আবার ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন? অফিসের পোশাকগুলো যত্নে রাখুন

আবার ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন? অফিসের পোশাকগুলো যত্নে রাখুন

করোনার দ্বিতীয় ঢেউকে সামাল দিতে যদিও এখনও লকডাউনের ঘোষণা করা হয়নি কিন্তু বেশ কিছু নির্দেশ জারি করেছে রাজ্য। সরকারি ও বেসরকারি অফিসগুলোতে ৫০ শতাংশ হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। করোনার প্রকোপ কমার পরেই অনেক অফিস ওয়ার্ক ফ্রম হোমের বদলে আবার অফিসে থেকেই কাজ শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। তাই অফিসে ফিরেছিলেন কর্মীরা। আমাদের মধ্য়ে অনেকেই যাঁরা দীর্ঘদিন ওয়ার্ক ফ্রম হোম করেছেন, তাঁরা অফিসের পোশাক (care of your office clothes) আলমারি থেকে বের করে পরেছিলেন।

যত্নে রাখুন জামা কাপড়

বেশ খুশিই ছিলাম সবাই। কারণ অফিসে যাওয়ার জন্য আমরা সস্তায় সুন্দর কয়েকটি জামা কিনেই রাখি। তবে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভয়াবহ হতেই আবার ব্যাক টু প্যাভিলিয়ন। তাই সেই সব পোশাককে আবার আলমারিতে তুলে রাখার পালা। তাহলে সেই সব পোশাকের তো একটু যত্ন নিতে হবে। কীভাবে যত্ন(care of your office clothes) নেবেন, সেই পরামর্শ দিলাম আমরা।

কেচে নিন

যে কুর্তা বা অন্যান্য পোশাক আপনি এতদিন পরেছেন, সেগুলো ভাল করে কেচে নিন। সুতির জামা হলে জলে হালকা ডিটারজেন্ট মিশিয়ে কেচে নেবেন। কেচে নেওয়ার পর রোদে শুকিয়ে নেবেন। রঙিন পোশাক হলে সামান্য ছায়ায় শুকিয়ে নেওয়াই ভাল।

কোনও কোনও পোশাক যেগুলো সামান্য গরম জলে ধুয়ে নেওয়া যায়, সেগুলো সেভাবেই ধুয়ে নেবেন। আর যেগুলো বেশি ঘষে কাচা যাবে না, সেগুলোও সেভাবে কাচবেন। প্রতিটা পোশাকের নিয়ম অনুযায়ী পোশাক কেচে নেবেন।

যে শাড়ি বা একটু দামি জামা আপনি কখনও বাড়িতে কাচেননি। এখনও সেইগুলো বাড়িতে কাচবেন না। লন্ড্রি ওয়াশে পাঠিয়ে দেবেন। লন্ড্রি থেকে ফেরার পর বাইরেই রেখে দেবেন। এক সপ্তাহ পরে আলমারিতে তুলবেন (care of your office clothes)।

রোদে দেবেন

কোনও কোনও পোশাক হয়তো কাচার প্রয়োজন নেই। কিন্তু সেই পোশাক দীর্ঘদিন আলমারিতে রেখে দেবেন না। শাড়ি বা অন্যান্য পোশাকের ক্ষেত্রে সেগুলি সামান্য রোদে দিয়ে নেবেন। দুই সপ্তাহে অন্তত একবার রোদে দেবেন, এতে আপনার পোশাকে ফাঙ্গাস হওয়ার সম্ভাবনা কমে যাবে।

ভাঁজ বদলান

দীর্ঘদিন একই ভাঁজে পোশাক রেখে দেবেন না। প্রয়োজন অনুসারে বের করে নিন। এবং আয়রন করে রাখুন। ভাঁজ বদলে আবার আলামিরতে তুলে দেবেন। শাড়ির ক্ষেত্রেও যদি সেটি হ্যাঙারে ঝুলিয়ে রাখতে পারেন, খুবই ভাল হয়। বিশেষত সিল্কের শাড়ি ও পোশাকের ক্ষেত্রে এই নিয়ম মেনে চলবেন (care of your office clothes)।

কীটনাশক

আলমারি সব সময় বন্ধ থাকে। হাওয়া বাতাস খেলে না। তাই আলমারিতে কীটনাশক দিয়ে রাখা খুবই প্রয়োজন। একটা কাপড়ের মধ্যে নিম পাতা শুকনো কিংবা ন্যাপথেলিন বেঁধে রেখে দেবন। এতে ফাঙ্গাস হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকবে। মাসে একবার আলমারি গোছাবেন। জামাকাপড় বের করে ফাঁকা করে রাখবেন আলমারি। তারপর আবার আলমারি গুছিয়ে বন্ধ করে রাখবেন।

যত্নেই পোশাক ঠিক থাকবে

সত্যি কথা বলতে আমাদের প্রায় সবারই বাড়ি থেকে বের হওয়া বন্ধ হয়ে গিয়েছে। তাই নয় কী। তাই পছন্দের পোশাক যদি কখনও কখনও বের করে নিজেই বাড়িতে পরতে পারেন, তাতে তো কোনও অসুবিধা নেই। বরং আপনার মনও ভাল থাকে আর ভাল থাকে আপনার পোশাকও।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!   

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!