bengali

ভালোবেসে বিয়ে হোক বা বিয়ের পরে ভালোবাসা, হানিমুন পিরিয়ড কেটে গেলেই একটু একটু করে দেখা দিতে থাকে মনোমালিন্যের মেঘ। একটু মন কষাকষি, একটু চোখের জল। অবশ্য সব দাম্পত্যেই (3 main mantra to live a happy married life) এটুকু ওঠানামা থাকে। কিন্তু এটুকু যদি বাড়তে বাড়তে বেশ বড়সড় আকার নেয় তাহলে মুশকিল। তাই এখন থেকেই আপনাদের দুজনকেই চেষ্টা করতে হবে সুখী নিটোল দাম্পত্য গড়ে তোলার। কাজটা খুব একটা কঠিন নয় কিন্তু এগিয়ে আসতে হবে দুজনকেই। কিন্তু সুখী দাম্পত্য বজায় রাখার রহস্যটা কী?  

১। পরস্পরের পাশে থাকুন

তোমার সঙ্গে সব সময়ে থাকব

এটাই হল দাম্পত্যের মূল কথা। দুজনে যে কোনও পরিস্থিতিতে দুজনের পাশে থাকুন। মনে রাখবেন এই দুনিয়ায় কোনও মানুষই পারফেক্ট নয়। আপনার স্বামীর মধ্যেও দোষ ত্রুটি আছে আর আপনার মধ্যেও। ভালো আর মন্দ এই দুই নিয়েই জীবন (3 main mantra to live a happy married life)। জীবনে বড় কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে দুজনে আলোচনা করে নিন। ছোট ছোট ব্যাপারে টুকটাক কথা বলুন। যেমন ধরুন আজ অফিসে যে শাড়িটা পরে যাচ্ছেন তার সঙ্গে কোন দুলটা মানায় সেটা স্বামীকে জিগ্যেস করুন। আবার স্বামীর অফিস মিটিংএর শার্টও আপনি বেছে দিন। এমন কিছু করবেন না যাতে অন্যজন কষ্ট পায়।

২। সব সময়ে ‘না’ বলা বন্ধ করুন

'না' বলা সব সময়ে ঠিক না

আপনার কোনও কিছু অপছন্দ হলে আপনি না বলতেই পারেন। না বলতে পারেন আপনার স্বামীও। কিন্তু সব ব্যাপারেই যদি দুজনে ক্রমাগত না বলতে থাকেন তাহলে সম্পর্কের ফাটল বাড়তেই থাকবে। যেমন ধরুন আপনি গানের অনুষ্ঠান ভালোবাসেন। স্বামীকে কোনও কনসার্টে সঙ্গে যেতে বললে তিনি যদি না বলেন আপনার খারাপ লাগবে। একইভাবে স্বামীর অফিসের পার্টিতেও আপনি যদি বারবার না বলেন তার ভালো লাগবে না। শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করার ক্ষেত্রেও এটি প্রযোজ্য। প্রতিদিন না বলাটা কাম্য নয়। আপনার কোনও অসুবিধে থাকলে স্বামীকে সেটা বলুন বা স্বামীর সমস্যা বোঝার চেষ্টা করুন।

৩। দুই পরিবারের প্রতিই যত্নশীল হন

সারাক্ষণ ফোনে মুখ গুঁজে থাকবেন না

সফল দাম্পত্যের প্রধান শর্ত হল যে পরিবারে আপনি যাচ্ছেন সেখানকার একজন অপরিহার্য সদস্য হয়ে ওঠা। তবে দিনকাল এখন অনেক পাল্টে গেছে। আপনি যেমন স্বামীর বাবা মাকে আপন করে নেবেন আপনার স্বামীকেও আপনার বাবা মার প্রতি শ্রদ্ধাশীল (3 main mantra to live a happy married life) থাকতে হবে।তবে আপনি যেহেতু স্বামীর পরিবারে এসে থাকছেন আপনার দায়িত্ত্ব এক্ষেত্রে একটু হলেও বেশি। তাই মতের মিল না হলেও অশ্রদ্ধা করবেন না বা অন্য কোথাও চলে যাবেন না।মাঝে মাঝে একটা দুটো গেট টুগেদার করুন। শ্বশুর বা শাশুড়ির পছন্দ মতো টুকটাক জিনিস কিনে আনুন। তাদের বোঝান আপনি তাদের বন্ধুর মতো। তবে এই পদক্ষেপে যেন আন্তরিকতার অভাব না থাকে।

মূল ছবি সৌজন্য - ইনস্টাগ্রাম 

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!