বর্ষায় রোজ কর্পূর জ্বালানো বা নিম জলে ঘর মোছা - রইল দরকারি পাঁচটি 'মনসুন' বাস্তু টিপস

বর্ষায় রোজ কর্পূর জ্বালানো বা নিম জলে ঘর মোছা - রইল দরকারি পাঁচটি 'মনসুন' বাস্তু টিপস in bengali

বাস্তু শাস্ত্রে বর্ষাকালকে (vastu tips to be lucky in monsoon) বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। কারণ, প্রাচীন এই শাস্ত্র মতে, বছরের এই সময়ে নানা কারণে বাড়ির অন্দরমহলে খারাপ শক্তির প্রভাব কমতে শুরু করে, যে কারণে নাকি সুখ-সমৃদ্ধির ছোঁওয়া লাগে পরিবারে। এমনকী, হঠাৎ করে কোনও দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কাও আর থাকে না। আর যদি এই টিপসগুলি মেনে চলতে পারেন, তা হলে তো কথাই নেই! তাতে নাকি টাকা-পয়সা সংক্রান্ত নানা ঝামেলা তো মিটে যায়ই, সেই সঙ্গে বৈবাহিক জীবনে কোনও ধরনের অশান্তি মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার আশঙ্কাও আর থাকে না। কিন্তু প্রশ্ন হল, এত সব উপকার পেতে কী-কী বাস্তু নিয়ম মেনে চলতে হবে, সে সম্পর্কে জানা আছে কি? জানা না থাকলে জেনে নিন আমাদের কাছ থেকে।

বর্ষা আসার আগেই বাড়িতে লাগিয়ে ফেলুন লাকি ক্লোভার

সৌভাগ্যের দরজা খুলতে বেশি সময় লাগবে না

এমন আজব উপদেশ (vastu tips to be lucky in monsoon) কেন, তাই ভাবছেন নিশ্চয়ই? একটি বোঁটায় চারটি পাতাওয়ালা এই বিশেষ গুল্মটির ইংরেজি নাম হল Clover। যে-কোনও নার্সারিতেই কিনতে পাবেন এই ধরনের গাছ। বাস্তু শাস্ত্র মতে, বর্ষাকালে বাড়ির সদর দরজার সামনে, নয়তো কোনও জানলার কাছাকাছি যদি চারটে পাতা রয়েছে এমন গুল্মজাতীয় গাছ ঝুলিয়ে রাখা যায়, তা হলে নাকি খারাপ সময় কেটে যেতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে অর্থনৈতিক উন্নতি লাভের সম্ভাবনাও বাড়ে। মিটে যায় টাকা-পয়সা সংক্রান্ত নানা ঝামেলাও।

প্রতিদিন বাড়িতে কর্পূর জ্বালান

সারা বর্ষাকাল জুড়ে সকাল-বিকাল কর্পূর জ্বালালে নেগেটিভ শক্তি আপনার পরিবারের ধারে-কাছেও ঘেঁষতে পারবে না। বরং শুভ শক্তির মাত্রা এতটাই বেড়ে যাবে যে, তার প্রভাবে কোনও ধরনের রোগ-ব্যাধির খপ্পরে পড়ার আশঙ্কা যেমন কমবে, তেমনই পারিবারিক সুখ-শান্তি বিঘ্নিত হওয়ার আশঙ্কাও আর থাকবে না।

দরজা-জানালা বন্ধ করে রাখবেন না

তবে মুষলধারে বৃষ্টির সময় ভুলেও দক্ষিণ-পূর্ব এবং দক্ষিণ-পশ্চিম দিকের জানলা বা দরজা খুলে রাখা উচিত নয়

বাস্তু বিশেষজ্ঞদের মতে, বৃষ্টির সময় যদি বাড়ির উত্তর-পূর্ব দিকের জানলা-দরজা খুলে রাখা যায়, তা হলে অন্দর মহলে শুভ শক্তির প্রভাব বাড়তে শুরু করে। ফলে খারাপ সময় কেটে যেতে সময় লাগে না। সঙ্গে 'গুড লাক' রোজের সঙ্গী হয়ে ওঠে। ফলে কর্মক্ষেত্রে সাফল্য লাভের (vastu tips to be lucky in monsoon) সম্ভাবনা বাড়ে। তবে মুষলধারে বৃষ্টির সময় ভুলেও দক্ষিণ-পূর্ব এবং দক্ষিণ-পশ্চিম দিকের জানলা বা দরজা খুলে রাখা উচিত নয়। তাতে খারাপ শক্তির প্রভাব বাড়ে। আর এমনটা হলে কী-কী ক্ষতি হতে পারে, তা নিশ্চয়ই আর বলে দিতে হবে না!

পেস্ট কন্ট্রোল করিয়ে নিন

বর্ষা আসার আগে রান্নাঘর এবং বাথরুমের সঙ্গে যে-যে ড্রেনের যোগ রয়েছে, সেখানে যদি পেস্ট কন্ট্রোল করানো আবশ্যিক। বিশেষত, খারাপ শক্তির প্রভাবে কোনও ধরনের বিপদ ঘটার আশঙ্কা আর থাকে না। কিন্তু পেস্ট কন্ট্রোলের সঙ্গে খারাপ শক্তির সম্পর্কটা ঠিক কোথায়? বাস্তু বিশেষজ্ঞদের মতে, বর্ষাকালে বাড়ির ভিতরে যত বেশি করে পোকা-মাকড়ের প্রবেশ ঘটবে, তত নাকি নেগেটিভ শক্তির মাত্রা বাড়তে থাকবে। পাল্লা দিয়ে বাড়বে নানা বিপদ ঘটার আশঙ্কাও। তাই বর্ষার আগে পেস্ট কন্ট্রোল করিয়ে নিতে ভুলবেন না যেন!

নিমাপাতাযুক্ত জলে ঘর মুছুন

নেগেটিভ শক্তি বাড়ির বাইরে যাবে এভাবেই

বর্ষাকালে নিম পাতা ভেজানো জলে দিয়ে নিয়মিত ঘর মুছলে নানা রোগের প্রকোপ তো কমবেই, সঙ্গে খারাপ শক্তির প্রভাব কমতেও (vastu tips to be lucky in monsoon) সময় লাগবে না। ফলে বিপদ ঘটার আশঙ্কা কমবে।

একটু ভেবে দেখবেন, এই সব ব্যাপারগুলি সম্বন্ধে আমাদের এমনিতেই সাবধান থাকা উচিত বর্ষার সময়! কিন্তু কোনও কিছু ঘাড় ধরে না শেখালে তো আমরা মানতে চাই না, তাই বাস্তু শাস্ত্রের আশ্রয় নেওয়া আর কী!

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!