আপনার পার্টনার আপনাকে ঠকাচ্ছে বুঝতে পারছেন , কী করবেন আপনি?

আপনার পার্টনার আপনাকে ঠকাচ্ছে বুঝতে পারছেন , কী করবেন আপনি?

অনেকেই অনেক যত্ন ও আশা নিয়ে সম্পর্ক শুরু করেন। সবই ঠিক ঠাক চলে। প্রেমের সৌন্দর্য্য উপভোগ করেন দুজনেই। তারপর হয়তো হঠাৎই একদিন ছন্দপতন হয়। আপনি হয়তো জানতে পারেন, আপনার পার্টনার আপনাকে ঠকাচ্ছে। দীর্ঘদিনের সম্পর্ক, তাছাড়া আপনি মানুষটিকে ভালবাসেন ও বিশ্বাস করেন। সেখানে দাঁড়িয়ে হঠাৎ আঘাত লাগলে খুবই হতাশ লাগে। 

তখন সম্পর্ক, প্রেম ও বিশ্বাস মুহূর্তের মধ্যেই ভেঙে যায়। আমরা কখনওই চাই না আপনি কখনও এরকম পরিস্থিতির মুখোমুখি হন। কিন্তু যদি হন, তাহলে কী করবেন তার কয়েকটি সামান্য পরামর্শ রইল আপনার জন্যই (partner is cheating)।

শান্ত থাকার চেষ্টা করুন

রিঅ্যাক্ট করবেন না

আপনি আপনার পার্টনারকে ভালবাসেন, তিনি আপনাকে ঠকিয়েছে জানলে আপনার রিঅ্যাক্ট করা বা চিৎকার করে অশান্তি করাই স্বাভাবিক। কিন্তু আপনি তা না করার চেষ্টা করুন। আবেগপ্রবণ হয়ে কোনও সমস্যার সমাধান করা যায় না। আপনি চুপ করে থাকুন। সম্পূর্ণ বিষয়টা জেনে (partner is cheating)নিজে এরপর কী পদক্ষেপ করতে পারেন তার পরিকল্পনা করুন।

 

সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসাই শ্রেয়

আপনার পার্টনার যদি আপনাকে চিট করে থাকেন, তবে সেই সম্পর্কে কি আদৌ তিনি ছিলেন? নাকি আপনি একাই সম্পর্ককে বাঁচিয়ে রেখেছিলেন। তা ভেবে দেখুন তো। পৃথিবীর সব জায়গায় জোর চললেও এই সম্পর্ক বা প্রেমে জোরটা ঠিক খাটে না। আপনি আপনার বয়ফ্রেন্ডকে তো তৃতীয় ব্যক্তির থেকে দূরে করে দিতে পারেন। অশান্তি করতে পারেন। কিন্তু তাতে কি আদৌ সমস্যার সমাধান হয়, ভেবে দেখবেন। বরং, আপনি জীবনে একটা শিক্ষা নিলেন। নতুন করে বাঁচার কথা ভাবতে পারবেন। সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসবেন। সেটাই আপনার জন্য ঠিক হবে (partner is cheating)।

সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসাই ভাল

সঙ্গে সঙ্গে সম্পর্ক না ভাঙতে পারলে ধীরে ধীরে দূরে সরে যান

আপনি যেহেতু সম্পর্কটার প্রতি খুবই ডেডিকেটেড, তার কারণে সঙ্গে সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে বেরিয়ে আসা আপনার জন্য সহজ নাও হতে পারে। তাই জন্য আপনাকে ধীরে ধীরে পদক্ষেপ করতে হবে। একটা পরিকল্পনা করুন। ধীরে ধীরে পার্টনারের সঙ্গে সমস্ত যোগাযোগ কমিয়ে ফেলুন। সম্পর্ক থেকে প্রত্যাশা কমিয়ে ফেলুন। এক সময় আপনি সম্পর্ক থেকে এতটাই দূরে চলে যাবেন যে, আপনার আর কষ্ট হবে না।

পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত নিন

এখন যদি আপনি বিয়ের আগের মুহূর্তে জানতে পারেন আপনার পার্টনার আপনাকে চিট করেছে। সেই মুহূর্তে তো আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতেই হবে। তখন আপনাকে অবশ্যই চট জলদি (partner is cheating)সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে আপনি বিয়ে করবেন কি না। সেই সময় আপনার দেরি করার অবকাশ থাকবে না।

নিজেকে বোঝা প্রয়োজন

পার্টনারের সঙ্গে ঝগড়া করবেন না

পার্টনার চিট করছে বলে আপনার রাগ হওয়াই খুব স্বাভাবিক। কিন্তু তাই বলে আপনি পার্টনারের উপর অবশ্যই চিৎকার করবেন না। অশান্তি করবেন না। মনে রাখবেন, এতে আপনার কষ্টের পরিমাণ একাংশ কমে যাবে না। তাই বুঝে শুনে পদক্ষেপ করবেন।

আপনার বিবাহিত সম্পর্ক?

বিয়ে হয়ে গেলে অবশ্যই সম্পর্কের সমীকরণগুলো  (partner is cheating) বদলে যায়। তাই বিয়ের পর যদি দেখেন আপনার বর আপনাকে ঠকিয়েছে। তাহলে পরিবারের সঙ্গে কথা বলে আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলতে হবে।

আরও একটা সুযোগ দেবেন ভাবছেন?

সম্পর্ককে আরও একটা সুযোগ দিতে চান?

সম্পর্ক হয়তো আপনার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই এই ক্ষেত্রে সম্পর্ক রাখায় আপনি বেশি গুরুত্ব দেবেন। আপনি সম্পর্ক ভাঙতে চাইছেন না। এরকম অবস্থায় পার্টনারের সঙ্গে কথা বলুন। তাঁকে জানান, আপনি সবটা জানতে পেরেছেন। তিনি কী প্রতিক্রিয়া দেন তার উপরেই আপনার পরবর্তী সিদ্ধান্ত নির্ভর করছে ।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!                

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!