Advertisement

লাইফস্টাইল

ইউটিউবে এই ৩০টা শর্ট ফিল্ম না দেখলে আর কি দেখলেন (Best Short Films On Youtube)

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Mar 13, 2019
ইউটিউবে এই ৩০টা শর্ট ফিল্ম না দেখলে আর কি দেখলেন (Best Short Films On Youtube)

ছোটবেলা থেকেই সিনেমা দেখতে আমি খুব ভালোবাসি, সেটা যে ভাষাতেই হোক না কেন (থ্যঙ্কফুলি সাব টাইটেল থাকে)! একটা সময় ছিল যখন স্নান-খাওয়ার মতো আমার প্রতিদিনের রুটিনে অন্তত একটা করে সিনেমা দেখাটাও একটা কাজ ছিল। আসলে ফিল্ম স্টাডিজের ছাত্রী হবার কারণে একটা সময়ে প্রচুর ওয়ার্ল্ড সিনেমা দেখার সুযোগ পেয়েছি আর নেশাটা তখন থেকেই। তখন ডিভিডিতে সিনেমা দেখতাম, তবে দিন দিন উন্নততর প্রযুক্তির কল্যাণে এখন তো আমরা অনলাইন সিনেমা (Online Movie) দেখার সুযোগ পাই অ্যামাজন, হটস্টার, নেটফ্লিক্স, ভুট, এম এক্স প্লেয়ার – এরকম কত অনলাইন স্ট্রিমিং সাইট লঞ্চ করেছে যেখানে ইন্টারনেটের দৌলতে যখন খুশি আর যেখানে খুশি সিনেমা দেখা যায়। শুধু সাবস্ক্রিপশন করে নিলেই হল! তবে আপনি যদি সাবস্ক্রিপশন না করতে চান, তাহলে তো আমাদের সবার প্রিয় ইউটিউব রয়েছেই। শুধু ফিচার ফিল্ম না, নানা ধরনের শর্ট ফিল্মও আপনি দেখতে পারেন ইউটিউবে আর তাও আবার বিনা পয়সায়! এরকমই ৩০টি শর্ট ইউটিউব ফিল্ম (Best Short Films On Youtube) এর কথা আজ বলব, যেগুলো আপনি সুযোগ সুবিধে মতো ইউটিউবে দেখতে পারেন।

আজই দেখুন এই ৩০ টি ইউটিউব শর্ট ফিল্ম (Best Short Films In Youtube):

১। দ্য ডে আফটার এভরিডে (The Day After Everyday)

আপনি যদি শর্ট ফিল্ম (Youtube Short Film) দেখতে ভালোবাসেন এবং ইউটিউবে সার্চ বারে গিয়ে টাইপ করেন “টপ ১০ হিন্দি ইউটিউব শর্ট ফিল্মস”, তাহলে অনুরাগ কাশ্যপের শর্ট ফিল্ম ‘দ্য ডে আফটার এভরিডে’ আপনি ওই লিস্টে পাবেন। ইভটিজিং এবং মহিলাদের ওপর হওয়া অত্যাচার নিয়ে এই সিনেমাটিতে রাধিকা আপ্টে এবং সন্ধ্যা মৃদুলের মতো দু’জন স্বনামধন্য অভিনেত্রী কাজ করেছেন।

২। ছুরি (Chhuri)

টিস্কা চোপড়া, অনুরাগ কাশ্যপ আর সুরভীন চাওলা অভিনীত শর্ট ফিল্ম ‘ছুরি’ (Must Watch On Youtube) একদিকে যেমন মজার, তেমনি একটা খুব বোল্ড মেসেজও সমাজে দেয়। মানসি জৈন পরিচালিত এই শর্ট ফিল্মটি যেমন গল্পের দিক থেকে ভালো, ঠিক তেমনি অভিনয়ের দিক থেকেও দারুণ। আর এই সিনেমার ক্লাইম্যাক্স সত্যিই দেখার মতো!

