গ্রীষ্মকালে নানা রোগ-ভোগ দূরে রাখতে সামান্য হলেও গরমজল খান রোজ

গ্রীষ্মকালে নানা রোগ-ভোগ দূরে রাখতে সামান্য হলেও গরমজল খান রোজ in bengali

সাধারণত বলা হয় যে একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের দিনে কমপক্ষে ৬-৮ গ্লাস জল খাওয়া উচিত, কিন্তু একেকসময়ে কম-বেশি হয়েই যায়। আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা দিনে হয়তো ২ থেকে ৩ লিটার জল খান, কিন্তু তবুও তাদের ত্বক, চুল অথবা শরীরের সমস্যা কমে না। শুনতে অবাক লাগলেও আসলে আমরা অনেকেই জানিনা যে কখন কতটা জল খাওয়া উচিত। গরমের মধ্যে আমরা অনেকেই ফ্রিজ থেকে ঠান্ডা জলের বোতল বার করে ঢকঢক করে খানিকটা গলায় ঢালি। কিন্তু ঠান্ডা জল না খেয়ে উষ্ণ জল (Health Benefits Of Drinking Hot Water) খাওয়াটা ভালো। আপনারা হয়তো ভাবছেন যে গরমকালে আমি কেন উষ্ণ জল খেতে বলছি। বলছি কারণ উষ্ণ জল খাওয়ার অনেক উপকারিতা রয়েছে যেটা ঠান্ডা জল খেলে কোনোদিনই পাবেন না।

ন্যাচারাল ডিটক্সিফায়ার

গরমজল খেলে শরীরের টক্সিন দ্রুত বেরিয়ে যায়

আমাদের খাদ্যাভ্যাস আমাদের শরীরে টক্সিন জমানোর জন্য অনেকটাই দায়ী। আমরা অনেকেই ভাজাভুজি, তেল-মশলাযুক্ত খাবার খেতে পছন্দ করি, আবার অনেকেই আছি যারা সঠিক সময়ে খাবার খাই না বা খেলেও সঠিক পরিমানে খাই না – এইসব কারণে কিন্তু শরীরে টক্সিনের মাত্রা অনেকটাই বেড়ে যায়। এছাড়া আজকাল এতো দূষণ এবং অতিদ্রুত লাইফস্টাইল যে তার থেকেও আমাদের শরীরে টক্সিন জমে। আমরা অনেকেই নানা ধরণের ডিটক্স ড্রিঙ্ক খাই, কিন্তু অনেকেই আবার সেগুলো পছন্দ করেন না অথবা তৈরি করার সময়টুকুও পান না। তাদেরকে বলছি, উষ্ণ জল খাওয়া (Health Benefits Of Drinking Hot Water) অভ্যেস করুন। গরমজল শরীরে ঢুকে শরীরের তাপমাত্রা খানিকটা বাড়িয়ে দেয় ফলে ঘাম হয় এবং ঘামের সাথে টক্সিন অনেকটাই বেরিয়ে যায়। 

সাইনাসের সমস্যা? উষ্ণ জল খান

ঠান্ডা লাগলে বা সর্দি কাশিতে গরমজল যে উপকারী (Health Benefits Of Drinking Hot Water) সে কথা আর নতুন করে বলার কিছু নেই। ছোটবেলা থেকেই যখনই ঠাণ্ডা লাগত বাড়ির বড়রা সবসময়েই বলতে উষ্ণ জল পান করতে। মিউকাস দূর করতে উষ্ণ জল সাহায্য করে। ফলে সর্দি বা কাশি অথবা গলা ব্যাথায় তাড়াতাড়ি উপশম হয়।

Beauty

Manish Malhotra Antimicrobial Sanitizing Hand Rub

INR 349 AT MyGlamm

খাবার তাড়াতাড়ি হজম করতে সাহায্য করে

অনেকেই আছেন যারা পরিমানমতো জল খান না, খেয়াল করে দেখবেন তাদের কিন্তু হজমের সমস্যা থাকে। বেশি করে জল না খেলে তার প্রভাব গিয়ে পড়ে আমাদের ক্ষুদ্রান্ত্রে এবগ সেখান থেকেই হয় হজমের সমস্যা। পরিমানমতো জল যখন আপনি খান না, তখন  ক্ষুদ্রান্ত্র শরীরের ভেতর থেকে জল শোষণ করে এবং তার ফলে আমাদের শরীরে ডিহাইড্রেশনের সমস্যা দেখা দেয় এবং পাচনক্রিয়া ঠিকভাবে না হবার ফলে আমাদের সিস্টেম ক্লিন হয় না। বেশিদিন ধরে যদি এরকম চলে তাহলে কিন্তু কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা দেয় এবং গ্যাস ও পেটফাঁপার মতো সমস্যা আরম্ভ হয়। ঠান্ডা জলের পরিবর্তে আপনি যদি উষ্ণ জল খান (Health Benefits Of Drinking Hot Water) তাহলে তা পাচনক্রিয়ায় সাহায্য করে। গরমজল খাবার তাড়াতাড়ি হজম করতে সাহায্য করে ফলে আমাদের সিস্টেম ভালোভাবে ক্লিন হয়ে যায়।

ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে খালি পেতে গরমজল খান

এটা তো জানা কথাই যে ওজন কমানোর জন্য এবং নিয়ন্ত্রণে রাখবার জন্য অনেকেই গরমজল পান করেন। উষ্ণ জল শরীরের মেটাবলিসম বৃদ্ধি করে শরীরের অতিরিক্ত ফ্যাট বার্ন করতে সাহায্য করে। এমনকি অনেক বিশেষজ্ঞের মতে যদি খাবার খাওয়ার আগে ৫০০ মিলি অর্থাৎ প্রায় ২ গ্লাস উষ্ণ জল খাওয়া যায় তাহলে নাকি মেটাবলিসম রেট তুলনামূলকভাবে ৩০% বেড়ে যায় এবং শরীরের অতিরিক্ত মেদ তাড়াতাড়ি ঝরাতে সাহায্য করে। সকালে ঘুম থেকে উষ্ণ জলে (Health Benefits Of Drinking Hot Water) একটা গোটা পাতিলেবুর রস মিশিয়ে নিয়মিত পান করলে অতিরিক্ত মেদ ঝরে যায় এবং ওজনও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!