প্রতিদিন মাছ খাওয়ার উপকারিতা তো রয়েছে কিন্তু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জানা আছে কি?

প্রতিদিন মাছ খাওয়ার উপকারিতা তো রয়েছে কিন্তু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জানা আছে কি? in bengali

বাঙালির খাওয়ার পাতে এক টুকরো মাছ ছাড়া চলে না। ভাজা হোক, ঝোল হোক বা ঝাল, মাছ না হলে মনে হয় কিছুই খেলাম না (benefits and side effects of eating fish everyday)। মৎস্যপ্রিয় বাঙালি সমুদ্র এবং নদী দুই জায়গার মাছই খেতে ভালবাসে। তবে পশ্চিমবঙ্গ নদীমাতৃক হওয়ার দরুন এখানে নদীর মাছের চাহিদা সামান্য হলেও বেশি। নদীর মাছ অর্থাৎ যেগুলো মিষ্টি জলের মাছ আর সমুদ্রের মাছ হল নোনা জলের মাছ। মোটামুটি সব বাঙালি বাড়িতেই যেমন রোজই রুই বা কাতলা মাছ রান্না হয়ই। আবার বিশেষ দিনে পাবদা, ইলিশ, চিতল, তেলাপিয়া, ট্যাংরা, পারশে, পমফ্রেট, ভেটকি – এই মাছগুলিরও নানা সুস্বাদু পদ রান্না হয়। মাছ খাওয়ার নানা উপকারিতা রয়েছে, কিন্তু সঙ্গে আছে কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও। আজ আমরা সবটাই আলোচনা করব।

প্রতিদিন মাছ কেন খাবেন

বাঙালির নিত্যদিনের যাতায়াতের স্থান

একথা সত্যি যে, অন্যান্য প্রদেশে যেখানে সপ্তাহে এক বা দুইদিন মাছ খাওয়া হয়, সেখানে বাঙালি বাড়িতে ও ভারতের উপকূল অঞ্চলের অধিবাসীরা রোজ মাছ খান। রোজ মাছ কেন খাবেন? (benefits and side effects of eating fish everyday) এই প্রশ্ন মনে জাগতেই পারে। আমরা সেই প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছি। দেখে নিন, কেন রোজ মাছ খেতে পারেন।

১। মাছে ভাল ফ্যাট রয়েছে: ফ্যাট মানেই সেটা খারাপ নয়। মাছে আছে ভাল ফ্যাট। এতে আছে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড যা চোখ ও বুদ্ধির বিকাশে কাজ দেয়। হবু মায়েদের তাই মাছ খেতে বলা হয় যাতে গর্ভের সন্তানের মস্তিষ্কের বিকাশ হয় এবং চোখ ভাল থাকে।

২। প্রোটিনের দারুণ সোর্স মাছ: মুরগি বা পাঁঠার মাংসে যে পরিমাণ প্রোটিন থাকে, তার চেয়ে অনেক বেশি প্রোটিন মাছে থাকে। যে কোলেস্টরলের ভয়ে আপনি ভীত থাকেন প্রতিদিন মাছ (benefits and side effects of eating fish everyday) খেলে সেটা কিন্তু অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আসবে। এতে যে ফ্যাট থাকে সেটা সহজে দ্রবীভূত হয়ে যায়। 

৩। ভিটামিন ডি-এর ঘাটতি পূরণ করে মাছ: এটা আছে অত্যন্ত দরকারি ভিটামিন ডি। এই ভিটামিন শরীরের সামগ্রিকভাবে ভাল থাকার জন্য দরকার। সুতরাং মাছ খেলে আপনার শরীরে ভিটামিন ডি’র অভাব হবে না।

৪। রয়েছে নানা প্রাকৃতিক খনিজ ও ফ্যাটি অ্যাসিড: মাছে যে ভিটামিন ডি, ডিএইচএ ও ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড আছে সেগুলো সবটাই অ্যান্টি-ডিপ্রেশানের জন্য দারুণ কার্যকরী। প্রতিদিন মাছ খেলে (benefits and side effects of eating fish everyday) শুধু আপনার শরীর নয় মন ও ভাল থাকবে।

৫। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে: মাছে এমন অনেক জরুরি উপাদান আছে যা আপনার শরীরে প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে। প্রতিদিন মাছ খেলে আরথারাইটিস ও ডায়বেটিসের মতো রোগ শরীরে থাবা বসাতে পারে না।

Beauty

WIPEOUT SANITIZING SPRAY

INR 199 AT MyGlamm

প্রতিদিন মাছ খেলে কি কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে?

মাছ খাওয়ার কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া আছে (benefits and side effects of eating fish everyday)। তবে এর বেশিরভাগই পরিবেশ ও দূষণ জনিত। যেমন মাছের পেটে অনেক সময় পারদ বা মারকিউরি পাওয়া যায়। এটি শরীরের পক্ষে একদমই ভাল নয়। বর্তমানে দেখা যাচ্ছে মাছের পেটে পাওয়া যাচ্ছে প্লাস্টিক। প্লাস্টিক যে পচনশীল নয় সেটা আপনারা জানেন। এই অবস্থায় মাছ খেলে সেটি শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর হবে। তাছাড়া অনেক সময় যারা পুকুরে মাছ চাষ করেন, তাঁরা পুকুরে পোকা মাকড় বা আগাছা মারতে কীটনাশক ব্যবহার করেন। এটি মাছেরাও খায়। আর সেই মাছ আমরা খেলে সেটা আমদেরও পেটে যায়। এইসব কারণে গর্ভবতী মহিলাদের জন্য মাছ ভাল হলেও অনেকেই তাঁদের মাছ খেতে বারণ করেন। তাঁরা মাছ খেতে চাইলে অনেক বেশি সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। নাহলে গর্ভস্থ শিশুর ক্ষতি হবে।

এছাড়াও অনেকেরই সি-ফিশ বা সমুদ্রের মাছে অ্যালার্জি (benefits and side effects of eating fish everyday)থাকে। নোনা জলের হওয়ার দরুন এই জাতীয় মাছ তাঁদের শরীরে সহ্য হয়না। অবশ্য তাঁরা নদীর মাছ খেতে পারেন।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!       

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!