Advertisement

লাইফস্টাইল

এমনভাবে রাঁধুন, যাতে স্বাদ ও স্বাস্থ্য দুই’ই রক্ষা হয়

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Sep 11, 2021
এমনভাবে রাঁধুন, যাতে স্বাদ ও স্বাস্থ্য দুই’ই রক্ষা হয়

সর্ষের তেলে মুচমুচে করে ফ্রাই করা মাছ খেতে তো মন্দ লাগে না। আবার পেঁয়াজ-লঙ্কা সহযোগে কষা করে তৈরি নানা পদ তো বাঙালির আল টাইম ফেভারিট। কিন্তু একথা জানা আছে কি, কোনও খাবারই বেশি আঁচে রান্না করা উচিত নয়। কেন জানেন? কারণ, অতিরিক্ত তাপে রান্না করলে মাছ হোক, কী সবজি, তাতে উপস্থিত উপকারী নানা ভিটামিন-মিনারেলের মধ্যে প্রায় ১৫-২০ শতাংশই নষ্ট হয় যায়। (3 easy ways to cook for healthy yet tasty food)

বিশেষ করে ভিটামিন সি, ফলেট এবং পটাশিয়ামের মতো উপকারী উপাদানগুলি একেবারে প্রথমেই নষ্ট হয়ে যায়। তাই তো এমন খাবার খেতে সুস্বাদু হলেও পুষ্টিগুণ কিছুই থাকে না। ফলে শরীরে ভিটামিন-মিনারেল সহ অন্যান্য উপকারী উপাদানের ঘাটতি দেখা দেওয়ার কারণে স্বাভাবিকভাবেই হাজার রকমের রোগ ঘাড়ে চেপে বসার আশঙ্কা বাড়ে।

তাহলে উপায়? হঠাৎ করে রান্নার ধরন বদলে ফেলা তো আর সম্ভব নয়। তাই যেমন চলছে, তেমনই চলুক। তবে মাঝে মধ্যে ডিপ ফ্রাইয়ের পরিবর্তে এই পদ্ধতিগুলি মেনে রান্না করতে হবে, তা হলেই আর কোনও চিন্তা থাকবে না। চলুন, আর আপেক্ষা না করে জেনে নেওয়া যাক রান্না করার নানা স্বাস্থ্যকর উপায় সম্পর্কে… (3 easy ways to cook for healthy yet tasty food)

গ্রিল বা ঝলসানো

মাছ বা মাংস ভাল করে ম্যারিনেট করে ওভেন বা ননস্টিক প্যানে গ্রিল করে নিলে খেতে যেমন সুস্বাদু হবে, তেমনই শরীরেরও কাজে লাগবে। কারণ, রান্নার এর থেকে স্বাস্থ্যকর উপায় আর কিছু হয় না বললেই চলে। আসলে গ্রিল করার সময় একটুও তেল,মাখন বা ঘি ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়ে না। ফলে মেদ বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা তো কমেই, সঙ্গে মাংসে উপস্থিত প্রোটিন, আয়রন এবং উপকারী ফ্যাটের মতো স্বাস্থ্যকর উপাদানগুলিও নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা কমে।

স্টিম বা ভাপা

স্টিম বা ভাপে যে কেবল সরষে দিয়ে ইলিশই রান্না করা করা যায়, এমন নয়। ইচ্ছা হলে রুই-কাতলা অথবা চিংড়ি মাছও ভাপে রান্না করতে পারেন। এমনকী, পটল, কচু সহ নানা শাক-সবজিও ভাপে রান্না করলে খেতে মন্দ হয় না। উপরন্তু এই পদ্ধতিতে রান্না করলে খাবারে উপস্থিত ভিটামিন-মিনারেল সহ নানা উপকারী উপাদানগুলি ধ্বংস হয়ে যাওয়ার আশঙ্কাও কমে। ফলে রসনা তৃপ্তি তো হয়ই, সঙ্গে শরীরও ফিট থাকে। তাই মাঝে মধ্যে স্বাদ বদল করতে তো বটেই, সেই সঙ্গে ছোট-বড় নানা রোগ দূরে রাখতেও ভাপে রান্না করা যেতেই পারে! (3 easy ways to cook for healthy yet tasty food)

বয়েল বা সেদ্ধ

সেদ্ধ খাবারই সবচেয়ে বেশি পুষ্টিকর হয়। কারণ, এই পদ্ধতিতে রান্না করলে খাবারের পুষ্টিগুণ একটুও নষ্ট হয় না। তাই তো নিয়মিত এক বাটি করে সেদ্ধ সবজি আর খান দুয়েক সেদ্ধ ডিম খাওয়া শুরু করলে শরীর বাবাজিকে নিয়ে আর কোনও চিন্তাই থাকে না। মাংস সেদ্ধ করে নিয়ে স্যালাডের সঙ্গে মিশিয়ে খেলেও মন্দ হয় না। মোট কথা সুস্থ থাকতে চাইলে সপ্তাহে দিনতিনেক সেদ্ধ খাবার খেতেই হবে, তাতে নানা ধরনের সবজি থাকা যেমন মাস্ট, তেমনই মাছ-মাংসও যেন থাকে, তবেই কিন্তু ছোট-বড় নানা রোগ দূরে থাকবে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, প্রেশার কুকারে সেদ্ধ করে তৈরি নানা পদও কিন্তু সমান উপকারী।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!       বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!