আপনার জীবনেও এমন কোনও কাকিমা বা মাসিমা আছেন নাকি?

আপনার জীবনেও এমন কোনও কাকিমা বা মাসিমা আছেন নাকি? in bengali

আমাদের সবার পাড়াতেই এক-দু’জন কাকিমা-পিসিমা-মাসিমা (aunties) থাকেন, যাঁরা সিসিটিভির কাজটা করে দেন! বুঝলেন না? পাড়ায় কোন মেয়ে কোন ছেলের সঙ্গে প্রেম করে, অমুক বাবুর বাড়িতে কী সমস্যা, মিসেস দাসের ছেলে বেঙ্গালুরুতে কত টাকা মাইনের চাকরি করে, বসু পরিবারে শাশুড়ি-বউমার মধ্যে কী নিয়ে অশান্তি – এসব খবর আপনি কিন্তু ওই কাকিমার থেকে পেয়ে যাবেন। খেয়াল করে দেখবেন, কাকিমারা সকাল-সকাল চায়ের কাপ হাতে ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে গোটা পাড়ায় নজর রাখেন, আবার সন্ধের দিকেও তাঁদের ওই ব্যালকনিতেই দেখতে পাবেন! এই কাকিমারা যে সবাই ‘খারাপ’ তা কিন্তু নয়, তবে আমাদের মানে পাড়ার অবিবাহিত মেয়েগুলোর জীবন তাঁরা তাঁদের অদ্ভুত অদ্ভুত প্রশ্নে জেরবার করে তোলেন! আপাতদৃষ্টিতে অত্যন্ত ‘নিরীহ’ মনে হলেও কথাগুলো কিন্তু বেশ বিরক্তিকর! কয়েকটা টিপিক্যাল লাইন যেগুলো এঁরা সাধারণত বলে থাকেন, সেগুলো আপনাদের সঙ্গে ভাগ করে নিতে চাই, আপনারা চাইলে আপনারাও আপনাদের ‘কাকিমাদের’ (aunties) সঙ্গে ঘটে যাওয়া অভিজ্ঞতা আমাদের জানাতে পারেন!

১। শোন না, এই ছেলেটার প্রোফাইলটা একবার দ্যাখ তো! আরে বাবা, দেখলেই কি বিয়ে করতে হবে নাকি, আর আমি তো আর বলছি না যে একটা ছেলের সঙ্গে দেখা করেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিতে হবে! দেখা করতে কি সমস্যা?

২। যাঃ! একেও পছন্দ হল না তোর? তুই না বড্ড বেশি নাক-উঁচু। এভাবে কিন্তু বয়স বেড়ে যাচ্ছে। এরপর আর ‘ভাল’ পাত্র পাবি কিনা সন্দেহ!

৩। কী রে তুই! বয়স তো হল, নাকি? বিয়ের বয়স আর কিছুদিনের মধ্যেই পেরিয়ে যাবে! এরপর ভাল ছেলে তো দূরের কথা, ছেলেই জুটবে কিনা কে জানে!

৪। আরে, তোর দিদির গায়ে হলুদ বলে কথা। এরকম একটা সিম্পল শাড়ি কেন পরেছিস? বুদ্ধি কবে হবে তোর? কোন অনুষ্ঠানে কীরকম পোশাক পরতে হয় কবে শিখবি?

৫। এত্ত মেকআপ কেন করেছিস? বাড়িরই তো অনুষ্ঠান! তোর মুখখানা এত মিষ্টি, তোর মেকআপের কি দরকার? আর তা ছাড়া মেকআপ করে স্কিন নষ্ট করিস না। এখনকার ছেলেরা কিন্তু বেশি মেকআপ করা মেয়েদের একদম পছন্দ করে না!

৬। শোন, একটা কথা বলি কিছু মনে করিস না! তোর না একটু রোগা হওয়া দরকার। এরকম গোলগাল চেহারায় ছবি ভাল উঠবে না আর ছেলেরাও পছন্দ করবে না!

৭। হ্যাঁ রে, তুই এসব কী পোশাক পরে অফিসে যাস? (আপনি হয়তো জিন্স-টিশার্ট অথবা প্যান্ট-স্যুট পরেছেন), চুড়িদার বা কুর্তি-লেগিন্স পরতে পারিস না? (কুর্তি-লেগিন্স পরার পর) শোন না, অফিসে না শাড়ি পরে গেলে সম্মান করবে সবাই! শাড়িই ভাল, ওটাই পরে যা।

৮। অ্যাই! ট্যাটু করিয়েছিস!!! (কোমরের ট্যাটু দেখে কাকিমা (aunties) অজ্ঞান!)

৯। মাঝেমধ্যে একটু বেসন আর দুধের সর লাগাবি বুঝলি? স্কিনটা চকচকে হবে। না হলে কে বিয়ে করবে বল?

১০। (যদি আপনি কাকিমার (aunties) কথা শুনে বিরক্ত হয়ে গিয়ে বিয়ে করে ফেলেন তারপরে আসবে ‘এপিক’ ডায়লগ!) কিরে, সুখবর কবে দিবি তোরা?

 

মূল ছবি - অপরাজিতা অপু (জি ফাইভ অ্যাপ)

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!