কষ্ট করে তৈরি করা ঘি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে? জেনে নিন, এটি বেশিদিন ভাল রাখার উপায়

কষ্ট করে তৈরি করা ঘি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে? জেনে নিন, এটি বেশিদিন ভাল রাখার উপায় in bengali

গরম ভাতে এক চামচ তরল সোনা যদি পড়ে, আর সঙ্গে একটা কাঁচা লঙ্কা পাওয়া যায়, তাহলে অনেক পেটুক মানুষেরই খাওয়া হয়ে যায়! আবার রুটি বা পরোটায় অথবা পোলাও আর পায়েসেও কয়েক ফোঁটা পড়লেই স্বাদ হয়ে ওঠে অনবদ্য। আজ্ঞে হ্যাঁ, ঘিয়ের কথাই হচ্ছে এখানে। যে-কোনও খাবারে একটু ঘি (method to make and store ghee properly) দিলে তার স্বাদ বেড়ে যায়। আমরা অনেকেই দোকান থেকে ঘি কিনে ব্যবহার করি, আবার অনেকে বাড়িতে অনেক খাটুনি করে ঘি তৈরি করেন। কিন্তু একটু বেশি দিন হয়ে গেলেই ঘিয়ের থেকে কেমন একটা গন্ধ বেরোয়। হ্যাঁ আপনি বলতেই পারেন যে ফ্রিজে রেখে ঘি অনেক দিন ব্যবহার করা যায়। কিন্তু অনেক সময়েই ঘি ফ্রিজে রাখলেও একটা গন্ধ হয় যায় আর তা ব্যবহার করা যায় না। এত দামী ঘি ফেলে দিতেও কষ্ট হয়, আবার খাওয়াও যায় না। কী করা যায় বলুন তো? আরে আপনি এত ভাবছেন কেন? আমরা তো রয়েছি আপনার মুশকিল-আসান। আমরা বলে দিচ্ছি ঠিক কিভাবে রাখলে অনেক দিন ধরে ঘি ঠিক থাকবে।

সঠিক পাত্রে ঘি রাখছেন তো?

ভাবছেন ঘি রাখার আবার সঠিক-বেঠিক (method to make and store ghee properly) পাত্র কী! দোকান থেকে যেমন প্লাস্টিকের শিশিতে ঘি বিক্রি করে, আপনিও সেই পাত্রেই রেখে দেন। এতে আবার সমস্যা কোথায়? আছে বাবা সমস্যা আছে। ঘি যদি আপনি সঠিক পাত্রে না রাখেন তাহলে তা খুব তাড়াতাড়ি পচনশীল হয়ে যায়। আগেকার দিনে স্টিলের কৌটোয় বা মাটির পাত্রে ঘি রাখা হত। এতে ঘি অনেকদিন পর্যন্ত ভাল থাকে। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অনেক কিছুর মত ঘি রাখার পাত্রের মেটেরিয়ালও বদলে গেছে। আর ঠিক সেজন্যই তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যায় ঘি। এবার থেকে যখনই দোকান থেকে ঘি কিনে আনবেন, প্লাস্টিকের শিশি থেকে তা সঙ্গে সঙ্গেই স্টিলের কৌটো অথবা মাটির বয়ামে ঢেলে ফেলুন। আর যদি বাড়িতে ঘি (method to make and store ghee properly) তৈরি করেন, সেক্ষেত্রে সরাসরি স্টিলের কৌটোয় ঢেলে রাখুন। এতে ঘিয়ের রং, স্বাদ এবং গন্ধ – সবই অনেকদিন পর্যন্ত অটুট থাকবে।

Beauty

WIPEOUT SANITIZING SPRAY

INR 199 AT MyGlamm

বাড়িতে ঘি তৈরি করার সময়ে যা যা অবশ্যই খেয়াল রাখবেন

যদি বাড়িতে ঘি তৈরি করেন সেক্ষেত্রে দুধের সর থেকে ঘি বের করার সময়ে কয়েকটা বশয় আপনাকে মনে রাখতে হবে –

ক) আপনি নিশ্চয়ই দুধের সর জমিয়ে তার পরে তা থেকে ঘি বের করেন? আর এই কাজটাই বেশিরভাগ মানুষ ঠিকভাবে করতে পারেন না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বেশ অনেক দিনের সর জমানোর ফলে তা টকে যায়। আর সেই খারাপ হয়ে ওঠা সর ফিয়ে ঘি (method to make and store ghee properly) তৈরি করার ফলে ঘি-টাও তাড়াতাড়ি নষ্ট হয় যায়। কাজেই এক সপ্তাহের বেশি পুরোনো দুধের সর ব্যবহার করবেন না।

খ) সম্ভব হলে ফুল ক্রিম দুধের সর ব্যবহার করুন। এতে ঘি বেশি হবে।

গ) ফ্রিজে এয়ার টাইট কোনও পাত্রে সর জমিয়ে রাখুন। পরে সেই সর দিয়ে ঘি তৈরি করুন, দেখবেন ঘিয়ের (method to make and store ghee properly) মান ভাল হবে।

মূল ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে 

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!       

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!