প্রেমিকের কাছে কে বেশি গুরুত্বপূর্ণ? আপনি নাকি তার স্মার্ট ফোন!

প্রেমিকের কাছে কে বেশি গুরুত্বপূর্ণ? আপনি নাকি তার স্মার্ট ফোন! in bengali

আজকাল তো আমাদের সবার হাতে স্মার্ট ফোন। ফোন যত বেশি স্মার্ট হচ্ছে, আমরা যেন তত বেশি আনস্মার্ট হয়ে যাচ্ছি! না প্লিজ মারতে আসবেন না, আমার পুরো কথাটা তো শুনুন। একটা হাইপোথেটিক্যাল সিচুয়েশন বলি। মনে করুন, আপনি আর আপনার প্রেমিক (how to deal with smartphone addicted boyfriend) একটু কোয়ালিটি সময় কাটাবেন ভেবেছেন। আপনার মনে বেশ প্রেম প্রেম ভাব। সামনের খোলা জানালা দিয়ে পূর্ণিমার চাঁদ দেখা যাচ্ছে, আপনিও ভাবলেন যে প্রেমিককে চাঁদ দেখাবেন, কিন্তু তিনি ঘাড় গুঁজে বসে আছেন তাঁর স্মার্ট ফোনের স্ক্রিনে। কেমন মাথা গরম হয় বলুন তো!

ছবি - পেক্সেলস ডট কম

আরও একটা উদাহরণ দিই। আপনি হয়ত কোনও জরুরি কথা বলছেন আপনার প্রেমিককে। আর তিনি মাঝে মধ্যে হু বা হ্যাঁ –তেই কাজ সারছেন। প্রেমিকের দিকে ফিরে দেখলেন, আপনার কথা তাঁর কানেই যায়নি। কারণ? কারণ, তিনি স্মার্ট ফোনের স্মার্টনেসে মজে আছেন। দিনের পর দিন তিনি যদি এমনটা করেন, তা হলে বস আপনার কপালে দুঃখ আছে। সম্পক্ক টিকবে না বেশিদিন, এই বলে দিলুম। ভেঙে পড়ার কিছু নেই আর স্মার্ট ফোন (how to deal with smartphone addicted boyfriend) ভাঙারও দরকার নেই। প্রেমিকের স্মার্ট ফোন প্রীতি কাটিয়ে তুলতে আপনিও অন্য রাস্তা নিন। মানে সোজা আঙুলে ঘি না উঠলে, আঙুলটা সামান্য একটু বেঁকিয়ে দিন। 

স্মার্ট ফোনে আসক্ত প্রেমিকের জন্য রইল মিষ্টি অথচ কড়া দাওয়াই

ছবি - পেক্সেলস ডট কম

১) সোশ্যাল মিডিয়ায় আসক্ত তো তিনি? আপনি নিজেই একটা মিথ্যে আইডি খুলে নিজেকে আই লাভ ইউ, সোনা মনা এসব বলে মেসেজ করুন। লোকেশনে লিখুন আমেরিকা বা ইউরোপ। আর প্রেমিককে বলুন দুর্দান্ত এনআরআই ভক্ত বা প্রেমিক জুটেছে আপনার। এই স্মার্টফোনের (how to deal with smartphone addicted boyfriend) সূত্র ধরেই জুটেছে। তাই আপনিও এবার থেকে স্মার্টফোনে বুঁদ হয়ে থাকবেন। 

২) প্রেমিককে বোঝান, যে আপনারা অল্প কিছু সময়ের জন্য দেখা সাক্ষাৎ করেন। তার মধ্যে বেশিরভাগ সময় যদি তিনি স্মার্টফোনের দিকে তাকিয়ে বসে থাকেন তাহলে আর দেখা করে লাভ নেই। তাই 'ইটস ওভার' বলে ছদ্মরাগ দেখিয়ে বাড়ি চলে যান দিকি। তারপর বেশ কিছুদিন বিনা যোগাযোগে চুপটি করে বসে থাকুন। ওই যে মহাভারতে পাণ্ডবরা যেমন আত্মগোপন করেছিলেন, ঠিক ওরকম। দারুণ থ্রিলিং তাই না? 

৩) প্রিয় বান্ধবীর সঙ্গে ষড়যন্ত্র করুন। গভীর ষড়যন্ত্র। স্কুল বা কলেজের বান্ধবীদের সঙ্গে দেদার সিনেমা দেখুন বা রেস্তরাঁয় খান। আর সেই সব ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দিন। আর তলায় লেবেল সেঁটে লিখে দিন আপনার প্রেমিক নয়, আপনি ছোটবেলার বন্ধুদের সঙ্গে বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। কারণ, তাঁরা কেউ স্মার্টফোনে (how to deal with smartphone addicted boyfriend) আসক্ত নয়। 

৪) কোনও কিছুতেই কাজ না হলে সোজাসুজি আলটিমেটাম দিয়ে দিন। বলে দিন যে, দ্যাখো বস, এই নাও মালা আর এই নাও চেলি। তুমি ওই স্মার্টফোনের গলায় মালা দিয়ে সাত পাকে ঘুরে নাও। আমি চললাম। দেখবেন, ওই সব স্মার্টফোন-টোনের মায়া ভুলে তিনি আপনার পিছু-পিছু আসছেন! অবশ্য তারপরেও যদি তাঁর স্মার্ট ফোন প্রীতি না দূর হয়, তাহলে বরং তাঁকেই দূর করে দিন!

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!