বাড়িতেই রং করা চুলের যত্ন নিন এইসব প্রাকৃতিক উপায়ে

বাড়িতেই রং করা চুলের যত্ন নিন এইসব প্রাকৃতিক উপায়ে

এই সময়ে চুলে রং করা এক অন্যতম স্টাইল স্টেটমেন্ট হয়ে উঠেছে। দেখতে ভাল লাগে অবশ্যই, কিন্তু চুলের খুব ক্ষতিও হয় অবশ্যই। তার প্রধান কারণ রাসায়নিক ব্যবহার এবং যত্নের অভাব। ব্লিচ করার কারণে চুলের আসল রংও চলে যায়। অনেক সময়ে চুল নির্জীব হয়ে পড়ে।

চুলে রাসায়নিক ব্যবহারের কারণে চুলের সাধারণ ময়শ্চার হারায়, কোমল চুল রুক্ষ হয়ে ওঠে। ডগা চেরা চুল চুলের স্বাস্থ্য আরও থারাপ করে দেয়। তখন চুল ভাল রাখার জন্য বা চুল বাঁচানোর জন্য চুল কেটে ফেলতে হয়।

বাড়িতেই যত্ন নিন চুলের

আমরা অনেকেই এই সমস্যার মুখোমুখি হই। হয়তো কারও চুল রুক্ষ হয়ে গিয়েছে, প্রাকৃতিক তেল হারিয়েছে, আর্দ্রতা নেই, কিউটিকল ড্যামেজ হয়েছে। চুলের প্রাকৃতিক জেল্লা হারিয়ে যায় এবং নির্জীব হয়ে পড়ে। আর এই সবকে রুখে দেওয়ার জন্য প্রধান পথই হল চুলের যত্ন নেওয়া। প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যেই চুলের যত্ন  (keep dyed hair) Healthy নেওয়া সম্ভব। বাড়িতে রং করা চুলের যত্ন নিন এই প্রাকৃতিক উপাদানগুলির সাহায্যে।

Beauty

Makeup Blender

INR 700 AT MyGlamm

চুলের প্রয়োজন বাড়তি আর্দ্রতা

আপনার যদি চুলে রং করার প্রয়োজন হয়, আপনার চুলের আর্দ্রতা বজায় রাখার জন্য অতিরিক্ত যত্ন করতেই হবে। এমনকী ব্লো ড্রাই এবং স্ট্রেটনিংয়ের মতো বিষয়কেও এড়িয়ে যেতে হবে। বাজারচলতি প্রাকৃতিক রংও কিনতে পারেন চুলের রং করার জন্য।

হোয়াইট বাটার চুলে এবং স্ক্য়াল্পে মাসাজ করা অভ্যাস করবেন। এতে আপনার চুলের আর্দ্রতা বজয়া থাকবে। এই মাসাজ করার পর ৩০ মিনিট একটি শাওয়ার ক্যাপ পরে থাকতে পারেন। তারপর শ্যাম্পু (keep dyed hair)করে ফেলবেন। দুইবার শ্যাম্পু করতে পারেন যাতে ভাল করে মাথা ধুয়ে নিতে পারেন। এটি আপনার চুলে ম্যাজিকের মতো কাজ করে। অতিরিক্ত আর্দ্রতা এবং জেল্লা দেয়।

Beauty

LIT Liquid Matte Lipstick - OTP

INR 395 AT MyGlamm

চাল ধোওয়া জল বা রাইস ওয়াটার রিন্স

চুলের যত্নে এই পদ্ধতি অনেক পুরনো। আপনি জলে চাল ভিজিয়ে রাখবেন। সেই জল চুল ধোওয়ার জন্য ব্যবহার করবেন। সপ্তাহে অন্তত একবার ব্যবহার করলেও আপনি চুলে খুবই উপকার পাবেন। এতে আপনার চুলের ড্যামেজ সারিয়ে দেবে এবং গোড়া থেকে চুলে পুষ্টি (keep dyed hair)জোগাবে।

আপনি কীভাবে যত্ন নেবেন

ট্র্যাডিশনাল হেয়ার অয়েল

নারকেল তেল ছাড়া আমন্ড অয়েল, সানফ্লাওয়ার অয়েল এবং অলিভ অয়েল ব্যবহারের পরামর্শও দেন বিশেষজ্ঞরা। চুলে রং করার জন্য চুলের যে ক্ষতি হয়, তা ঠিক করার জন্য এই তেলগুলির মুখ্য ভূমিকা আছে। কারণ প্রতি তেলেই আছে ভিটামিন ই এবং অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টস যা চুলের ড্যামেজ সারিয়ে তোলে এবং চুলের বাইরে আর্দ্রতার একটি আস্তরণ তৈরি করে।

এক টেবিল চামচ নারকেল তেল, আমন্ড অয়েল, সানফ্লাওয়ার অয়েল বা অলিভ অয়েল নেবেন। তা সামান্য গরম করে নেবেন। তার সঙ্গে মিশিয়ে নিন ক্যাস্টর অয়েল। এবং চুলের উপর থেকে নীচ পর্যন্ত ও স্ক্যাল্পে ভাল করে মাসাজ করবেন। একটি তোয়ালে দিয়ে জড়িয়ে রাখবেন। ৩০ থেকে ৪০ মিনিট রাখবেন(keep dyed hair), সারা রাতও রাখতে পারেন। তারপর চুলে শ্যাম্পু করে ফেলুন। এটি আপনার চুলকে আরও মজবুত করবে এবং প্রাকৃতিক জেল্লা বজায় রাখবে।

মূল ছবি - ইনস্টাগ্রামপেক্সেলস

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!