অ্যাকুপ্রেশারকে কাজে লাগিয়ে নাকি নতুন চুল গজানো সম্ভব! গবেষণা তো তাই বলছে

অ্যাকুপ্রেশারকে কাজে লাগিয়ে নাকি নতুন চুল গজানো সম্ভব! in bengali

একদম ঠিক পড়েছেন। অ্যাকুপ্রেশারের সাহায্যে চুল পড়া বন্ধ করা সম্ভব (acupressure points for hair growth) আবার নতুন চুল গজানোও সম্ভব। বিশ্বাস করুন, আমি নিজেও যখন কথাটা শুনেছিলাম, আপনাদের মতই অবাক হয়েছিলাম। এই চিনা পদ্ধতিটি সাধারণত শরীরের ব্যথা-বেদনা দূর করতে কাজে আসে। কিন্তু চুলের যত্নে ও স্বাস্থ্য ফেরাতে অ্যাকুপ্রেশার ঠিক কিভাবে কাজে লাগে বলুন তো?

নতুন চুল গজাতে অ্যাকুপ্রেশার কিভাবে কাজে লাগে?

সঠিক প্রেশার পয়েন্টে চাপ দিলে রক্ত সঞ্চালন সঠিকভাবে হয়

২০১৬-র একটি গবেষণা অনুযায়ী, অ্যাকুপ্রেশার নাকি সঠিক পদ্ধতিতে করতে পারলে নতুন চুল গজায়। আসলে ব্যাপারটা হল, সঠিক প্রেশার পয়েন্টে মাসাজ করলে শরীরের রক্ত সঞ্চালন সঠিকভাবে ঘটে। ঠিক এভাবেই স্ক্যাল্পেও অ্যাকুপ্রেশার দেওয়া (acupressure points for hair growth) গেলে রক্ত সঞ্চালন সঠিকভাবে হয় আর চুলের ফলিকল মজবুত হয়। ফলে নতুন চুল গজায় এবং চুল পড়াও অনেকটাই কমে যায়।

তবে, শুধু স্ক্যাল্পে না, বলা হচ্ছে যে আঙুলের নখেও যদি অ্যাকুপ্রেশার দেওয়া যায় তাহলেও নাকি নতুন চুল গজানো সম্ভব। আমাদের বুড়ো আঙুলের নখের নীচে যে নার্ভ থাকে তা সরাসরি চুলের গোড়ার নার্ভের সঙ্গে যুক্ত।

এছাড়াও আপনার বাঁ হাতের মধ্যমার ঠিক মাঝখানে যদি অ্যাকুপ্রেশার (acupressure points for hair growth) দেওয়া যায়, তাহলে চুলের অকালপক্কতা রোধ করাও সম্ভব বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। বাঁ হাতের তালুতে (মধ্যমা ও অনামিকার ঠিক মাঝখানে) প্রেশার পয়েন্টে কিছুক্ষণ চেপে রাখলে শরীরে সেবাম উৎপাদন কমে, ফলে ত্বক ও চুল অতিরিক্ত তেলতেলে হয় না।

Beauty

GLOW Iridescent Brightening Sheet Mask

INR 199 AT MyGlamm

নতুন চুল গজানোর জন্য শরীরের কোন কোন প্রেশার পয়েন্টে অ্যাকুপ্রেশার দেওয়া যেতে পারে

১। LI 1: ডান হাতের তর্জনীতে এই প্রেশার পয়েন্ট রয়েছে। যেখানে আপনার নখ শেষ হচ্ছে ঠিক তার নীচে, বাঁ দিকে।

২। GV 12 ও GV 14: কাঁধের নীচে ও পিঠের উপরের যে ত্রিকোণ অংশ, অর্থাৎ শোল্ডার ব্লেডস, সেখানে অ্যাকুপ্রেশার দেওয়া যেতে পারে যাতে নতুন চুল গজায়।

৩। LU 6: এই প্রেশার পয়েন্টটি বাহুর ঠিক মাঝামাঝি অবস্থিত।

৪। B 13: দুটি শোল্ডার ব্লেডের ঠিক মাঝখানে, শিরদাঁড়ার উপরে (acupressure points for hair growth)

৫। LU 9: হাতের তালুতে অবস্থিত এই প্রেশার পয়েন্টটি, বুড়ো আঙুল ও কব্জির মাঝামাঝি।

বাড়িতে কিভাবে অ্যাকুপ্রেশার দেবেন

আপনি নিজেই অ্যাকুপ্রেশারের সাহায্যে স্ক্যাল্প মাসাজ করতে পারেন

আপনি যদি ভাবেন কোনও পেশাদার অ্যাকুপ্রেশার থেরাপিস্টের সাহায্য নেবেন, তা আপনি করতেই পারেন। তবে যদি চান, কারও সাহায্য ছাড়াই নিজেই নিজেকে অ্যাকুপ্রেশার দিতে পারেন।

প্রথমেই হাত পরিষ্কার করে নিন এবং চুলের জট ছাড়িয়ে নিন। এবারে চুলের গোড়া থেকে নিয়ে ডগা পর্যন্ত একবার আঙুলের ডগার সাহায্যে স্ক্যাল্পে আলতো প্রেশার (acupressure points for hair growth) দিন। কপালের দিক থেকে শুরু করে ঘাড়ের পিছন পর্যন্ত ধীরে ধীরে আঙুলের ডগা দিয়ে প্রেশার দিন। তেল মেখে তার পরে এই কাজটি করবেন না। তবে চাইলে হেয়ার সিরাম বা হেয়ার ফারটিলাইজার ব্যবহার করতে পারেন। এমন কিছুদিন করলে চুলের গোড়ায় রক্ত সঞ্চালন সঠিকভাবে হবে এবং ধীরে ধীরে দেখবেন নতুন গজাচ্ছে।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!       

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!