ওয়ার্ক ফ্রম হোমে দুপুরে ঘুম পায়? জেনে নিন কীভাবে কাটাবেন

ওয়ার্ক ফ্রম হোমে দুপুরে ঘুম পায়? জেনে নিন কীভাবে কাটাবেন

বাঙালির প্রিয় জিনিসের একটি তালিকা যদি তৈরি করা যায়, তবে কী কী রাখা যায় বলুন তো? মাছ, বিরিয়ানি, উত্তম-সুচিত্রা, সাহিত্য... দাঁড়ান দাঁড়ান ! কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বাদ দিয়ে দিচ্ছেন না তো, ভেবে বলুন কিন্তু! ভাত-ঘুম । কোন বাঙালির ভাতঘুম প্রিয় নয়, বলতে পারেন? সবারই ভাতঘুম যে বড় প্রিয়। অফিসে কাজের সময় লাঞ্চের পরই চোখটা জুড়িয়ে আসে। কিন্তু সামনেই যে বস বসে আছেন, তাই চাইলেও দুমুহূর্ত চোখ বন্ধ করা যায় না। এই কথাই যখন এল, একটা কথা মনে পড়ল। প্রথম অফিসে প্রথম দিন গিয়েছি, এইচআর ফর্ম্যালিটিস চলছিল। অনেক্ষণ বসে ছিলাম, অন্য কোনও কাজ ছিল না। অন্য শহর হলেও বাঙালি তো! টেবিলে মাথা রেখে ঘুমিয়ে পড়লাম। তারপর যখন চোখ খুলল, সে কথা আর নাই বা বললাম! আমি জানি আপনি তা করেননি কখনও।
কিন্তু প্যানডেমিক পরিস্থিতিতে অনেক কিছুই বদলেছে। অনেকেই ওয়ার্ক ফ্রম হোম করেছেন। অনেকে অফিস যেতে শুরু করেছেন আবার। অনেকে এখনও বাড়ি থেকেই কাজ করছেন। আমরা অনেকেই জানি, ওয়ার্ক ফ্রম হোমে কাজ কিন্তু নয় নয় করেও যেন বেশি হয়ে যায়। তবে সেই লাঞ্চের পর কাজ করতে বসে যেন চোখ জুড়িয়ে আসে। মনে হয় দুই মিনিট চোখটা বুজে নিই। আর চোখ খুলেই শিফট শেষ! সেটা যেন না হয়, কীভাবে দুপুরের ঘুম এড়িয়ে যাবেন ভেবেছেন? ওয়ার্ক ফ্রম হোমে (work from home) দুপুরের ঘুম যেন বাধা না হয়ে যায় কোনওভাবেই! কিন্তু দুপুরের ঘুম কীভাবে এড়িয়ে যাবেন(avoid sleeping at afternoon), বলে দিচ্ছি আমরাই! এই উপায় মেনে চলুন, দেখবেন চুটকিতেই সরিয়ে দিতে পারবেন দুপুরের ঘুম(avoid sleeping at afternoon)।

বিছানায় বসে কাজ করবেন না

বিছানায় বসে কাজ করা এড়িয়ে যান...

কখনও বিছানায় বসে কাজ করবেন না (work from home)। যদি ডেস্কটপে কাজ হয়, তবে তো খুবই ভাল। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ল্যাপটপে কাজ করি আমরা। বিছানায় বসে শুয়ে কাজ করার ইচ্ছে হয়। সবথেকে ভুল সিদ্ধান্ত এটাই। টেবিল-চেয়ারে বসে কাজ করুন। টেবিলটি অফিসের মতো সাজিয়ে নিন। কখনও বিছানায় বসে কাজ করবেন না। এতে আপনার শরীরেও ক্ষতি হয় ও দুপুরে ঘুম আসতে পারে। ক্লান্তি তাড়াতাড়ি আসে।

ব্রেক নিন

আপনার যদি ঘুম পায়, কাজ থেকে একটা পাঁচ মিনিটের ব্রেক নিন। উঠে ছাদে বা বারান্দায় বা ঘরের মধ্যেই হেঁটে নিন। হাঁটা-চলা করলে আপনার শরীরও ঠিক থাকে। ঘুম কেটে যায়। পাঁচ মিনিট হাঁটার পর আবার বসে কাজ শুরু (work from home)করুন। শুধু দুপুরের ঘুম কাটানোর জন্য এই পদ্ধতি মেনে চলবেন, তা নয়। ওয়ার্ক ফ্রম হোমে পাঁচ মিনিটের ব্রেক নিন। এতে শরীরের মুভমেন্ট হয়। যা আপনার প্রয়োজন।

চোখের ব্যায়াম সাহায্য করে

চোখ ও ঘাড়ের ব্যায়াম সাহায্য করে...

চোখের চিকিৎসকরা সবসময় চোখের ব্যায়ামের পরামর্শ দেন। টানা বসে কাজ করার সময় আমরা তা মেনে চলি না অনেক সময়ই। কিন্তু মেনে চলা প্রয়োজন। টানা কাজ করার মধ্য়েই চোখের ও ঘাড়ের ব্যায়াম করুন। এতে চোখ ও ঘাড় বিশ্রাম পায়। স্ট্রেস কম হয়। এবং ঘুমও আসে না।

চা ও কফিই কিন্তু আল্টিমেট সেভার

চা খেতে পারেন কাজের ফাঁকে...

চা বা কফি আপনি কাজের মধ্যে খেতেই পারেন। তাই বলে দুপুরে খেয়ে উঠেই চা খাবেন না। এক ঘণ্টা পরে আপনি চা বানিয়ে খেতে পারেন। চা বা কফি খাওয়া অভ্যাস করে ফেললে ঘুম আসবে না। আমি লাল চা খাওয়ার পরামর্শ দেব। কিন্তু আপনি যদি দুধ দিয়ে চা বা কফি বানিয়ে খেতে পছন্দ করেন। তবে তাও খেতে পারেন। দুপুরের ঘুম কিন্তু এভাবেই কাটিয়ে দেওয়া যায় (avoid sleeping at afternoon) অনায়াসেই!

POPxo এখন চারটে ভাষায়!ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!


বাড়িতেথেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন
#POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন
নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!