নতুন বাবা, মায়েরা কীভাবে সব সামাল দেবেন? পেরেন্টিং টিপস রইল আপনার জন্য

নতুন বাবা, মায়েরা কীভাবে সব সামাল দেবেন? পেরেন্টিং টিপস রইল আপনার জন্য

প্রেগনেন্সির সময়ে এমনিই মেয়েদের শরীরে অনেক পরিবর্তন হয়। হরমোনের বেশ কিছু পরিবর্তন হয়। মানসিক স্বাস্থ্য ও শরীরেও পরিবর্তন হয়। এরপর একটি শিশু জন্মানোর পরেই নতুন বাবা, মায়ের উপর বড় দায়িত্ব এসে পড়ে। এই দায়িত্বতে তাঁরা একদমই নতুন। তাই কী করবেন, কীভাবে বিষয়টি সামাল দেবেন, সেই নিয়ে চিন্তা থাকেই।

এতদিন অফিসের কাজ সামলেছেন কিন্তু একটি শিশু জন্মানোর পর তাকে কখন ওষুধ দিতে হবে তাকে কখন খাওয়াতে হবে, কখন স্নান করাতে হবে সেই নিয়ে তো নানারকম চিন্তা হতেই থাকে। বাচ্চাটি কেন কাঁদছে তা বুঝতেই মাথার ঘাম পায়ে ফেলতে হয়। যাই হোক, সব কিছু সামাল দিতে গিয়ে ল্যাজে গোবরে হন নতুন বাবা, মায়েরা। কিন্তু এই পরিস্থিতিও সামাল দেওয়া সম্ভব। যদি একটু বুদ্ধি করে বা একটি পরিকল্পনা করে চলতে পারেন (tips for new parents)।

শিশুর সঙ্গে প্রতি মুহূর্ত উপভোগ করবেন

নতুন বাবা, মায়েদের জন্য টিপস

সন্তানের কাছে একজন থাকবেন সব সময়

দুই জন যদি সন্তানের কাছে থাকতে পারেন তবে খুবই ভাল। কিন্তু দুইজনের একসঙ্গে সময় হয় না। কাউকে বাড়ির অন্য়ান্য কাজ করতে হয়, বাবার উপরে হয়তো অফিসের চাপ থাকে। তাই কে বাচ্চাকে কতটা সময় দিচ্ছে, কেনই বা দিচ্ছে না সেই নিয়ে নিজেদের মধ্যে সমস্যা তৈরি হয়। তাই এই পরিস্থিতি আসার আগে নিজেরাই একটি পরিকল্পনা করে নিন। একজন বাড়ির কাজ করলে সেই সময় অন্যজন বাচ্চার সামনে বসেই অফিসের কাজ করতে পারেন। এভাবে সামাল দেওয়া সম্ভব। একজন বাচ্চাটিকে সামলে নিলে সেই সময় অন্যজন অন্য় কিছু কাজ করে নিতে (tips for new parents)পারেন। বা নিজের জন্যেও কিছু ফ্রি টাইম পেতে পারেন। মোট কথা খেয়াল রাখতে হবে, একজন যেন সব সময় বাচ্চার সঙ্গেই থাকেন। প্রয়োজনে একজন পরিচারিকা রাখতে পারেন আপনি।

শিশুর সঙ্গে প্রতি মুহূর্ত উপভোগ করুন

জানি, এই সময় অনেক কাজ বেড়ে যায়। বাচ্চার জামাকাপড় কাচতে হয়। ডায়পার বদলাতে হয়। কাঁথা বদলাতে হয়। এইসবের মধ্য়ে মাঝেমাঝে বিরক্তও লাগে। কিন্তু মাথা ঠান্ডা রাখুন। মনে রাখবেন, এই সময়টুকু ভীষণ সুন্দর। সন্তান বড় হয়ে গেলে তখন তার শৈশবের দিনগুলো মনে পড়ে। তাই অবশ্যই শিশুর সঙ্গে প্রতি মুহূর্ত উপভোগ করুন। কাজের চাপে নিজেকে হারিয়ে ফেলবেন না।

 

সন্তানকে একটু একটু করে বুঝুুন

সন্তানকে চিনুন

একজন শিশু জন্মানোর পরেই সব শিখে যায় না। বাবা, মায়েরা তাদের একটু একটু করে সব শেখায়। কিন্তু বাবা, মায়েদের শেখানোর আগে শিশুদের চিনে নেওয়া প্রয়োজন। কী করলে শিশুটি হাসছে, কোন কাজটি শিশুটি পছন্দ করছে সেগুলি বুঝুন। কী করলে শিশুটি কান্নাকাটি করছে (tips for new parents), কোন কোন সময় সে কাঁদছে সেগুলোও লক্ষ্য করুন। এভাবে একটু একটু করে আপনার শিশুকে চিনে নিন। দেখবেন ভাল কাটবে আপনার সময়।

নিজের খেয়াল রাখুন

সন্তানের যত্ন নিতে নিতে নিজের খেয়াল নেওয়া হয় না। কিন্তু মনে রাখবেন আপনার নিজের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চলুন। নিজের জন্য আধ ঘণ্টা হলেও সময় রাখুন। নিজের ওষুধ ঠিকঠাক খান। স্বাস্থ্যকর ডায়েট মেনে চলুন। পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খান। ব্যায়াম করুন। পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমও কিন্তু আপনার প্রয়োজন। আপনি সুস্থ থাকলেই কিন্তু শিশুও সুস্থ থাকবে।

 

একে অপরকে সময় দিন

শিশুর জন্য সময় দিতেই হবে নতুন বাবা ও মা'কে। কিন্তু তাই বলে শিশুকে নিয়েও এতটাই ব্যস্ত হয়ে যাবেন না যে, নিজের জন্য় একটু সময় বের করতে পারলেন না। নিজেরা সময় কাটান। শিশু যখন ঘুমিয়ে পড়েছে তখন নিজেরা মুহূর্ত উপভোগ করুন। কখনও পরিচারিকা বা বাড়ির অন্য় সদস্যের কাছে রেখে দু'জনে একটু হেঁটেও আসতে পারেন। প্রকৃতির মধ্য়ে সময় কাটালে সম্পর্কও সবুজ থাকবে। সবাই সুস্থ থাকুন, প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করুন (tips for new parents)।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!