জর্জেট থেকে কাতান, নানা অনুষ্ঠানে বেনারসি পরুন! কীভাবে হল এই জনপ্রিয় শাড়ির উথ্থান

জর্জেট থেকে কাতান, নানা অনুষ্ঠানে বেনারসি পরুন! কীভাবে হল এই জনপ্রিয় শাড়ির উথ্থান

বেনারসি শুনলেই প্রথম বিয়েবাড়ির কথাই মনে পড়ে। বিয়ের কনের সাজের কথা মনে হয়। অনেকেই বিয়ের বেনারসি পরে কোনও বিশেষ মানুষের বিয়ের অনুষ্ঠানে আবার পরেন। এছাড়াও অনেকের কাছেই বেনারসি একটি ইমোশন ও নস্টালজিয়া। বাঙালি পরিবারে বিয়ের সঙ্গে বেনারসি এভাবেই অনুভূতি ও আবেগে জড়িয়ে আছে। কিন্তু সেই আবেগের বন্ধন থেকে বেরিয়ে এসে আমরা যদি দেখি, তবে বুঝব...

বেনারসি মানে শুধু বিয়ের সাজ নয়। কনের শাড়ি নয়। সিল্কের বেনারসি ছাড়াও আরও অনেক ধরনের বেনারসি হয়। যা আপনি বেছে নিয়ে অন্যান্য অনুষ্ঠানে পরতে পারেন (banarasi of different shades) । আর এই ধরনের বেনারসি পরলে আপনাকে দেখতেও সুন্দর লাগবে। আপনার সাজও হবে অন্য়রকম। 

কী ধরনের বেনারসি আপনি পরতে পারেন, তার কয়েকটি পরামর্শ অবশ্যই আপনাকে দেব। কিন্তু তার আগে আসুন জেনে নিই বেনারসির ইতিহাস কী (banarasi of different shades) ? কোথায় উত্থান কারাই বা প্রথম তৈরি করলেন। 

শোনা যায়,বেনারসি শাড়ি প্রথম তৈরি হয় বেনারসে। তাঁতেই বোনা হয় এই শাড়ি। এর কারিগররা তাঁতি। সেই সময় বেনারসের বেশিরভাগই ছিলেন মুসলিম তাঁতি। কিন্তু ঠিক কবে থেকে তাঁরা বেনারসি শাড়ি তৈরি করে আসছেন তা জানা যায়নি। কয়েকটি গল্প শোনা যায়। যেমন, তাঁতিদের পূর্বপুরুষরা ছিলেন আনসারী। ইসলাম ধর্মের প্রবর্তক হজরত মহম্মদ মক্কা থেকে মদিনায় যাওয়ার সময়ে আনসারী সম্প্রদায়ের কাছে আশ্রয় নেন। পরবর্তীতে তাঁরা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন এবং এর প্রচারেও অংশ নেয়। মনে করা হয়, বেনারসের অধিকাংশ তাঁতিই সেই আনসারী সম্প্রদায়ের লোক ছিলেন।

 

বেনারস থেকে বাংলায় আসা... বিয়ের শাড়ি হয়ে ওঠা

১৯৪৭ সালে দেশভাগের সময় বেনারস থেকে প্রায় ৩০০টি মুসলিম তাঁতি পরিবার তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে চলে যায়। তারা মূলত ঢাকার মিরপুর ও পুরনো ঢাকায় বাস করতে শুরু করে। পূর্ব পাকিস্তানে যাওয়ার পরেও তাঁরা তাঁদের পেশায় নিযুক্ত থাকেন। ডিজাইন, রুচি এবং নিপুণ বুননের কারণে বাংলাদেশসহ অন্যান্য দেশেও ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে তাঁদের শাড়ি (banarasi of different shades) । স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে স্থানীয়রাও এই কাজে যোগদান করেন। আস্তে আস্তে তাঁতির সংখ্যা বাড়তে থাকে, সেই সময় কারখানাগুলো পুরনো ঢাকা থেকে সরিয়ে মিরপুরে নিয়ে আসা হয়। যেভাবে দেশ ভাগের পর এপার এবং ওপার বাংলার সংস্কৃতি, খাদ্যচর্চা, স্টাইল আদানপ্রদান হয়েছে। সেভাবেই বেনারসিও জনপ্রিয়তা পেয়েছিল এপার বাংলায়। কেমন লাগল বেনারসির ইতিহাস? 

