লাইফস্টাইল

নতুন বছরে এই ৩টে Fusion Recipe-তে করুন বাজিমাৎ

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Dec 28, 2018
নতুন বছরে এই ৩টে Fusion Recipe-তে করুন বাজিমাৎ

এবারে নিউ ইয়ার (new year) পার্টিতে (party) আমার বাড়িতে বাড়িতে লোকজন আসছে. কিন্তু সেই এক বাসন্তী পোলাও আর গন্ধরাজ চিকেন বানিয়ে খাওয়াতে ইচ্ছে করছে না. কি বানাই এমন যাতে দেশি স্বাদও থাকে আবার থাকে বিদেশী ছোঁয়াও! সাতপাঁচ ভাবতে ভাবতে কথাটা মা কে বলেই ফেললাম. মা আমাকে দিলো একটা দারুন আইডিয়া. তিনটে ফিউশন (fusion) রেসিপি (recipe) যাতে আমার নিউ ইয়ার (new year) পার্টি (party) হয়ে উঠবে আরো বেশি সুস্বাদু! রেসিপিগুলো (recipe) আপনাদের সাথেও শেয়ার করছি, লোকজন এলে বানিয়ে খাওয়াতে হবে তো নাকি!

স্টার্টার (Starter)

এভোকাডো চিকেন কাবাব, আনারসের চাটনির সাথে (Avocado Chicken Kebab with Pineapple Salsa)

সেই চেনা চরিত চিকেন কাবাব কিন্তু সাথে আছে এভোকাডোর (avocado) একটু ছোঁয়া.

উপকরণ (Ingredients)

বোনলেস চিকেন – ৪০০ গ্রাম

কাঁচালঙ্কা – ৩-৪টি

আদা – ১ টা (মাঝারি)

রসুন – ৪ কোয়া

এভোকাডো (avocado) – ১টা

শাজিরা – ১ চা চামচ

পুদিনা পাতা – ১৫-২০ টা

পিয়াজ – ২ টো (মাঝারি)

চিজ (cheese) – ৫০০ গ্রাম

আনারস – ১ টা

লেবুর রস – ১ চা চামচ

বিটনুন – ১ চা চামচ

গোটা জিরে – ১ চা চামচ (শুকনো খোলায় ভেজে নেওয়া)

লঙ্কা গুঁড়ো – ১ চা চামচ

অলিভ অয়েল – ১০০ গ্রাম

নুন – স্বাদানুসারে

প্রণালী (Method)

মুরগির মাংস, কাঁচা লঙ্কা, আদা, রসুন, পুদিনা পাতা আর শাজিরা একসাথে ভালো করে মিক্সিতে ব্লেন্ড করে নিন. চিজ গ্রেট করে নিন এবং গ্রেট করা চিজ (cheese) ও এভোকাডো (avocado) ওই মিশ্রনের সাথে ভালো করে মিশিয়ে নিন. এবারে গোটা মিশ্রণটির ছোট ছোট লেচি কেটে টিকিয়ার আকারে গড়ে নিন এবং একটা প্যানে অল্প তেল দিয়ে ভেজে নিন.

অন্য একটা পাত্রে আনারসের টুকরো, পেঁয়াজ কুচি, কাঁচা লঙ্কা, পুদিনা পাতা, লেবুর রস, নুন, বিটনুন, লঙ্কা গুঁড়ো এবং আগে থেকে শুকনো খোলায় নেড়ে নেওয়া জিরে দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করুন. প্রয়োজনে হ্যান্ড ব্লেন্ডারের সাহায্য নিতে পারেন. এবারে গরম গরম চিকেন এভোকাডো কাবাব পরিবেশন করুন আনারসের সালসার সাথে.

মেইন কোর্স (Main Course)

পনির লাসানিয়া (Paneer Lasagne)

লাসানিয়া তো নিশ্চই অনেক খেয়েছেন. ইতালিয়ান খাবার (Italian Cuisine) খেতে যারা ভালোবাসেন, এই খাবারটি কিন্তু মোটামুটি তাদের সবারই পছন্দ. কিন্তু পনির দিয়ে কখনো লাসানিয়া খেয়েছেন? দেখে নিন এই রেসিপিটি (recipe).

উপকরণ (Ingredients)

পনির – ৫০০ গ্রাম

ক্যাপসিকাম – ১ টা (মাঝারি আকারের, চৌকো চৌকো করে কাটা)

লাল বেল পেপার – ১ টা (মাঝারি আকারের, চৌকো চৌকো করে কাটা)

হলুদ বেল পেপার – ১ টা (মাঝারি আকারের, চৌকো চৌকো করে কাটা)

হলুদ জুকিনি – ১ টা (মাঝারি আকারের, চৌকো চৌকো করে কাটা)

সবুজ জুকিনি – ১ টা (মাঝারি আকারের, চৌকো চৌকো করে কাটা)

গাজর – ১ টা (সেদ্ধ করা এবং চৌকো চৌকো করে কাটা)

কড়াই মশলা – দেড় চা চামচ (জিরে, ধনে, লঙ্কা গুঁড়ো, গোলমরিচ গুঁড়ো এবং মৌরি গুঁড়ো একসাথে মিশিয়ে নিন)

রসুন – ৪-৫ কোয়া (ঝিরি ঝিরি করে কাটা)

পেঁয়াজ এবং টমেটোর মিশ্রণ – ৩/৪ কাপ

ধনে গুঁড়ো – ১ চা চামচ

নুন – স্বাদানুসারে

শুকনো লংকার গুঁড়ো – ১ চা চামচ

তেল – আড়াই টেবিল চামচ

কিশমিশ – ১ টেবিল চামচ

পেস্তা – ১ টেবিল চামচ

কাজু – ১ টেবিল চামচ

আদা – আধ চা চামচ (ঝিরি ঝিরি করে কাটা)

