বিদ্যা দেবীকে তুষ্ট করতে সরস্বতী পুজোয় কী করবেন আর কী করবেন না, জেনে নিন

বিদ্যা দেবীকে তুষ্ট করতে সরস্বতী পুজোয় কী করবেন আর কী করবেন না, জেনে নিন in bengali

এই ব্যাপারটা যুগ-যুগ ধরে হয়ে আসছে। আগেও হত, এখনও হয় আর ভবিষ্যতেও হবে। আরে বাবা, পরীক্ষার আগে কেউ পড়াশোনা করে না। আর সরস্বতী পুজো (dos and donts to please ma saraswati) এগিয়ে এলেই মাথায় বাজ ভেঙে পড়ে! হাজার হলেও তিনি হচ্ছেন বিদ্যার দেবী। যদি তিনি রাগ করেন, তা হলে তো পরীক্ষা পুরো ঝুলে লাট। না, না এমনটা হোক আমরা মোটেও চাই না। আমরা চাই, আপনি পরীক্ষায় দুর্দান্ত রেজাল্ট করুন। তার জন্য যেমন মন দিয়ে পড়াশোনাটা নিয়মিত করতে হবে, সেই সঙ্গে সরস্বতী পুজোও নিষ্ঠাভরে করতে হবে। কী করলে দেবী তুষ্ট হবেন আর কী করলে তিনি ভয়ানক রেগে যেতে পারেন, সেই বিষয়ে আপনাকে গাইড করছি আমরা। 

কী কী করলে মা সরস্বতী তুষ্ট হবেন

১। প্রথমেই যেটা করতে হবে সেটা হল, আপনার পড়ার বই দেবীর (dos and donts to please ma saraswati) পাশে গুছিয়ে রাখুন। সব বই দেওয়ার দরকার নেই। বাড়িতে যদি অনেক পরীক্ষার্থী থাকে, তা হলে সবাই দুটো বা তিনটে করে বই দেবেন। বইয়ের উপর যে অঞ্জলির ফুল পড়বে, সেটা সাবধানে রেখে দিন। 

২। যেখানে পুজো হয় বা হবে, সেই জায়গা আগের দিন ভাল করে পরিষ্কার করে রাখবেন। মনে রাখবেন, দেবী সরস্বতী হলেন শুভ্রবসনা। ধুলো, ময়লা ইত্যাদি তিনি একদম পছন্দ করেন না। 

৩। অনেক ছাত্রছাত্রী এটা ভেবে আশঙ্কায় থাকে যে, সরস্বতী পুজোর আগে (dos and donts to please ma saraswati) যদি তারা কুল খেয়ে নেয়, তা হলে তাদের পরীক্ষা খারাপ হবে। এটা মূলত কুসংস্কার। তবে এর পিছনে একটি গল্প আছে। মহামুনি ব্যাসদেব তপস্যা শুরুর আগে দেবী সরস্বতীর বরদান চাইলেন। দেবী একটা কুলের বীজ পুঁতে দিয়ে বললেন, যেদিন এই গাছ বড় হয়ে তাতে কুল জন্মাবে এবং সেটি তোমার মাথায় পড়বে, সেইদিন তোমার তপস্যা পূর্ণ হবে। ব্যাসদেব সেই মতো কাজ করেই ব্রহ্মসূত্র রচনা শুরু করেন। আসলে মরসুমের প্রথম ফল দেবীকে সমর্পণ না করে কেউ খেতে চায় না। তবে এর পিছনে একটি বিজ্ঞানসম্মত ব্যাখ্যাও আছে। সঠিক সময়ের আগে কুলে কষ থাকে, যা শরীরের পক্ষে ভাল নয়। 

৪। যখন দেবীর মন্ত্র উচ্চারণ করতে বলবেন পুরোহিত মশাই, সেটা নিষ্ঠাসহ বলবেন। মন্ত্র শব্দের অর্থ হল যা মনকে ত্রাণ করে। অর্থাৎ যে আপনাকে উদ্ধার করে বিভিন্ন জটিল পরিস্থিতি থেকে। মন্ত্রোচ্চারণের (dos and donts to please ma saraswati) সময় বন্ধু বান্ধবীদের সঙ্গে খুনসুটি বা ঠেলাঠেলি করবেন না।

৫। যদি স্কুল, কলেজ বা নাচ গান শেখার কোনও বিদ্যা নিকেতনে দেবী সরস্বতীর পুজো হয়, তা হলে সেখানে আপনার গুরু, শিক্ষক বা মাস্টারমশাইরা থাকবেন। দেবী মূর্তির সামনে তাঁদের পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করবেন না। যদি প্রণাম করতে হয়, তা হলে অন্য জায়গায় গিয়ে করবেন। 

৬। যেখানে পুজো হচ্ছে, সেখানে একদম জুতো পরে (dos and donts to please ma saraswati) যাবেন না। অন্যদেরও বারণ করবেন। তাছাড়া নোংরা পায়েও দেবীর সামনে একদম যাবেন না। 

৭। খেয়াল করবেন, দেবী সরস্বতীর পাশে একটি প্রদীপ জ্বলে। বিদ্বজনেরা বলেন, এই প্রদীপ হল আপনার পুজোর সাক্ষী। পুজো চলাকালীন এই প্রদীপ নিভে যাওয়া খুব খারাপ। খেয়াল রাখবেন, যেন এটা নিভে না যায়। যদি নিভিয়ে দিতে হয়, তা হলে অঞ্জলির ফুল দিয়ে নিভিয়ে দেবেন কিন্তু ভুলেও ফু দেবেন না। 

৮। যখন পুজো শুরু হবে, তখন মৌনতা অবলম্বন (dos and donts to please ma saraswati) করলেই ভাল। অন্তত কিছুক্ষণের জন্য হাসিঠাট্টা, ঝগড়া, অন্যের নামে কুৎসা, এই সব থেকে বিরত থাকুন। আপনি যাঁর আরাধনা করছেন, তিনি বিদ্যার দেবী। আর যাঁর বিদ্যালাভ হয়েছে, তিনি এসব করেন না। 

মূল ছবি - ইনস্টাগ্রাম 

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!       

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!