চুল পড়ার সমস্যায় নাজেহাল? সমস্যা সমাধান করবে কারি পাতা

চুল পড়ার সমস্যায় নাজেহাল? সমস্যা সমাধান করবে কারি পাতা

চুল পড়ার সমস্যায় বুঝি আপনিও নাজেহাল? কথা নেই বার্তা নেই, চুল আঁচড়ানোর সময়ে বা স্নান করার সময়ে এত এত চুল উঠে এল! তবু এখানে আপনাকে প্রথমেই জানিয়ে রাখি, দিনে ১০০টা চুল পড়াও কিন্তু স্বাভাবিক। এর থেকেও যদি আপনার বেশি চুল পড়ে, তখন তো আপনাকে একটু চিন্তিত হতেই হবে। আসলে চুল পড়ার অনেক কারণ থাকে। কিন্তু প্রধান কারণ হল, চুলের ফলিকল নষ্ট হয়ে যাওয়া। স্ক্যাল্পের তৈলাক্ত ভাব, দূষণ, ধুলো ও অন্যান্য কারণে তা হতে পারে। কিন্তু ফল চুল দুর্বল হয়ে উঠে আসা। আপনি কি জানেন, আপনার রান্না ঘরেই এমন উপাদান আছে যার সাহায্যে খুব সহজেই এই সমস্যার সমাধান সম্ভব। হ্যাঁ। আমাদের সবার হেঁশেলেই কম বেশি কারি পাতা ব্যবহার (curry leaves) করা হয়। সেই কারি পাতা কিন্তু আপনার চুলের যত্নে কারি পাতা দারুণ কার্যকরী। আসুন জেনে নিই চুলে কারি পাতার গুণাবলী কী কী।

কারি পাতার গুণ

  • কারি পাতায় (curry leaves) প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট রয়েছে। যা স্ক্যাল্পের আর্দ্রতা বজায় রাখে। এবং মৃত ফলিকলকে সরিয়ে দেয়।
  • প্রোটিন ও বিটা ক্যারোটিন আছে। যা আপনার চুল পড়া কম করে এবং চুল পাতলা হয়ে যাওয়া আটকায়।
  • অ্য়ামিনো অ্যাসিড আছে কারি পাতায়, যা চুলের ফলিকলকে মজবুত ও চুলের স্বাস্থ্য ভাল রাখে।চুলের যত্নে কারি পাতা ব্যবহার করবেন তো?
সুন্দর চুলের জন্য কারি পাতা ব্যবহার করুন

কীভাবে ব্যবহার করবেন কারি পাতা

কারি পাতার হেয়ার টনিক

বেশ কয়েকটি কারি পাতা নিন (curry leaves) । একটি পাত্রে তিন টেবিল চামচ নারকেল তেল দিন। নারকেল তেল গরম করবেন। এর মধ্যে সেই কারি পাতাগুলো দিয়ে দেবেন। ফুটে গিয়ে নারকেল তেলে সবুজ রং ধরলে গ্যাস বন্ধ করে দেবেন। এরপর তেল ঠান্ডা করে নেবেন। ঠান্ডা হলে ছেঁকে নেবেন এবং একটি কাচের শিশির মধ্যে ভরে রাখবেন। তারপর মাথায় মাসাজ করে নেবেন। চুলের গোড়ায় ভাল করে তেল দেবেন। এক ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন। সপ্তাহে তিনবার এই টনিক আপনি ব্যবহার করতে পারেন।

আপনার কারি পাতায় কোনও অ্যালার্জি আছে কি না সেটি আগে দেখে নেবেন। তার জন্য সামান্য পরিমাণ টনিক নিয়ে স্ক্যাল্পের একটি ছোট অংশে লাগিয়ে দেখবেন। যদি জ্বালা করে সঙ্গে সঙ্গে ধুয়ে ফেলবেন ও চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। আর যদি কোনো সমস্যা না হয়, তবে অসুবিধা নেই।

 

Beauty

Makeup Blender

INR 700 AT MyGlamm

কারি পাতার মাস্ক

বেশ কয়েকটি কারি পাতা নিন। সেটি ব্লেন্ড করে নেবেন। সেই মিশ্রণের সঙ্গে মিশিয়ে দেবেন তিন চামচ টক দই। এরপর সেই ঘন মিশ্রণটি মাথায় মেখে নিন। আধ ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলবেন। শ্য়াম্পু করে নেবেন। এই মাস্ক আপনি সপ্তাহে একবার ব্যবহার করতে পারেন।

দই স্ক্যাল্প ক্লিনজার। এটি আপনার স্ক্যাল্পকে পরিষ্কার করে ও আর্দ্র রাখে। কারি পাতা আপনার ফলিকলকে মজবুত করে। আর চুল অকালে সাদা হয়ে যাওয়াও আটকায়।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!