পেরেন্টিং টিপস: আপনার সন্তান মিথ্যে কথা বলছে কি না বুঝবেন কীভাবে?

আপনার সন্তান মিথ্যে কথা বলছে কি না বুঝবেন কীভাবে? in bengali

প্রত্যেকটি মানুষকে কোনও না-কোনও সময় মিথ্যের আশ্রয় নিতে হয়। আপনার সন্তানও তার ব্যতিক্রম নয়। মা হিসেবে সেটা মেনে নিতে সমস্যা হলেও, সেটাই সত্যি। সন্তান যে মিথ্যে বলছে (signs that scream your child is lying), সেটা বুঝবেন কীভাবে? সাধারণ কিছু গবেষণার পর বিশেষজ্ঞরা নিজেদের মতামত দিয়েছেন। সেগুলো নিয়ে আমরা আলোচনা করতেই পারি। কিন্তু প্রাথমিক ভাবে সন্তানকে বিশ্বাস করুন। সেই বিশ্বাসের ভিতই আপনাদের সম্পর্ককে আরও মজবুত করবে। 

এই পাঁচটি লক্ষণই বলে দেবে আপনার সন্তান মিথ্যে বলছে নাকি সত্যি

১। চোখে চোখ রেখে কথা বলছে না: এই বিষয়টা শুধু সন্তানের ক্ষেত্রে নয়। যে-কোনও মানুষ যদি আপনার চোখের দিকে তাকিয়ে কথা না বলতে পারেন, তা হলেই বুঝতে হবে, তার কোনও সমস্যা রয়েছে। একই বিষয় আপনার সন্তানের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। আপনার চোখের দিকে তাকিয়ে স্পষ্ট করে কথা না বলতে পারলেই (signs that scream your child is lying) বুঝবেন, কোনও কিছু আড়াল করার উদ্দেশ্যে মিথ্যের আশ্রয় নিতে হচ্ছে তাকে।

২। সাধারণ প্রশ্নের উত্তর দিতেও দেরি করছে: ধরুন, আপনি কোনও প্রশ্ন করলেন সন্তানকে। খুব সাধারণ প্রশ্ন। অথবা এমন কোনও কাজের কৈফিয়ত চাইলেন, যেটা প্রায়শই আপনার পছন্দ মতো করে না আপনার সন্তান। সেই সময় যদি উত্তর দিতে দেরি করে, তা হলে সাধারণ ভাবে ধরে নেওয়া যায় সন্তান আপনার কাছ থেকে কিছু লুকনোর চেষ্টা করছে। সে কারণেই আসল কথাটা ঢাকতে আপনাকে বলার জন্য নতুন কিছু দ্রুত ভেবে নিচ্ছে। সে কারণেই ওই সময়টা লাগছে তার। ফলে আদৌ যে সে সত্যি বলছে না, বুঝতে পারবেন আপনি।  

৩। হঠাৎ চিৎকার করে কথা বলা: হঠাৎই যদি দেখেন, আপনার সন্তান সাধারণত যে গলায় কথা বলে, তার চেয়ে জোরে, চিৎকার করে কথা বলছে, তখন বুঝতে হবে তার মধ্যে কোনও উদ্বেগ বা ভয় কাজ করছে। সে কারণেই বদলে যাচ্ছে ব্যবহার (signs that scream your child is lying)। ওই পরিস্থিতিতে নির্দিষ্ট কোনও বিষয়ে প্রশ্ন করলে মিথ্যে বলতে পারে সে। আর সেটাকে ঢাকা দেওয়ার জন্যই স্বরের তারতম্য হতে পারে।  

৪। নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখছে: এই বিষয়টা খুব মন দিয়ে খেয়াল করলে বুঝতে পারবেন। ধরুন, আপনার সন্তানের সঙ্গে বসে খাওয়ার অভ্যেস। অথবা দিনের কোনও একটা সময় একসঙ্গে বসে টিভি দেখার অভ্যেস রয়েছে আপনাদের। যদি দেখেন, সে সব থেকে একদিন বা দু'দিন হঠাৎই নিজেকে সরিয়ে নিচ্ছে সে, তা হলে বুঝতে হবে সমস্যা। বিশেষজ্ঞদের মতে, এটা ইমোশনাল ডিসট্যান্স। আপনার থেকে কিছু আড়াল করতে চাইছে বলেই সন্তান অজান্তেই ইমোশনাল ডিসট্যান্স তৈরি করছে, যাতে আপনার কাছে ধরা না পড়ে যায়। সেই পর্বে সন্তানের মিথ্যে বলাটা আপনি বুঝতে পারবেন।

৫। কোনও নির্দিষ্ট বিষয় এড়িয়ে যাওয়া: আপনি হয়তো একটি নির্দিষ্ট বিষয় নিয়ে সন্তানের সঙ্গে কথা বলছেন। কিন্তু সেটা নিয়ে তার বিশেষ কোনও আগ্রহ নেই। ক্রমাগত বিষয় পরিবর্তন করতে চাইছে। অথবা এমন কোনও প্রসঙ্গে কথা বলছে, আপনার বিষয়ের সঙ্গে যার কোনও মিল নেই। বিশেষজ্ঞদের একটা অংশের মতে, তখন বুঝতে হবে, হয়তো আপনার সন্তান কিছু লুকোতে (signs that scream your child is lying) চাইছে। সে কারণেই মূল বিষয়টা এড়িয়ে যাচ্ছে। এমনকী, মূল বিষয়ে কিছু মিথ্যেরও আশ্রয় নিতে হচ্ছে তাকে। 

মূল ছবি সৌজন্য: ফ্যামিলি ম্যান (অ্যামাজন প্রাইম ভিডিও)

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!