৩। চাটনি (Chutney)

টিস্কা চোপড়া এবং আদিল হুসেন – দু’জনেই তাবড় অভিনেতা, আর এই দু’জন যখন একটা সিনেমাতে রয়েছেন বুঝতেই পারছেন যে অভিনয়ের দিক থেকে সেই সিনেমাটা কতটা সমৃদ্ধ! ‘লার্জ শর্ট ফিল্মস’ দ্বারা প্রযোজিত এই সিনেমাটিতে গল্প এমনভাবে বলা হয়েছে আর সিনেমাটি এমনভাবে শেষ করা হয়েছে যা অনেককিছু ভাবতে সাহায্য করবে।

৪। টিউবলাইট কা চান্দ (Tubelight Ka Chaand)

একটা ছোট বাচ্চাকে নিয়ে এই সিনেমার গল্প, যে কলকাতা শহরের ফুটপাথে থাকে। হঠাত একদিন চাঁদ দেখে সে চাঁদের সাথে বন্ধুত্ব পাতায় এবং তারপর এমন কিছু হয় যার কল্পনা আমরা কেউই করতে পারি না। সেটা কি, জানতে হলে সিনেমাটি (Must Watch On Youtube) দেখতে হবে।

৫। ইলাইচি (El”ayichi)

এর আগে আমরা নানা বিজ্ঞাপনে এবং বলিউডের দুটো ফিচার ফিল্মে নিম্রত কৌড়কে দেখেছি, তাঁর অভিনয়ের প্রশংসাও করেছি। এবারে এই শর্ট ফিল্মটিতে (Youtube Short Film) তাঁর অভিনয় দেখে নিতে পারেন। এই সিনেমাতে দেখানো হয়েছে যে নিম্রত তাঁর মৃত স্বামীর আত্মার সাথে থাকেন এবং আশ্চর্যজনক ভাবে তিনি ছাড়া আর কেউই সেই আত্মাকে দেখতে পায়না! এরপর কি কি হয় সেটা ইউটিউবে দেখে নিতে হবে

৬। অহল্যা (Ahalya)

আপনি যদি রামায়ণ পড়ে থাকেন কিংবা রামায়ণের গল্প শুনে থাকেন তাহলে অহল্যার কাহিনীও নিশ্চই জানেন। সেই গল্পকেই একটা মডার্ন রূপ দিয়েছেন পরিচালক সুজয় ঘোষ। সাসপেন্স থ্রিলার হিসেবে এই বাংলা শর্ট ফিল্মটি (Bengali Short Film) দেখা যায় এবং ফিল্মের বার্তাটি বোঝার জন্য কিন্তু সিনেমাটি ২/৩ বার দেখতে হবে!

৭। অনুকুল (Anukul)

সত্যজিত রায়ের ছোট গল্প ‘অনুকুল’-এর ওপর ভিত্তি করে সুজয় ঘোষ এই শর্ট ইউটিউব ফিল্মটি তৈরি করেছেন। সৌরভ শুক্লা এবং পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় অভিনীত এই কল্প-বিজ্ঞানের সিনেমাটি ‘রোবোটিক যুগের’ কথা বলে। ভবিষ্যতে যদি পৃথিবীর দায়িত্ব রোবোটের ওপরে এসে পড়ে তাহলে ঠিক কি কি হতে পাড়ে জানতে হলে এই শর্ট ফিল্মটি দেখতেই হবে।

৮। দ্য স্কুল ব্যাগ (The School Bag)

‘দ্য স্কুল ব্যাগ’ – এই শর্ট ফিল্মটি পাকিস্তানের পটভূমিকায় নির্মিত। সাউথ এশিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে বেস্ট ইউটিউব শর্ট ফিল্ম (Best Short Films On Youtube) হিসেবে সিনেমাটি অ্যাওয়ার্ডও পেয়েছে। ২০১৪ সালের ১৬ই ডিসেম্বর পেশোয়ারে যে স্কুলে জঙ্গি আক্রমণ হয়েছিল, তার ওপরেই ভিত্তি করে সিনেমার গল্প বলা হয়েছে।

৯। মমতা টনিক (Mamta Tonic)

শ্রীনিবাসন সুন্দররাজনের ড্রামা ফিকশন বিভাগের শর্ট ফিল্ম এটি। ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডের জন্যও সিনেমটি মনোনীত হয়েছিল। সিনেমায় দেখানো হয়েছে যে একজন মহিলা বাড়িতে টনিক তৈরি করে বিক্রি করেন, কিন্তু সিনেমার শেষে যে চমক (Must Watch On Youtube) রয়েছে তা দর্শকদের ভাবতে বাধ্য করবেই।

১০। কৃতি (Kriti)

