প্রেগনেন্সিতে চুলে রং করা কি আপনার শিশুর জন্য নিরাপদ?

প্রেগনেন্সিতে চুলে রং করা কি আপনার শিশুর জন্য নিরাপদ?

গর্ভাবস্থায় অনেক কিছুই পরিবর্তন হয়। যেমন খাবারের স্বাদের ক্ষেত্রে কিছু পরিবর্তন দেখা যায়, একইভাবে পরিবর্তন হয় শরীরেও। গর্ভাবস্থায় মায়ের শরীর ও মনের উপর অনেক প্রভাব পড়ে। শরীরের বিভিন্ন পরিবর্তন আসায় পছন্দের পোশাক আর ফিট হতে চায় না। সেরকমই আরও অনেক ভাল লাগা স্যাক্রিফাইস করতে হয়। তবে অন্য যে কোনও স্টাইলিংয়ে যতই পরিবর্তন আসুক, হেয়ার স্টাইলিংয়ের ক্ষেত্রে কিন্তু অতটাও কিছু পরিবর্তন আসে না। মন পছন্দের হেয়ারস্টাইল আপনি তখনও করতে পারেন। 

Beauty

WIPEOUT Baby Safety Wipes

INR 299 AT MyGlamm

কিন্তু অনেকেই প্রশ্ন করেন গর্ভাবস্থায় হেয়ার কালার করা কি নিরাপদ (hair coloring during pregnancy)? মানে শিশুর জন্য কি চুলে রং করা নিরাপদ হবে? প্রেগনেন্সিতে চুলে রং করবেন কি না এই নিয়ে অনেকেই দোটানায় ভোগেন। আপনার প্রশ্নের সব উত্তর দেব আমরা। এমনকী এও জানাব, কীভাবে রং করলে আপনার কোনও অসুবিধাও হবে না। আপনার শিশুও থাকবে নিরাপদ।

গর্ভাবস্থায় চুলে রং করা শিশুর জন্য কতটা নিরাপদ?

গর্ভাবস্থায় চুলে রং করলে তা গর্ভস্থ শিশুর কোনও ক্ষতি করে কি না সেই নিয়ে কোনও তথ্য় এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তাছাড়া চুল থেকে সেভাবে কোনও বিপদের আশঙ্কাও নেই। শুধুমাত্র রঙের অংশ যদি স্ক্যাল্পে লেগে যায়, সেখানে রক্তের সঙ্গে মিশে যাওয়ার একটা সম্ভাবনা থেকে যায়। যদিও সেই সম্ভাবনা খুবই কম। আবার রক্তের সঙ্গে মিশে গেলেও সেই রং গর্ভস্থ শিশু পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে না, কারণ তার পরিমাণ খুবই কম। তাই আপনার যদি গর্ভাবস্থায় চুলে রং করার ইচ্ছে হয়, তবে সেই বিষয়ে অবশ্য়ই আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলুন। আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চুলে রং করে (hair coloring during pregnancy)নিন।

সিঙ্গেল প্রসেস কালার করবেন না

চুলের রং করার অনেক ধরন হয়। যেমন গোড়া থেকে ডগা পর্যন্তও আপনি হেয়ার কালার করতে পারেন। বা হেয়ার রুট টাচ আপ করতে পারেন। এই দুই সিঙ্গল প্রসেস কালার। এই ক্ষেত্রে স্ক্যাল্পে হেয়ার কালার লেগে যাওয়ার একটা সম্ভাবনা থেকে যায়। তখনই তা ভিতরে যেতে পারে। তাই অন্য়ভাবে চুলে রং করুন। যাতে কোনওভাবেই রং স্ক্যাল্পে না পৌঁছায়।

প্রথম তিন মাস রং না করাতেই পারেন

গর্ভাবস্থার প্রথম তিন মাস শিশুর বেড়ে ওঠার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ সময়। শিশুর শরীরের মূল অংশগুলো তৈরি হয় এই সময়ে। শিশুর মাংসপেশি, নখ, চুলের ফলিকল তৈরি হয় এই সময়ে। স্ক্যাল্পে খুব সামান্য রং ভিতরে এলেও এই সময় ঝুঁকি না নেওয়াই ভাল(hair coloring during pregnancy)।

আরও যে বিষয়গুলি মাথায় রাখবেন

  • সম্পূর্ণ চুলে রং করার আগে একবার স্ট্র্যান্ড টেস্ট অবশ্য়ই করে নেবেন। গর্ভাবস্থায় অনেক পরিবর্তন দেখা দেয়। তাই আপনার চুল রঙের সংস্পর্শে এলে ঠিক কি না, তা আগেই জেনে নিন। সামান্য চুলে অল্প রং লাগিয়ে প্রথমে দেখে নিন।(hair coloring during pregnancy)
  • যে ঘরে পর্যাপ্ত পরিমাণে সূর্যের আলো ও বাতাস ঢোকে, সেরকম ঘরে বসে চুলে রং করবেন।
  • চুল নিজে রং করলে অবশ্য়ই হাতে গ্লভস পরে নেবেন।
  • বাক্সের গায়ে লেখা পরামর্শ মেনে চলবেন।
  • চুলে রং করার পর খুব ভাল করে চুল ধুয়ে ফেলবেন। যেন চুলে একটুও রং না লেগে থাকে।
  • চুলে রং করার সময় কোনও খাবার বা পানীয় খাবেন না। যেন সেই কেমিক্যাল কোনওভাবেই আপনার শরীরে না প্রবেশ করে।
  • অ্যামোনিয়া বা পারঅক্সাইড বিহীন হেয়ার কালার ব্যবহার করবেন। গর্ভাবস্থায় এই ধরনের হেয়ার কালারকে নিরাপদ বলে মনে করা হয়।

POPxo এখন চারটে ভাষায়!ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন
#POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন
নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!