home / রিলেশনশিপ
বৈবাহিক ঝামেলা মেটাতে ভুলভাল পরামর্শ এড়িয়ে চলুন

বৈবাহিক ঝামেলা মেটাতে ভুলভাল পরামর্শ এড়িয়ে চলুন

বিয়ের বাঁধনে তো শুধু স্বামী-স্ত্রী জড়িয়ে পরেন না। তাঁদের পাশাপাশি দুই পরিবারের মধ্যেও একটা সম্পর্ক তৈরি হয়। ফলে স্বাভাবিক ভাবেই হানিমুন ডেস্টিনেশন হোক, কী ফ্যামিলি প্ল্যানিং, ছোট-বড় নানা বিষয়ে এক্সপার্ট কমেন্ট (3 relationship advice can ruin your marriage) দেওয়ার মতো লোকের অভাব হয় না।

বিশেষ করে মুষ্টিমেয় কিছু আত্মীয়-বন্ধুদের উৎসাহ এত বেশি থাকে যে, তাঁরা নানা অছিলায় ব্যক্তিগত বিষয়ে নাক গলাতেও  পিছপা হন না। ফলস্বরূপ ‘নানা মুনির নানা মত’ হজম করতে-করতে এক সময় স্বামী-স্ত্রীয়ের মধ্য়েই গোলোযোগ বেধে যায়।

অনেক সময়ে অযাচিত পরামর্শ মনে দ্বন্দ্ব তৈরি করে – ছবি: দেশের মাটি ইনস্টাগ্রাম পেজ

তাই তো বিয়ে বাঁচানোর ইচ্ছে থাকলে বেশ কিছু উপদেশ উপেক্ষা (3 relationship advice can ruin your marriage) করার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। সেই লিস্টে কোন-কোন এক্সপার্ট কমেন্ট রয়েছে, তা জানতে চান নাকি?

সমস্যা মেটাতে পরিবারের সবার সঙ্গেই আলোচনা করা উচিত

পার্টনারের সঙ্গে কথায়-কথায় ঝামেলা হতে থাকলে ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিতে হতেই পারে। কিন্তু যদি ভেবে থাকেন পরিবারের সদস্যদের মধ্যস্থতায় ঝামেলা মিটে গেলেও যেতে পারে, তা হলে ভুল ভাবছেন। কারণ, নিরপেক্ষ ভাবে আপনাদের দু’জনের সমস্যাটা বোঝার চেষ্টা না করলে সমাধান খুঁজে পাওয়াটা সম্ভব নয়।

বৈবাহিক অশান্তি ও ঝামেলা মেটাতে প্রয়োজনে কাপল কাউন্সেলরের সাহায্য নিন

তাই ছোট-বড় ঝামেলা মেটাতে মা-মাসিদের সাহায্য না চেয়ে বরং কাউন্সিলরের পরামর্শ নিন। তাতে একটু খরচ হবে ঠিকই, কিন্তু সমস্যাটা ঠিক কোথায় হচ্ছে, সেটা বুঝতে সুবিধে হবে বই কী! ফলে ঝামালাও মিটবে নিমেষেই।

তাই পার্টনারের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদি মনোমালিন্য চলাকালীন কোনও আত্মীয়-বন্ধু যদি কাউন্সিলরের সঙ্গে পরামর্শ করতে বারণ করেন (3 relationship advice can ruin your marriage), তা হলে আজীবন তাঁর মুখ না দেখাই উচিত!

বিয়েতে শারীরিক সম্পর্ক অতটা ম্যাটার করে না, মনের মিলটাই আসল

এমন পরামর্শ যাঁর মস্তিষ্কপ্রসূত, তাঁকে নিজের জীবন থেকে ছেঁটে ফেলাটাই বুদ্ধিমানের কাজ! কেন একথা বলছি তাই ভাবছেন?

আসলে কী জানেন, বৈবাহিক সম্পর্ককে সুন্দর করে তুলতে ভালবাসাই প্রাথমিক চাহিদা হওয়া উচিত। কিন্তু একথাও উপেক্ষা করা সম্ভব নয় যে, স্বামী-স্ত্রীয়ের সম্পর্ক শারীরিক মিলনের মাধ্যমেই গভীরতা খুঁজে পায়।

মানসিক ও শারীরিক – দুটো সম্পর্কই দরকারি

তাই এটা আসল, ওটা নকল, এমন ভাবে ভাবলে ভুল হবে (3 relationship advice can ruin your marriage)। বরং একথা বলা যেতে পারে যে, ভালবাসা এবং সেক্স, দু’টি বিষয়ই সুখী দাম্পত্য জীবনের মূল ফ্যাক্টর।

তাই স্বামীর সঙ্গে কোনও কারণে যদি শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে মন না চায়, তা হলে নিজেকে একটু বোঝান। প্রয়োজনে সাইকোলজিস্টের সঙ্গেও পরামর্শ করতে পারেন।

মোট কথা সেক্স লাইফকে ইন্টারেস্টিং করে তোলার জন্য যা কিছু করা দরকার, তা নির্দ্বিধায় করতে হবে। না হলে এক সময়ে সম্পর্ক একঘেয়ে হয়ে যাবে। তখন কিন্তু হাজার চেষ্টা করেও সম্পর্কের ভিতকে মজবুত করে তুলতে পারবেন না। তাই ভুলেও এমন পরামর্শে কান দেবেন না যেন!

সন্তান এলেই সব সমস্যা মিটে যাবে

দু’জন অচেনা মানুষ হঠাৎ করে একসঙ্গে থাকতে শুরু করলে একটু ঠোকাঠুকি লাগতে বাধ্য। তাছাড়া প্রতিটা মানুষেরই ভাবনা-চিন্তা আলাদা হয়। তাই স্বামী-স্ত্রীয়ের মধ্যে অল্পবিস্তর ঝগড়াঝাঁটি হওয়াটা তো স্বাভাবিক ঘটনা।

কিন্তু তাই বলে কেউ যদি ভেবে থাকেন যে, বাচ্চা হলেই সম্পর্ক মসৃণ হয়ে যাবে (3 relationship advice can ruin your marriage), তা হলে ভুল ভাবছেন। তাই এমন উপদেশকে গুরুত্ব না দেওয়াই উচিত। বরং পার্টনারের সঙ্গে কোনও বিষয়ে মনোমালিন্য দানা বাঁধলে, তা মিটিয়ে নেওয়ার দায়িত্ব আপনাদের দু’জনের।

যার সঙ্গে থাকতেই পারছেন না, তাঁর সন্তানের জন্ম দেবেন কীভাবে?

সেখানে কোনও তৃতীয় ব্যক্তির পরামর্শ যেমন কোনও কাজে আসবে না। তেমনই বাচ্চা হলেই স্বামী, বউয়ের নাম জপ করতে শুরু করবেন, এমনও নয়। তাই সম্পর্কের জটিলতা না কাটিয়ে মা হওয়ার কথা ভুলেও ভাববেন না।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

10 Aug 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text