মুভিজ ডট কম দ্বারা প্রযোজিত, শিরীষ কুন্দর দ্বারা পরিচালিত এই শর্ট ফিল্মটি একটি সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার। গোটা সিনেমায় একটা সাসপেন্স থাকে কিন্তু একেবারে শেষে এসে দর্শকদের জন্য রয়েছে একটা চমক। সিনেমাটিতে নেহা শর্মা, মনোজ বাজপেয়ী এবং রাধিকা আপ্টে অভিনয় করেছেন। যদি আপনি সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার পছন্দ করেন তাহলে হলফ করে বলতে পারি এই ইউটিউব ফিল্মটি (Youtube Short Film) আপনার ভালো লাগবেই।

১১। ওজুদ (Wajood)

১২ মিনিটের এই শর্ট ফিল্মটি আমাদের দেশের কিন্নরদের জীবনযাত্রার ওপরে ভিত্তি করে বানানো যা শুধু তাঁদের জীবনযাত্রার কথা বলে না, আমাদেরকে অনেক কিছুই ভাবতেও বাধ্য করে। কিন্নরদের প্রতি আপনার মানসিকতা বদলে দেবে এই শর্ট ফিল্মটি।

১২। জ্যুস (Juice)

এই শর্ট ফিল্মটি মাত্র ১৫ মিনিটের। পুরুষশাসিত এই সমাজে মেয়েদেরও যে ঠিক কাঁধে কাধ মিলিয়ে চলার ক্ষমতা রয়েছে, সেই বার্তাই দেওয়া হয়েছে এই সিনেমায়। না কাঁধে কাধ মিলিয়ে চলতে গেলে সবসময় আপনাকে রোজগার করতে হবে তা কিন্তু বলা হয়নি! একজন গৃহবধূরও যে সমান অধিকার আছে, সেটা খুব সুন্দর করে এখানে দেখানো হয়েছে।

১৩। খানে মে ক্যা হ্যায়? (Khaney Mein Kya Hai?)

মা-মেয়ের খুব ‘নরম্যাল’ কথাবার্তার ওপরে ভিত্তি করে তৈরি এই শর্ট ফিল্মটি কিন্তু যথেষ্ট বোল্ড! আসলে আমাদের সমাজে এখনও সেক্স এডুকেশন নিয়ে কথা বলতে অনেকেরই বাধে, এই সিনেমাতে সেটাই খুব সহজ করে বোঝানো হয়েছে। একজন নববিবাহিতা মেয়ে তার বেডরুম স্টোরি বেশ অন্যরকমভাবে মজার ছলে কীভাবে তার মায়ের সাথে শেয়ার করে, সেটাই এই সিনেমায় দেখানো হয়েছে।

১৪। পজিটিভ (Positive)

ফারহান আখতারের এই শর্ট ইউটিউব ফিল্মটি (Youtube Short Film) দেখার পর আমি হলফ করে বলতে পারি আপনি বলবেন যে আপনার জীবনে দেখা শর্ট ফিল্মগুলির মধ্যে এটি অন্যতম।

১৫। ডিউস (Deuce)

চিন্তন রূপারেল-এর এই শর্ট ফিল্মের গল্প এক মা এবং ছেলেকে নিয়ে। ছেলে যা করে মায়ের তা পছন্দ না, আবার মায়ের কোন ব্যাপারই ছেলেরও পছন্দ না। মা-ছেলের এই ঝামেলায় কে জেতে সেটাই দেখার এই সিনেমায়!

১৬। বাইপাস (Bypass)

ইরফান খান আর নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি দু’জনেই দিজ্ঞজ অভিনেতা। আর এই দুই অভিনেতা যদি একটা সিনেমায় একসাথে অভিনয় করেন, তাহলে বুঝতেই পারছেন যে সেই সিনেমাটি ঠিক কীরকম হতে পারে! অমিত কুমার পরিচালিত এই শর্ট ফিল্মটি দারুণ অভিনয় এবং ভালো একটা গল্পের মেলবন্ধন। এই সিনেমাটি কবে তৈরি হয়েছিল জানেন? ২০০৩ সালে, যখন এই দুই অভিনেতাই নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠা করার জন্য স্ট্রাগল করছিলেন।

১৭। ম্যাড (Mad)

