home / চুলের যত্ন নিয়ে নানা টিপস
চুলের যত্ন নিতে গিয়ে আসলে চুলের ক্ষতি করে ফেলছেন না তো!

চুলের যত্ন নিতে গিয়ে আসলে চুলের ক্ষতি করে ফেলছেন না তো!

আমরা সবাই সুন্দর চুল চাই। চুলের দৈর্ঘ্য় পছন্দমতো রাখাই যায়, কিন্তু চুল স্বাস্থ্যোজ্জ্বল থাকলেই ভাল। এতে চুল দেখতেও সুন্দর লাগে। কিন্তু চুলের সঠিক যত্ন নেওয়ার পরেও কি চুলের অবস্থা খারাপ হয়ে যাচ্ছে? তবে আপনারও একটু সতর্ক হওয়া প্রয়োজন। যেমন ধরুন, চুলের সঠিক যত্ন নিতে গিয়ে হয়তো আপনি অজান্তেই চুলের ক্ষতি করে ফেলছেন। যে কারণেই যত্ন নিলেও মনের মতো চুল পাচ্ছেন না আপনি। কীভাবে চুলের যত্ন আসলে নেওয়া উচিত, চুলের যত্ন নিতে গিয়ে কী ভুল হয়ে যায় (hair care mistakes) সেই নিয়েই আলোচনা করব আজ

চুল আঁচড়ানো (hair care mistakes)

আপনি সারাদিনে কতবার চুল আঁচড়ান? এই কথা কি জানেন যে, দিনে বারবার চুল আঁচড়ানোর কোনও প্রয়োজন নেই। এতে আপনার চুলের গোড়া আলগা হতে যেতে পারে। চুলের ক্ষতি হতে পারে। সকালে উঠেই ভালো করে চুল আঁচড়ান। তাতে স্ক্যাল্প থেকে ময়লা, ধুলো ও মৃত কোষ ঝরে যাবে। তাছাড়া রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পাবে এবং সেবামের উৎপাদন বাড়বে (puja hair care) । রাতে শুতে যাওয়ার আগেও চুল আঁচড়ে নেবেন। চিরুনি যেন নন সিনথেটিক হয়। চিরুণি অপরিষ্কার রেখে দেন? প্রতিদিন নিয়ম করে চিরুনি ধোবেন। নাহলে সকালে ওই চিরুনি দিয়ে আঁচড়ালে(hair care mistakes) চুল আবার ময়লা হয়ে যাবে।

স্ক্যাল্পের যত্ন

চুল তখনই ভাল থাকে, যখন আপনি স্ক্যাল্পেরও সঠিক যত্ন নেন। আসলে চুলের স্বাস্থ্য আপনার স্ক্যাল্পের স্বাস্থ্য়ের উপরে নির্ভর করে। তাই স্ক্যাল্প অপরিষ্কার করে রেখে দিলে চুল তো খারাপ হবেই। তবে কী করবেন? স্নান করার সময় আঙুল দিয়ে চক্রাকার মোশানে মাথায় মাসাজ করুন, এতে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পাবে। শুষ্ক চুলে কোনও হাইড্রেটিং শ্যাম্পু দিয়ে এটা করতে পারেন। পাতলা ও তৈলাক্ত স্ক্যাল্পের জন্য হাল্কা শ্যাম্পু দরকার আর স্বাভাবিক চুল হলে যে কোনও শ্যাম্পুই ব্যবহার করতে পারেন। চুলে কন্ডিশনার অবশ্যই লাগাবেন। স্ক্যাল্পে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি হলেই চুল সঠিক পুষ্টি পাবে। চুল বাড়বে ও জেল্লা পাবে।

অয়েল থেরাপি(hair care mistakes)

আমরা সবাই জানি চুল ভাল রাখার জন্য় চুলে তেল মাখা প্রয়োজন। কিন্তু এই তেল মাখার সময়ও আমাদের কিছু না কিছু ভুল থেকে যায়, আর সেই কারণেই চুলের ভাল হওয়ার থেকে উল্টে ক্ষতি হয় আরও বেশি। আপনার চুলের ধরন যেমনই হোক, প্রতি সপ্তাহে আপনার প্রয়োজন হট অয়েল থেরাপি। এই ক্ষেত্রে বাড়িতেও আপনি হট অয়েল থেরাপি করতে পারেন। নারকেল তেল গরম করে নিন। আমন্ড অয়েল মিশিয়ে নিতে পারেন। কিংবা কোনও এসেনশিয়াল অয়েলও মিশিয়ে নিতে পারেন। সেই গরম তেল ভাল করে স্ক্যাল্পে মাসাজ করবেন। আঙুলের ডগা দিয়ে সামান্য চাপ দিতে পারেন স্ক্যাল্পে(hair care mistakes)। আপনার চুল পুষ্টি পাবে । চুল ভাল থাকবে। চুলের দৈর্ঘ্য অনুযায়ী পর্যাপ্ত তেল নিন। অতিরিক্ত তেল মাখবেন না। তেল মেখে সারা রাত রেখে দেবেন না।

হেয়ার প্রোডাক্ট ব্যবহার

হেয়ার এক্সপার্টরা বলছেন মাথার চুলে যত বেশি প্রোডাক্ট ব্যবহার করবেন চুলের ক্ষতি তত বেশি হবে (puja hair care) । যদি সকালে বেরনোর আগে ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকনো করতে চান তাহলে চুলে হিট প্রোটেকটান্ট স্প্রে লাগিয়ে নেবেন। প্রতি সপ্তাহে নিয়ম করে হেয়ার স্টাইলিং প্রোডাক্ট লাগাবেন না। বরং চুল স্বাভাবিক রাখুন এবং প্রাকৃতিক উপায় অবলম্বন করুন, সেটাই চুলের পক্ষে ভাল হবে।

এছাড়াও…

হেয়ার মাস্ক – প্রতি সপ্তাহে অন্তত একবার হেয়ার মাস্ক লাগান। ছুটির দিনে কিছুটা সময় আপনার ত্বক এবং চুলের যত্নের জন্য রাখুন। সেদিন হেয়ার মাস্ক লাগিয়ে নিন। রুক্ষ চুলের জন্য কলার হেয়ার মাস্ক(hair care mistakes) লাগাতে পারেন।

ভিজে চুলে বাড়তি যত্ন – স্নান করা মাত্র মোটা দাঁড়া চিরুনি দিয়ে ভিজে চুল আঁচড়াবেন না। ভিজে চুল টাইট করে বেঁধেও রাখবেন না এতে চুলে টান পড়বে এবং চুল মাঝখান থেকে ফেটে যাবে ।

মূল ছবি – ইনস্টাগ্রাম

POPxo এখন চারটে ভাষায়!ইংরেজিহিন্দিমারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন
#POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন
নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

25 Mar 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text