তবে বেনারসি শুনলেই এখনও সবাই কয়েকটি রঙের কথাই বেশি মনে করেন। যেমন লাল, বেগুনি, আকাশি, জাম ও অন্যান্য। এই রঙের বাইরেও কিন্তু বেনারসির রং হয়।

আমাদের পছন্দের কয়েকটি বেনারসির হদিশ রইল আপনার জন্য

জর্জেট বেনারসি

কোনও পার্টিতে পরে যাওয়ার জন্য শাড়ির খোঁজ করছেন আপনি? একটু আধুনিক সাজ ক্যারি করতে চাইছেন। কিন্তু শাড়ি পরেই সেই লুক কীভাবে নিয়ে আসা যায়, সেই কথাই ভাবছেন তো। আপনি বেছে নিন গাঢ় রঙের জর্জেট বেনারসি (banarasi of different shades) । আপনি কালো বা গাঢ় নীল রঙের জর্জেট বেনারসি বেছে নিতে পারেন। বেশ ভাল লাগবে। সঙ্গে পরুন অক্সিডাইজের গয়না। আপনাকে সবার থেকে আলাদা দেখাবেই!

পটোলা বেনারসি

এই শাড়ি কিন্তু পাওয়া একটু মুশকিল। সহজেই আপনি যে কোনও দোকানে এই বেনারসি পাবেন না। কারণ পটোলা সিল্কে বেনারসি বিষযটিই নতুন। কিন্তু দেখতে যেমন সুন্দর, একইসঙ্গে হালকাও। তাই পরেও সুবিধা হয়। তবে বেছে নিন হালকা কোনও রং। সাদা বা অফ হোয়াইট বেছে নিতে পারেন। এরইসঙ্গে গাঢ় রঙের গেলাস হাতা ব্লাউজ পরুন। ড্রেপিংয়ে একটু অন্য কায়দা করতে পারেন আর না হলে সাধারণ ভাবেও পরতে পারেন। সোনার গয়না বা মুক্তোর গয়না ট্রাই করুন। খুব সুন্দর দেখাবে।

নানা শেডের কাতান বেনারসি

আমার মা কিন্তু এই শাড়ির কথা প্রায়ই বলেন। কাতান বেনারসি। আপনি মায়েদের মুখে এই শাড়ির কথা শুনে থাকবেন। তবে মাল্টি শেড বিষয়টি নতুন। হালকা ও গাঢ় রঙের কনট্রাস্টে এই শাড়ি তৈরি হয়। এই শাড়ি বেশ জমকালো। তাই শাড়ি পরলে সাজ একটু হালকা রাখাই ভাল। কানপাশা পরতে পারেন, হাতে বালা পরুন। আপনার সাজই হবে অন্যরকম।

ছোট মোটিফ

আধুনিক সাজ চাইছেন, অথচ চাইছেন আপনার ট্রাডিশনাল লুকও বজায় থাকুন। তবে এই ধরনের শাড়ি বেছে নিন। আসমানি নীল, হালকা গোলাপি বা পেস্তা রঙের শাড়ি বেছে নিতে পারেন। এই শাড়ির মোটিফে আছে বেনারসির ছোঁয়া (banarasi of different shades) । বেনারসি আপনাকে ট্রাডিশনাল লুক দেবে। তাই আপনাকে ব্লাউজে ও মেকআপে আধুনিক ছোঁয়া রাখতেই হবে। এর সঙ্গে পরুন স্লিভলেস ব্লাউজ। চুল টেনে বাঁধবেন। গাঢ় কাজল পরুন। চোকার ট্রাই করতে পারেন। খুব সুন্দর দেখাবে আপনাকে।

চান্দেরি বেনারসি

চান্দেরি বেনারসি বেশ কয়েক বছর ধরেই খুবই জনপ্রিয়। দামও তুলনামূলক কম হয়। আর এই বেনারসি পরে আপনি যে কোনও পার্টিতে যেতে পারেন। এমনকী সন্ধ্যায় কোনও ছোট পার্টির আয়োজন করা হলে, সেখানেও এই ধরনের বেনারসি পরে যেতে পারেন। সামলাতে সুবিধা হয় এই শাড়ি। প্যাস্টেল শেড ট্রাই করতে পারেন। হালকা সাজ রাখবেন। খোঁপা করে বেল কিংবা জুঁইয়ের মালা লাগাতে পারেন। খুব ভাল দেখাবে।

মূল ছবি- ইনস্টাগ্রাম

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!