এই শর্ট ফিল্মটির বিশেষত্ব কি জানেন? সিনেমাটি দেখা কঠিন হলেও বোঝা কিন্তু খুব সহজ। ‘সিটি লাইটস’ আর ‘ফোবিয়া’-র মতো সিনেমার কাস্টিং ডিরেক্টর বিনোদ রাবত এই শর্ট ফিল্মটির পরিচালক। এই গল্পেও একজন মা ও তার মেয়ের কাহিনী বলা হয়েছে, কিন্তু তাঁদের সম্পর্কের এমন একটা দিক আছে, যা আপনাকে ভাবতে বাধ্য করবেই।

১৮। তান্ডব (Taandav)

মনোজ বাজপেয়ী-র অভিনয় ক্ষমতা এবং দক্ষতা সম্বন্ধে নতুন করে আর কি বলব? বলিউডে খুব কম এমন অভিনেতা রয়েছেন যাঁদের অ্যাক্টিং স্কিল নিয়ে প্রশ্ন তোলা যায় আর মনোজ তাঁদের মধ্যে একজন। একজন পুলিশ কস্টেবলের সাথে ঘটা একটা কমন সমস্যা নিয়ে এই শর্ট ফিল্মটি। ১১ মিনিটের এই সিনেমাটি কিন্তু আপনাকে বেশ কয়েক ডোজ এন্টারটেনমেন্ট দেবে।

১৯। মা (Maa)

যুবসমাজের ওপরে নেশার প্রভাব যে কীভাবে ধীরে ধীরে পড়ছে এবং কীভাবে যে মানুষ এই ভয়ঙ্কর ড্রাগের নেশার শিকার হচ্ছে, নিরঞ্জন আয়েঙ্গার-এর এই শর্ট ফিল্মে (Must Watch On Youtube) সেটাই দেখানো হয়েছে। এই সিনেমাটিতে নিনা কুলকার্নি, দিনো মোরিয়া এবং ভিভান শাহ অভিনয় করেছেন।

২০।  গুটুরগু (Gutargu)

এই শর্ট ফিল্মটি দেখে আপনি কিন্তু বেশ নস্টালজিক হয়ে পড়তে পারেন! মনে আছে, আগে সেই দুই বাড়ির ছাদে উঠে দু’জন মানুষ প্রেম করত? এখানেও সেরকমই কিছু দেখানো হয়েছে। একটা কাপল যাঁদের প্রেম ছাদেই আরম্ভ হয়েছিল তাঁদেরই গল্প বলা হয়েছে গুটুরগু-তে। আর মজার ব্যাপার হল সিনেমাটির পুরো পতভুমিকাই ছাদে!

২১। দ্য গুড গার্ল (The Good Girl)

এই শর্ট ফিল্মটি ২১ বছরের মেয়ে আপ্পু আর তার মা গুরদীপ কোহলির গল্প বলে। দু’জনের সংলাপেই এই সিনেমার গল্প এগিয়ে চলে। একদিন গুরদীপ তার মেয়ে আপ্পুকে লুকিয়ে প্রেগন্যান্সি টেস্ট করতে ধরে ফেলেন এবং তখনি গল্প আরম্ভ হয়। এই ঘটনাতে মায়ের রিঅ্যাকশন আর মেয়ের উত্তর – এর ওপরেই ছবির গল্প এগিয়ে চলে।

২২। মীরা (Meera)

আর্চিতা অগ্রবাল এবং আমন আসিফ অভিনীত শর্ট ফিল্ম ‘মীরা’ একটা অদ্ভুত কাহিনী। একজন হাজব্যান্ড তার স্ত্রীকে বিয়ের পর হওয়া অ্যাফেয়ারের কথা বলতে থাকে – এই নিয়েই ফিল্মটির গল্প।

২৩। বান্নি (Bunny)

দু’জন মানুষ নিজেদের জীবনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য ঠিক করে যে একসাথে আত্মহত্যা করবে। যেমন ভাবা তেমনি কাজ, একদিন রাতে শোবার আগে দু’জনেই ঘুমের ওষুধ খেয়ে ঘুমোয় এটা ভেবে যে অবশেষে তাঁদের জীবনের সমস্যার সমাধান হবে, কিন্তু পরদিন সকালে একজনেরই ঘুম ভাঙ্গে।

২৪। ক্ষীর (Kheer)

