গর্ভাবস্থায় না কি ব্যায়াম করা উচিত নয়? এরকম আরও কয়েকটি মিথকে এবার বিদায় দিন

গর্ভাবস্থায় না কি ব্যায়াম করা উচিত নয়? এরকম আরও কয়েকটি মিথকে এবার বিদায় দিন

গর্ভাবস্থায় শরীরে সত্য়িই অনেকরকম পরিবর্তন হয়। কোনও কাজ করার আগেই দুই তিনবার ভাবেন গর্ভবতী মহিলারা। প্রিয় খাবার খাওয়ার আগেও ভাবেন এই খাবার কি তাঁর সন্তানের জন্য ভাল হবে? সব সময়ই মনের মধ্যে হাজারও প্রশ্ন চলতে থাকে। তার সঙ্গে পরিবারের নানা রকম সংস্কার তো রয়েছেই। হাজারও সংস্কারের মধ্যে বোঝাই যায় না কোনটা ঠিক আর কোনটা ভুল। আপনার মনেও অনেকরকম প্রেগনেন্সি মিথ রয়েছে। আজ প্রেগনেন্সি মিথ নিয়েই আলোচনা করব, দেখব কোনটা সত্যি  (common pregnancy myths)আর কোনটা আদৌ সত্যিই নয়! 

মিথ - প্রেগনেন্সির সময় ব্যায়াম করা যায় না

ফ্যাক্ট - আপনি যদি প্রেগনেন্সির সময় সচল বা অ্যাক্টিভ থাকেন তা আপনার সন্তান ও আপনার জন্যে ভাল। যদি আপনার গর্ভাবস্থায় কোনও সমস্যা না থাকে তাহলে আপনি অবশ্যই ব্যায়াম করতে পারেন। তবে এই ক্ষেত্রে আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে নেবেন। কারণ, গর্ভাবস্থায় কয়েকটি ব্যায়াম করা যায় না। যদি গর্ভাবস্থার আগে আপনি ব্যায়াম না করে থাকেন তবে সামান্য ব্যায়াম  (common pregnancy myths)শুরু করতে পারেন। নিয়মিত হাঁটতে পারেন। ভারী ব্যায়াম করবেন না।

প্রয়োজনীয় ব্যায়াম আপনাকে সচল রাখে

মিথ - চুল রং করা যায় না

ফ্যাক্ট - এইটা একদম ঠিক নয়। আপনি চাইলে চুলে রং করতেই পারেন। কারণ আপনার স্ক্যাল্পের মাধ্যমে যদি রঙের পরিমাণ আপনার শরীরে ঢোকেও তা আপনার শিশুর ক্ষতি করতে পারে, এরকম কোনও বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা এখনও পাওয়া যায়নি। তবে সাবধানতার জন্য চুলের গোড়ায় রং না দিতে পারেন।

মিথ - দুজনের খাবার খেতে হয়

ফ্যাক্ট - এই সংস্কার অনেক পরিবারেই চালু রয়েছে। প্রেগনেন্সির সময় খিদে হয়তো একটু বাড়তে পারে। কিংবা কোনও খাবার খাওয়ার ইচ্ছে হতে পারে। কিন্তু কখনওই দুইজনের খাবার খেতে হয় না। একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, এই সময় অনেক মহিলা প্রয়োজনের থেকে ২০০ ক্যালোরি বেশি খাবার গ্রহণ করেন  (common pregnancy myths)।

আপনি ও আপনার সন্তান সুস্থ থাকুন

মিথ - প্লেনে চড়তে পারবেন না

ফ্যাক্ট - একশো বার প্লেনে চড়তে পারবেন। কেন প্লেনে চড়বেন না? শুধু আপনার চিকিৎসকের একটি সার্টিফিকেট আপনার সঙ্গে রাখুন। যেখানে লেখা থাকবে, আপনার গর্ভাবস্থায় রিস্ক কম  (common pregnancy myths)।

 

মিথ - সেক্স করতে পারবেন না

ফ্যাক্ট - আসলে সেক্স করলে অনেক জটিলতাই সমাধান হয়ে যায়। সেক্সের জন্য পেলভিক এরিয়ায় রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। সেই জন্য ব্যথা কম হতে পারে। এতে আপনার সন্তানের কোনও ক্ষতি হবে না। কারণ, সে আপনার গর্ভে একদম সুরক্ষিত রয়েছে। শুধুমাত্র আপনার যোনিপথে কিছু পরিবর্তন হতে পারে। যেমন আপনার ভ্যাজাইনাল ক্যানাল ড্রাই হয়ে যেতে পারে। এই কয়েকটি পরিবর্তন হয়তো থাকবে। না হলে আর কোনও সমস্যা নেই। তবে আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন অবশ্যই  (common pregnancy myths)।

মিথ - গর্ভবতী মহিলার শরীরের গঠন দেখে শিশুর লিঙ্গ নির্ধারণ সম্ভব

ফ্যাক্ট - এই কথা একদম সত্যি নয়। আসলে মহিলার উপরে শিশুর লিঙ্গ নির্ধারণ করে না। যৌন মিলনের সময় পুরুষের শরীর থেকে কোন ক্রোমোজোম মহিলার শরীরে আসছে, তার উপরেই নির্ভর করে শিশুর লিঙ্গ। অনেক ভারতীয় পরিবারে জন্মের আগে শিশুর লিঙ্গ নির্ধারণের একটা সম্ভাবনা দেখা যায়, যা আইনত অপরাধ। তাই মায়ের শরীরের গঠন দেখেও অনেকেই শিশুর লিঙ্গ নির্ধারণ করে দিতে চান। কেউ আপনার সঙ্গে এমন করতে চাইলে তাঁকে সোজাসুজি মানা করে দেবেন।

কোনও মিথকে প্রশ্রয় দেবেন না

মিথ - জাফরান দুধ খেলে শিশুর গায়ের রং ফরসা হবে

ফ্যাক্ট - এই কথাও একদম শুনবেন না। আপনার শিশুর গায়ের রং নির্ভর করছে জিনের গঠনের উপর। আপনি কী খাচ্ছেন তা দিয়ে শিশুর গায়ের রং ঠিক হয় না। আপনার শিশুর গায়ের রং যেরকমই হোক সে সুন্দর। তবে আপনাকে একটি স্বাস্থ্যকর ডায়েট মেনে চলতে হবে। সুস্থ থাকতে হবে  (common pregnancy myths)।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!                

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!