কাঁচা লঙ্কা – আধ চা চামচ (ঝিরি ঝিরি করে কাটা)

আলু – ১ টা (বড় সাইজের, সেদ্ধ করা এবং চটকানো)

সাজানোর জন্য:

চিজ (cheese) – ১০ টেবিল চামচ (গ্রেট করা)

ক্যাপসিকাম, লাল বেল পেপার এবং হলুদ বেল পেপার

প্রণালী (Method)

১৮০ ডিগ্রিতে ওভেন প্রি-হিট করতে দিন. যতক্ষণে ওভেন প্রি-হিট হচ্ছে তখন রান্নাটার বাকি কাজগুলো সেরে রাখা যাক.

পানির পাতলা পাতলা স্লাইস করে কেটে তার ওপরে নুন আর লঙ্কা গুঁড়ো ছড়িয়ে সরিয়ে রাখুন. এবারে একটা প্যানে তেল গরম করে তাতে একে একে কিশমিশ, কাজু, পেস্তা দিয়ে একটু নাড়াচাড়া করুন. বাদামি রং হয়ে গেলে একটা প্লেটে তুলে রেখে দিন. এবার ওই প্যানেই আরেক তেল দিয়ে আদা কুচি এবং লঙ্কা কুচি দিয়ে নেড়ে নিন. এবারে আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখ আলু দিয়ে একটু সতে করে নিন. একে একে লঙ্কা গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো এবং নুন দিন এবং ভালো করে আলুর সাথে মেশান. এবারে ভেজে রাখা বাদাম, কিশমিশ ও পেস্তাটা দিয়ে দিন. কিছুক্ষন রান্না করে পুরো জিনিসটাকে অন্য একটা পাত্রে তুলে রাখুন. অন্য একটা পাত্রে তেল গরম করে তাতে কড়াই মসলা এবং রসুন কুচি ভেজে নিন. এবারে পেঁয়াজ আর টমেটোর মিশ্রণটা দিয়ে ভালো করে কষান. একটু একটু করে জল দিন, নাড়তে থাকুন, দেখবেন যেন তলা ধরে না যায়. এবারে একে একে আগে থেকে কেটে রাখা সবজিগুলো দিয়ে ভালো করে রাঁধুন. অল্প ধনে গুঁড়ো এবং নুন দিয়ে দিন. ভালো করে মিশিয়ে ১০ মিনিট রান্না করুন.

একটা কাঁচের বেকিং ডিশে এক লেয়ার রান্না করা সবজি দিন. তার ওপরে গ্রেট করা চিজের খানিকটা দিয়ে দিন এবং কয়েক স্লাইস পনির দিন. এবারে যে আলুমাখাটা করা হয়েছিল, তার একটা লেয়ার তৈরী করুন, এবং এইভাবে পুরো প্রসেসটা রিপিট করুন. ওপর থেকে গ্রেট করা চিজ (cheese) দিয়ে দিন. এবারে একটা বেকিং ট্রেতে কাঁচের পাত্রটি বসিয়ে ১৫ মিনিট বেক করুন. হয়ে গেলে চিজ এবং ক্যাপসিকাম দিয়ে সাজিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন.

ডেজার্ট (Desserts)

ওয়াইল্ড বেরিস এবং ল্যাভেন্ডার ক্ষীর (Wild Berries Kheer with a Pinch of Lavender)

শেষপাতে একটু মিষ্টি (desserts) না হলে নতুন বছরের খাওয়াটা কি জমে? তা যদি ভারতীয় ক্ষীরের (desserts) মধ্যে একটু ল্যাভেন্ডারের সুগন্ধ যোগ করা যায়, তাহলে ব্যাপারটা কেমন হয়? ট্রাই করুন এই রেসিপিটা (recipe).

উপকরণ (Ingredients)

দুধ – ২ লিটার (ফুল ক্রিম)

হুইপড ক্রিম – ২০০ গ্রাম

চাল – ২০০ গ্রাম

ঠাণ্ডাই সিরাপ – ৫০ গ্রাম

ল্যাভেন্ডার এসেন্স – ২০ মিলি.

মরসুমি ফল – ২০০ গ্রাম (কুচি করে কাটা)

ক্যাস্টর সুগার – ১০০ গ্রাম

ফ্রেশ ল্যাভেন্ডার ফুল – কয়েকটা

প্রণালী (Method)

একটা হাঁড়িতে দুধ গরম করতে বসান. ফুটে উঠলে চালটা দিয়ে দিন. এবার চাল সেদ্ধ হয়ে এলে চিনি দিন. মাঝে মাঝেই দুধ আর চাল নাড়তে থাকুন, না হলে কিন্তু তলা ধরে যাবে. দুধ ফুটে যখন পরিমানে অর্ধেক হয়ে যাবে, তখন নামিয়ে ঠান্ডা করতে দিন. ক্ষীর রুম টেম্পারেচারে এলে এবারে তাতে একে একে ঠাণ্ডাই সিরাপ, ফলের টুকরো, হুইপড ক্রিম এবং ল্যাভেন্ডার এসেন্স মিশিয়ে নিন. এবারে ঘন্টা খানেক ফ্রিজে রেখে দিন. পরিবেশন করার আগে ফেস ল্যাভেন্ডার ফুলের পাপড়ি ওপর থেকে ছড়িয়ে পরিবেশন করুন.

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!