প্রায় ৭ মিনিটের এই সিনেমাটির পরিচালক সূর্য বালাকৃষ্ণণ। এই ফিল্মে অনুপম খেরের দারুণ অভিনয় দেখার আরও একবার সুযোগ পাবেন আপনি। তার সাথেই নতুন প্রজন্মের কাছে একটা বেশ স্ট্রং মেসেজ এই শর্ট ফিল্মের মাধ্যমে দেওয়া হয়েছে। বেস্ট ইন্টারন্যাশনাল শর্ট ফিল্ম-এর অ্যাওয়ার্ডও (Best Short Films On Youtube) পেয়েছে এই ফিল্মটি।

২৫। নয়নতারাস নেকলেস (Nayantara’s Necklace)

কঙ্কনা সেন এবং তিলোত্তমা সোম ‘নয়নতারাস নেকলেস’ ছবিতে অভিনয় করেছেন। দুই বন্ধু যাঁদের জগতটাই আলাদা, তাঁদের গল্প দেখানো হয়েছে এই শর্ট ফিল্মে। জয়দীপ সরকারের এই ফিল্মের সময়কাল ছোট হলেও বেশ বড় একটা বার্তা সমাজের কাছে পৌঁছে দিতে যথেষ্ট সক্ষম এই ফিল্ম।

২৬। নীতিশাস্ত্র (Nitishastra)

লার্জ-শর্ট ফিল্মস দ্বারা প্রযোজিত, তাপসী পান্নুর শর্ট ফিল্ম ‘নীতিশাস্ত্র’ সোশ্যাল মিডিয়াতে আসতেই একেবারে দারুণ সাড়া ফেলে দিয়েছে। এই সিনেমাটি দেখার পর অনেকেই এরকম পর্যন্ত বলেছিলেন যে এর থেকে ভালো শর্ট ফিল্ম তাঁরা আগে কখনও দেখেননি। মহিলাদের ওপরে হওয়া যৌন নিপীড়ন এবং ধর্ষণের মতো সামাজিক ব্যাধির প্রতিবাদে তৈরি এই শর্ট ফিল্মটি একবার দেখে নিন (Must Watch On Youtube), যদি আপনি ফিল্ম-বাফ হন!

২৭। দ্য লাস্ট ডে (The Last Day)

অধিরাজ বোস-এর এই শর্ট ফিল্মটি যারা হোস্টেল বা পিজি-তে রুমমেট-এর সাথে থাকেন তাঁদের গল্প বলে। চেনা ছক হলেও সিনেমায় গল্প বলার ধরনটা নতুন এবং বেশ অন্যরকম। দুই রুমমেটের মধ্যে হওয়া কথাবার্তা শুনে আপনারও মন ভারাক্রান্ত হতে বাধ্য।

২৮। নারিয়েল কে লাড্ডু (Naariyal Ke Laddoo)

কিছু কিছু বিষয় থাকে যেগুলো সমাজে সেই পুরাতন ধ্যান-ধারনাকে আরও বাড়িয়ে দেয়। সমাজের সেইসব স্টিরিও-টিপিক্যাল ধ্যান-ধারনা ভাঙ্গার জন্য এই শর্ট ফিল্মটি। সিনেমাটির সময় কম হলেও যে মেসেজটি দেওয়া হয়েছে এই ফিল্মের মাধ্যমে তা যথেষ্ট বোল্ড এবং অনেকদিন ধরেই লোকের মনে দাগ কেটে রাখবে।

২৯। পুরনমাসি (Pooranmasi)

অমৃতা সিং, প্রমিত শেঠি আর মিনিশা লাম্বা অভিনীত এই শর্ট ফিল্মটি খুবই গম্ভির একটি বিষয় নিয়ে তৈরি। মা-মেয়ের গল্প হলেও তাঁদের ওপরে সমাজের নানা প্রভাব কীভাবে পড়ে এবং তাঁদের জীবন কীভাবে একটা ধাক্কা খায় – সেসব নিয়েই এই ফিল্মটি (Short Films On Youtube)।  

৩০। রোম্যান্স ইন পিস – R.I.P (Romance in Peace)

ত্রিকোণ প্রেমের গল্প হলেও কিন্তু চেনা ছক না। দুই বুড়ো আর আর মহিলার গল্প এটি। প্রেমে পড়লে যে মানুষ কি করতে পারে আর কি না করতে পারে – তা নিয়েই মজার এই শর্ট ফিল্ম।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এগুলোও আপনি পড়তে পারেন

২০১৯ এ দেখতেই হবে এই সেরা বাংলা সিনেমা গুলো